নীড়পাতা

টিকিট কাউন্টার

ওয়েটিং রুম

এখন 6 জন যাত্রী প্লাটফরমে আছেন

  • মৃত কালপুরুষ
  • নরসুন্দর মানুষ
  • সিয়ামুজ্জামান মাহিন
  • সলিম সাহা
  • নির্যাতিতের দীর...
  • সুখ নাই

নতুন যাত্রী

  • মোঃ হাইয়ুম সরকার
  • জয় বনিক
  • মুক্তি হোসেন মুক্তি
  • সোফি ব্রাউন
  • মুঃ ইসমাইল মুয়াজ
  • পাগোল
  • কাহলীল জিব্রান
  • আদিত সূর্য
  • শাহীনুল হক
  • সবুজ শেখর বেপারী

আপনি এখানে

অধিকার

অপরাধী জবানবন্দী (পর্ব ১)


আমি সমকামী। নারীর প্রতি আমি আকর্ষণ অনুভব করিনা। পুরুষের প্রতি আকর্ষণ অনুভব করি।

কথাগুলো বেশ নীচু কন্ঠে বললো অনিরুদ্ধ। তারপর, ভীত দৃষ্টিতে তাকিয়ে রইলো আমার দিকে। সম্ভবত, দেখতে চাচ্ছিলো আমার মুখের কোন পরিবর্তন হয় কিনা!

আমি হাসিমুখেই ওর দিকে তাকিয়ে বললাম, সমকামী বলে কি অপরাধী মনে হয়?

অনিরুদ্ধ বললো, মনে হয়না। আবার, মাঝে মাঝে নিজের উপর প্রচন্ড ঘৃণা হয়। আমি কেন অন্যদের মতো হলাম না! কেন আমাকে এতো কথা শুনতে হয়?

আমাদের ফার্মের মুরগিগুলো


পোস্ট মিলেনিয়ালস বা যাদেরকে অবজ্ঞার্থে আমরা বলি ইয়ো জেনারেশন - এদের সাথে আমার প্রথম পরিচয় মাত্র কয়েক বছর আগে। সারাজীবন সরকারি স্কুল-কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়া এই আমি বিলেতি ডিগ্রি নিয়ে তখন সবে দেশে ফিরেছি। ক্যারিয়ার নিয়ে একটু দোলচালে ভুগছি, তাই জাস্ট টু টেস্ট দ্যা ওয়াটার একটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের শিক্ষক হিসাবে যোদ দিয়েছি। রবীন্দ্রনাথের অমিট রয় উরফে অমিত রায়ের সাথে পরিচয় থাকলে নিশ্চয়ই অনুধাবন করতে পারছেন সেই সময়ের আমার চিন্তাভাবনা আর নাক-উঁচু স্বভাব, বিলেতে যাকে বলে স্নবিস। তখনকার সহকর্মীদের মাঝে সব্বাই সরকারি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ভয়ঙ্কর রকমের রেজাল্ট নিয়ে পাশ

একজন মহানায়ক


এই মানুষটিকে চেনেন?

১৯৯৩ সালে ওনার স্ত্রী সড়ক দুর্ঘটনায় মারা যাওয়ার পর ''নিরাপদ সড়ক চাই'' আন্দোলন শুরু করেন।

নিজের পয়সায় ''নিসচা'' প্রতিষ্ঠান গড়ে তোলেন এবং দুর্ঘটনায় আহত ও নিহত মানুষের পরিবারের পাশে দাঁড়ান, তাদের চিকিৎসার দায়িত্ব নেন।

এখনও ওনার আন্দোলন চলছে।২৫ বছর ধরে সড়ক দুর্ঘটনায় যাতে কারো প্রান না যায়,সেই চেষ্টায় নিজেকে উৎসর্গ করে দিয়েছেন। কারো কাছ থেকে একটি পয়সাও নেন নাই। রাস্তায় দাড়িয়ে মানব বন্ধন করেছেন, মন্ত্রী আমলাদের অফিসে অফিসে দৌড়িয়েছেন যাতে আইন কঠোর করা যায়।

এই মৃত্যুনগরী আমার দেশ না !


কী ভয়াণক ব্যপার!
দিনে দুপুরে একটি বাস চোখের সামনে কয়েকটি তাজা প্রাণ চাকায় পিস্ট করে গেল
দেখার যেন কেউ নেই।
দিনে দিনে সড়কে মৃত্যুর সংখ্যা বেড়েই চলেছে।
সড়ক যেন এখন মৃত্যু ফাঁদ।

ভাবতেই অবাক লাগে এ কেমন দেশে বাস করছি আমরা।
এরকম অবস্থা দেখার জন্য কী ১৯৭১ সালে ৩০ লাখ মানুষ জীবন দিয়েছিল, দিয়েছিল কি বুকের রক্ত!

পৃষ্ঠাসমূহ

কু ঝিক ঝিক

ফেসবুকে ইস্টিশন

কপিরাইট © ইস্টিশন ব্লগ ® ২০১৮ (অনলাইন এক্টিভিস্ট ফোরাম) | ইস্টিশন নির্মাণে:কারিগর