নীড়পাতা

টিকিট কাউন্টার

দৃষ্টি আকর্ষণ

  • ট্রেনিংরুম ঘুরে আসুন।
  • ইস্টিশনের এন্ড্রয়েড এ্যাপ্লিকেশন ডাউনলোড করুন
  • পরিষ্কার বাংলা দেখার জন্য এখান থেকে ফন্ট ইন্সটল করে নিন।
  • অনলাইনে লেখা কনভার্ট করুন
  • ইস্টিশনের নতুন ব্যানার দেখতে না পেলে/সমস্যা হলে Ctrl+F5 চাপুন।
  • প্যাসেঞ্জার ট্রেন শিডিউল
  • আপনার ব্রাউজার থেকে ইস্টিশনব্লগের সাথে সবসময় যুক্ত থাকতে নিচের লোগোতে ক্লিক করে টুলবারটি ইন্সটল করুন।
  • ওয়েটিং রুম

    এখন 5 জন যাত্রী প্লাটফরমে আছেন

    • নির্যাতিতের দীর...
    • সিয়ামুজ্জামান মাহিন
    • মৃত কালপুরুষ
    • নরসুন্দর মানুষ
    • সলিম সাহা

    নতুন যাত্রী

    • মোঃ হাইয়ুম সরকার
    • জয় বনিক
    • মুক্তি হোসেন মুক্তি
    • সোফি ব্রাউন
    • মুঃ ইসমাইল মুয়াজ
    • পাগোল
    • কাহলীল জিব্রান
    • আদিত সূর্য
    • শাহীনুল হক
    • সবুজ শেখর বেপারী

    তিন বদের ধারী : ঈশ্বর, আল্লাহ, গড


    সৃষ্টির তত্ত্ব নিয়ে ধর্মগুলো মানুষকে দিনের পর দিন ঠকিয়ে আসছে, বিজ্ঞানের সাথে ধর্মের সৃষ্টিতত্ত্বের প্রতি অবিশ্বাস তৈরী হয়েছে, জন্ম নিয়েছে নাস্তিকতা । আজ একটু সৃষ্টিতত্ত্বকে খুঁচিয়ে ঘা করবো ।

    স্মৃতিতে ভারত ভ্রমণঃ শিখ ড্রাইভার ও দুজন কাশ্মীরী



    ভারতীয় কাশ্মীরের মানুষজন সম্ভবত পাকিস্তানকেও সেভাবে পছন্দ করে না। তবে তাদের সাধারণ মানুষ বাংলাদেশকে ভীষণ পছন্দ করে। নানা সময়ে সেটার প্রমাণ পাই। দেখতে সুন্দর, অমায়িক এ মানুষগুলো বাংলাদেশী শুনলে আলাদা খাতির করে। কারণটা ঠিক জানি না। আগ্রাতে এক কাশ্মীরী ছেলের সাথে পরিচয় হয়, বাংলাদেশী শুনবার পর তার আচরণ একদম পালটে যায়। সে আমাকে টুরিস্ট মৌসুমে কাশ্মীর বেড়াতে যাবার দাওয়াত দেয়। ঠিকানা, ফোন নাম্বার দিএ জানায় যে তখন তারা কাশ্মীর ফিরে যায়। আমি যেন অবশ্যই যাই আর অন্য কোথাও না গিয়ে তাদের বাড়িতে উঠি। সে আমাকে দেখাবে কাশ্মীর কেমন।

    Autocracy in the name of progress


    I want to highlight the discrimination's Hungarian government is doing to the refugees and asylum seekers.

    What Hungarian government is doing with refugees is highly unacceptable. I was a target of religious fanatics when I was in Bangladesh, they tried to kill me. Now when I’m in Europe thinking that I'm not going to face any prejudice, I became a victim of Victors Right-wing government.

