নীড়পাতা

টিকিট কাউন্টার

ওয়েটিং রুম

এখন 6 জন যাত্রী প্লাটফরমে আছেন

  • মৃত কালপুরুষ
  • নরসুন্দর মানুষ
  • সিয়ামুজ্জামান মাহিন
  • সলিম সাহা
  • নির্যাতিতের দীর...
  • সুখ নাই

নতুন যাত্রী

  • মোঃ হাইয়ুম সরকার
  • জয় বনিক
  • মুক্তি হোসেন মুক্তি
  • সোফি ব্রাউন
  • মুঃ ইসমাইল মুয়াজ
  • পাগোল
  • কাহলীল জিব্রান
  • আদিত সূর্য
  • শাহীনুল হক
  • সবুজ শেখর বেপারী

আপনি এখানে

ইতিহাস

মসজিদের এইসব ইমামকে ‘মানুষ’ বলা মহাপাপ



মসজিদে ঢুকলেই দেখা যায়, ইমাম-নামধারী একেকটা নরপশু কুরআন-হাদিসের প্রয়োজনীয় আলোচনা বাদ দিয়ে গগণবিদারীকণ্ঠে সরাসরি রাজনৈতিক ওয়াজে ব্যতিব্যস্ত হয়ে পড়ছে। এরা বর্তমান-বিশ্বে মুসলমানদের সকলপ্রকার অধঃপতনের জন্য একমাত্র দায়ী করে থাকে ইহুদী-খ্রিস্টানদের।

নারীর যুদ্ধ


ডান হাতে লাঠি আর বাম হাতে বেশ লম্বা একটি ছাতা হাতে একদম কচ্ছপের গতিতে তিনি ধীরে ধীরে চলেন। কোনো কোনো দিন বাম হাতে হয়তোবা বাজার করার ছোট্ট কালো রঙের শপিং ট্রলি থাকে। তিনি হাঁটেন সামনে আর বাম হাতে হালকা শপিং ট্রলিকে পেছনে পেছনে টেনে নিয়ে যান। অত্যন্ত ধীর লয়ে। ওই হাতে টানা শপিংব্যাগেই একটি ছাতা গুঁজা থাকে। মহিলা সামনে হাঁটেন আর তার লাঠিটিও টুকটুক করে সামনে হাঁটে। হিসেব করে হাঁটা। ডান হাতে সোজাকৃতির একটি লাঠি। মাঝারি সাইজের। তার মতোই যেনো বয়সের ভারে লাঠিটি প্রায় বিবর্ণ। হাঁটেন আর ভারি কাঁচের অনুজ্জ্বল সোনালি ফ্রেমের চশমা পরা চোখে চারপাশ খুব শান্তভাবে অবলোকন করেন। কোথাও থামলে পরে প্রায় বুজে আসা বিবর্ণ চোখে অনেক্ষণ তাকিয়ে দেখেন। কী দেখেন কে জানে!

যীশুর মা মেরি এবং হারুনের বোন মারিয়ামকে নিয়ে কোরআনের ইতিহাস বিকৃতি


কোরআনের বক্তা যীশুর মা মেরিকে এবং হারুন ও মূসার বোন মরিয়মকে একি মানুষ মনে করতেন। যা ছিলো কোরআনের বক্তার একটি ভুল ধারনা। কারণ মেরি এবং মরিয়ম আলাদা দুইজন মানুষ এবং মরিয়ম মেরির চেয়ে হাজার বছর আগে জন্ম নেওয়া একজন মানুষ। বাস্তবতা হলো, মুহাম্মদ জানতেন না যে মরিয়ম এবং মেরি দুইজন এক নন। তবে আরবিতে দুজনের নামই 'মরিয়ম' (ﻣﺮﻳﻢ)।

উৎস

কোরআন

কোরআনের সূরা মারইয়ামে যীশুর মা মেরিকে হারুনের বোন বলা হয়েছে :

19:27

জীবন দর্শন: ইসলাম, মার্ক্সবাদ, উদারবাদ,মানবতাবাদ ও অন্যান্য


জীবন দর্শন কী?

