নীড়পাতা

টিকিট কাউন্টার

ওয়েটিং রুম

এখন 6 জন যাত্রী প্লাটফরমে আছেন

  • মৃত কালপুরুষ
  • নরসুন্দর মানুষ
  • সিয়ামুজ্জামান মাহিন
  • সলিম সাহা
  • নির্যাতিতের দীর...
  • সুখ নাই

নতুন যাত্রী

  • মোঃ হাইয়ুম সরকার
  • জয় বনিক
  • মুক্তি হোসেন মুক্তি
  • সোফি ব্রাউন
  • মুঃ ইসমাইল মুয়াজ
  • পাগোল
  • কাহলীল জিব্রান
  • আদিত সূর্য
  • শাহীনুল হক
  • সবুজ শেখর বেপারী

আপনি এখানে

বল্টুর কৈলাস দর্শন


কৈলাসে শেষ মুহূর্তের প্রস্তুতি চলছে। সব প্যাকিং মোটামুটি সম্পূর্ণ। আর দু-একদিন বাদেই যাত্রা শুরু। এবারে একটু হাতে সময় নিয়েই রওনা দিতে হবে কারণ প্রবল বন্যায় উত্তরবঙ্গের অধিকাংশ রাস্তা ভেঙ্গে গেছে। তারওপরে পাহাড়ে লাগাতার বন্ধ চলছে। মনে হয় সিকিম হয়ে ঘুরে যেতে হবে।
:
কিন্তু আজ একি হল কৈলাসে?সবাই হঠাৎ পাগলের মতো হেডফোন খুঁজছে কেন? সরস্বতী এমনি খুব ধীরস্থির মেয়ে, নিজের জিনিসগুলো বেশ গুছিয়ে রাখে। তার হেডফোন তার কাছেই থাকে । তাই তার কোন তাপ উত্তাপ নেই। কিন্তু বাকিদের মধ্যে কেমন একটা অস্থিরতা! কিছুক্ষণ বাদে লক্ষ্মী চেঁচিয়ে উঠলো - "পেয়েছি, পেয়েছি!" অমনি কার্তিক তার কাছে ছুটে গিয়ে বলল - "ওটা আমার হেডফোন, আমায় দে।" লক্ষ্মী বলে উঠলো - "কিছুতেই না। এটা আমার। আমার ড্রয়ারে ছিল।" এই নিয়ে ভাইবোনের মধ্যে ঝামেলা। শেষে মা দুগগা কার্তিককে ভীষণ বকা দিয়ে বললেন - "দিদির সাথে এটা নিয়ে ঝামেলা করিস না আর। যা দোকান থেকে আমার আর তোর জন্য দুটো কিনে নিয়ে আয়।"
:
দোকানে হেডফোন কিনতে যাবার সময় পথে গণেশের সাথে দেখা! সে তখন একটা বড় বার্গারে কামড় মেরেছে। ভাইকে হন্তদন্ত হয়ে যেতে দেখে সে চোখ মেরে জিজ্ঞাসা করল - "কিরে কেতু! হেডফোন কিনতে যাচ্ছিস?" কার্তিক গম্ভীর হয়ে উত্তর দিল - "হুম!" সাথে জিজ্ঞাসা করল - "তোর জন্যও কি একটা নিয়ে আসবো?" বড় কান নাড়িয়ে গনেশ উত্তর দিল - "না! আমার নিজের কান দিয়ে আমি কানের ফুটো ঢেকে রাখতে পারি। হেডফোন তোদের লাগবে।"
:
বাগানের পরিচর্যা করার সময় এসব দেখে নন্দী মহাদেবের কছে গিয়ে জিজ্ঞাসা করল - "প্রভু! বঙ্গে যাবার আগে কৈলাসের সবাই হেডফোনের খোঁজ কেন করছে?" বাবা তখন সবে গাঁজায় টান মারছিলেন, এমন বেমাক্কা প্রশ্নে দাঁত খিচিয়ে উত্তর দিলেন - "কোনও খবরই তো রাখিস না। তুই আবার আমার সেক্রেটারির কাজ করিস! এই নে দেখ!", বলে পাশে রাখা আনন্দবাজার কাগজটা নন্দীর হাতে ধরিয়ে দিলেন। হাতে নিয়ে কাগজ খুলতেই বড় হেডলাইন চোখে পড়ল নন্দীর, যেখানে লেখা আছে – এবছর সমস্ত পূজা কমিটিতে দিদির লেখা আর সুর করা গান বাজাতেই হবে। তাই ১৫টা করে গানের সিডি সমস্ত কাউন্সিলারদের দেওয়া হয়েছে।
:
ওদিকে সকাল থেকে খবরটা জানাজানি হবার পর থেকে মহিষাসুর মা দুগগা কে কমসে কম ত্রিশ বার ফোন করেছে, আর প্রতিবারই ঘ্যান ঘ্যান করে একটা কথাই সে বলছে,- এবারে সপ্তমীতেই আমায় মেরে ফেল মা, না থাকবে মাথা, না থাকবে কান, না শুনতে হবে গান...!
:
কার্টেসি : কলকাতার ফেসবুক বন্ধু

Comments

মৃত কালপুরুষ এর ছবি
 

বল্টুর কৈলাস দর্শন নামটা খারপ নয় তবে গান বাজানোর বাধ্যবাধকতা বিষয়ক কিছু টাইটেলে যোগ থাকলে আরো ভালো হতো।

-------- মৃত কালপুরুষ

 

Post new comment

Plain text

  • সকল HTML ট্যাগ নিষিদ্ধ।
  • ওয়েবসাইট-লিংক আর ই-মেইল ঠিকানা স্বয়ংক্রিয়ভাবেই লিংকে রূপান্তরিত হবে।
  • লাইন এবং প্যারা বিরতি স্বয়ংক্রিয়ভাবে দেওয়া হয়।
CAPTCHA
ইস্টিশনের পরিবেশ পরিচ্ছন্ন রাখার জন্য আপনাকে ক্যাপচা ভেরিফিকেশনের ধাপ পেরিয়ে যেতে হবে।

বোর্ডিং কার্ড

ড. লজিক্যাল বাঙালি
ড. লজিক্যাল বাঙালি এর ছবি
Offline
Last seen: 13 ঘন্টা 28 min ago
Joined: সোমবার, ডিসেম্বর 30, 2013 - 1:53অপরাহ্ন

লেখকের সাম্প্রতিক পোস্টসমূহ

কু ঝিক ঝিক

ফেসবুকে ইস্টিশন

কপিরাইট © ইস্টিশন ব্লগ ® ২০১৮ (অনলাইন এক্টিভিস্ট ফোরাম) | ইস্টিশন নির্মাণে:কারিগর