    তর্ক করুন যুক্তি দিয়ে, অর্জন করুন যোগ্যতা এবং প্রচেষ্টা দিয়ে।


    আমি মূল লেখাটি শুরু করার আগে কিছু কথা বলে রাখি, শিরোনামটি দিয়েছি কিছু সময় ধরে ভাবার পর। আর আমি চেষ্টা করবো তার ধারাবাহিকতায় আমার লেখাটি পরিসমাপ্ত করতে।

    মাসুদ সাহেব একটা সময় মোল্লা ছিল, জঙ্গি মাতানো মশলা দিতো,৭২ হুরের জন্য ৫ বেলা বন্দনা করতো


    মাসুদ সাহেব একটা সময় মোল্লা ছিল, জঙ্গি মাতানো মশলা দিতো,৭২ হুরের জন্য ৫ বেলা বন্দনা করতো ইত্যাদি ইত্যাদি ...
    কিন্তু মাসুদ সাহেব এখন তা না করে দাড়ি,জুব্বা ফেলে দিয়ে আলোর দিকে পা দিয়েছে। এটা এক অভূতপূর্ন পরিবর্তন যা ঠাই করে নিয়েছে মনুষত্ব্য জাগ্রত সকল মস্তিস্কে ।
    ঠিক তেমনি ভাবে মুফাসসিল ইসলামও তাই। সে একটা সময় কট্টর পন্থী আস্তিক ছিলেন। বড় বড় নাস্তিক,সুপা নাস্তিকের সাথে ইসলামের পক্ষ নিয়ে ডিবেট করেছে। সুন্নত রেখে জান্নাতে যাওয়ার জন্য আকুল আবেদন করেছেন।

    এই বঙ্গে দানিয়ালা বিয়ানছির প্রেমিক-বিষাদ আব্দুল্লাহ


    তাঁর সমস্ত অবয়ব অজস্র চাঁদের আগুনে মোড়া
    ভেবেছিলাম এশিয়ার আলো। কি অদ্ভুত !
    ইতালির আগুন এই বঙ্গে !
    কী অসহ্য সুতীব্র কী জোরালো
    হয়ে আমাকে ছুঁলো
    আগুন কি করে আগুন রুখে !

    এযাবৎ বিষাদের বুকে ধুপ করা কাঠি জ্বলেনি
    অবশ্য সাহস কোন যুবতীর কি ছিলো
    আমারও কি ! দ্বন্দ্ব তা চির অনাবিষ্কৃত

    শরীরে আজন্ম বাহিত আগুন
    আর আগত আগুন

    অগ্নিজিহ্বার পাতলা পর্দার ওপর
    দাঁড় করিয়ে দূর থেকে সে
    কাঁপনের বাতাস ছাড়ছে

    প্যাকেট ভর্তি গল্প


    নিরার ফোন বাজছে কিন্তু সে ফোন তুলছে না। নিরা জানে ফোনটা রুদ্রই করছে। এও জানে এরপর রুদ্র আজ আর ফোন করবে না। কিন্তু নিরা খুব রেগে আছে। ফোন দিয়ে ছেলেটাকে ইচ্ছামত বকাবকি করতে মন চাচ্ছে ওর। গেল সপ্তাহেও এমন করেছে। নিরা ফোন থেকে দূরে ছিল। হাতে নিতে নিতে ফোনটা কেটে গেল। কিন্তু রুদ্র আর ফোন করল না। আজ তো ইচ্ছা করেই ফোন রিসিভ করলো না নিরা। ছেলেটা জিজ্ঞেসও করে না কেন ফোন রিসিভ হলো না বা পরে এ ব্যাপারে কথাও উঠায় না। কিন্তু কিছু বলার জন্যই তো একটা মানুষ আরেকটা মানুষকে ফোন দেয়। কি বলতো রুদ্র?

    পৃষ্ঠাসমূহ

    কু ঝিক ঝিক

    ফেসবুকে ইস্টিশন

    কপিরাইট © ইস্টিশন ব্লগ ® ২০১৮ (অনলাইন এক্টিভিস্ট ফোরাম) | ইস্টিশন নির্মাণে:কারিগর