জীবন দর্শন, যাকে ইংরেজীতে ‘Philosophy of Life’ কিংবা ‘Worldview’ বলা হয়ে থাকে, তা মূলত মানবজীবন সম্পর্কে আমাদের সামগ্রিক বোঝাপড়া (understanding)। অন্য কথায়, মানবজীবনের বিভিন্ন ক্ষেত্র সম্পর্কে আমাদের ধারণা বা বোঝাপড়া এবং সে ভিত্তিতে জীবন চালনায় আমাদের কর্মকাণ্ড কী হবে, তার সমষ্টিই জীবন দর্শন।

মূল কোরআন চিনতে প্রচলিত কোরআন জানুন= পর্ব-দশ


ওসমান ইবনে আফফানের খলীফা গ্রহণকালে প্রাদেশিক ক্ষমতায় ছিলেন-

১। মক্কা- নাফি ইবনে আব্দুল্লাহ হারাস ২। তায়িফ- সুফিয়ান ইবনে আব্দুল্লাহ সাকাবি ৩। ইয়ামেন- ইয়ালা ইবনে উমাইয়া ৪। আম্মান- হুযাইফা ইবনে মুহসিন ৫। দামেশক- মুয়াবিয়া ইবনে আবু সুফিয়ান ৬। মিসর- আমর ইবনে আস ৭। হিমস- উমর ইবনে সায়াদ ৮। জরদান- উমর ইবনে উতবা ৯। বসরা- আবু মুসা আশয়ারি ১০। কুফা- মুগিরা ইবনে শু’বা ১১। বাহরাইন- উসমান ইবনে আবুল আস

বানু কুরাইজা জেনোসাইড ও ইসলামিক ডিফেন্স


ভূমিকা

হিজরী ৫ সনে (৬২৭ খ্রিষ্টাব্দ) ইসলামের নবী মোহাম্মদের আদেশে বানু কুরাইজা নামক মদিনার ইহুদীদের একটি গোত্রের প্রায় ৯০০ জনকে মুসলিমরা হত্যা করেন। হত্যাকান্ড শুরু হয় দিনের প্রথম দিকে এবং রাত পর্যন্ত চলতে থাকে। যাদের হত্যা করা হয়নি তাদেরকে বন্দী করা হয় এবং দাসী হিসেবে বাজারে বিক্রি করে দেওয়া হয়।

কোরআনের বিবরণ

33:26

মূল কোরআন চিনতে প্রচলিত কোরআন জানুন= পর্ব-নয়


মসজিদে নববিতে ফজরের নামাযের ইমামতি করা অবস্থায় আবু লুলু খঞ্জর দিয়ে ওমোরকে উপর্যুপরি ছয়টি আঘাত করে। একটি আঘাত তাঁর নাভির নিচে লাগায়, পাকস্থলী কেটে যায়। তবে সব থেকে মজার ব্যপার হলো, খঞ্জরের আঘাতে ওমোর পড়ে গেলেও, আব্দুর রহমান ইবনে আওফ আহত ওমোরকে রক্ষা করার চেষ্টা না করে, খঞ্জরের আঘাতে পড়ে যাওয়া ওমোরকে পাশে রেখে, নিজে ইমামতি শুরু করে নামাজ শেষ করে। এমন কি আব্দুর রহমান ইবনে আওফ চিৎকার করে মুসাল্লিদিগকে বলে, নামায শেষ হওয়ার আগে কেউ যেন কাতার না ভাঙ্গে ও নামায না ছাড়ে। কিন্তু ওমোরের শুভানুধ্যায়ীরা আব্দুল্লাহ ইবনে আওফের কথায় কর্ণপাত না করে, নামায শেষ না করেই ওমোরকে রক্ষা করার চেষ্টা করে, ও হত্যাকা

পৃষ্ঠাসমূহ

কু ঝিক ঝিক

ফেসবুকে ইস্টিশন

কপিরাইট © ইস্টিশন ব্লগ ® ২০১৮ (অনলাইন এক্টিভিস্ট ফোরাম) | ইস্টিশন নির্মাণে:কারিগর