মাদ্রাসা-বোর্ডের দাখিল-পরীক্ষার ফলাফল বিপর্যয়-রোধে এবার লাগামহীন গ্রেস-নাম্বার দেওয়া হয়েছে

পরীক্ষার উত্তরপত্র মূল্যায়নের সময় থেকেই দেখা যায়, মাদ্রাসার শিক্ষার্থীরা কয়েকটি বিষয়ে ব্যাপকভাবে অকৃতকার্য হচ্ছে—ফেল করছে। এইসব বিষয় হলো: সাধারণ গণিত, উচ্চতর গণিত, বিজ্ঞান (পদার্থ ও রসায়ন), ইংরেজি, আরবি (প্রথম ও দ্বিতীয় পত্র) ও কুরআন। সবচেয়ে বেশি অকৃতকার্য হয়েছিলো সাধারণ গণিতে (এটি সকল বিভাগের জন্য আবশ্যিক বিষয়)।

বিস্তারিত পড়ুন...

বাঙালি রেডিমেট-মডারেট-মুসলমানের ঈমানের ভিত্তি

এই দেশে বুঝেশুনে-জেনেশুনে মুসলমান হয়েছে কয়জন? এর সঠিক উত্তর অনেকেই দিতে পারবেন না। কারণ, এর উত্তর জানা থাকলেও কেউ সহজে নিজেকে অপদস্থ করতে রাজী নন। বাংলায় একটা কথা আছে: উপরের দিকে থুথু নিক্ষেপ করলে তা নিজের গায়েই পড়ে। আর কথাটা অতীব সত্য। বাঙালি-মুসলমানের বদনাম অনেক। এই দেশে দেখেশুনে-জেনেশুনে মুসলমান হয়েছে…

বিস্তারিত পড়ুন...

শ্রমিকদের বুকের উপর দাঁড়িয়ে মে-দিবসে এই সুন্দর-সুন্দর মিথ্যা-বাণীগুলো দিতে আপনাদের লজ্জা করে না?

মানুষকে জীবনের সর্বক্ষেত্রে মানুষের মতো হতে হবে। এই পৃথিবীতে এখন নিঃস্বার্থ-ভালোমানুষের বড়ই প্রয়োজন। পৃথিবীতে এখন মানুষের দুইটি পক্ষ—একদিকে মালিকপক্ষ অপরদিকে শ্রমিকপক্ষ। আজ অর্থের জোরে মালিকপক্ষ নিজেদেরই শুধু মানুষ ভাবছে। আর তারা অর্থবলে বলীয়ান হয়ে এখন গায়ের জোরে সর্বস্তরের শ্রমিকদের নির্যাতনের যাঁতাকলে ফেলে নিষ্পেষণ করছে। আর এভাবেই তারা রাষ্ট্রীয় ও সরকারি…

বিস্তারিত পড়ুন...

রাজনীতি এখন কারও-কারও কাছে কেন বেশ্যানীতি (দ্বিতীয় পর্ব)

মেয়েরা বিপদে পড়ে, অন্যের দ্বারা প্রতারিত হয়ে, সীমাহীন-লাঞ্ছনার শিকার হয়েই বেশ্যায় পরিণত হয়। গবেষণা করলে দেখা যাবে—অধিকাংশ বেশ্যাই কিন্তু জীবনে ভুক্তভোগী। তবে অধুনা একশ্রেণীর বিপথগামী ও হালফ্যাশনের তরুণী-যুবতী অর্থনেশায় পাগল হয়ে এই পথ বেছে নিচ্ছে। তাদের কারও কথা আলোচনার বিষয়বস্তু নয়। ইচ্ছায় হোক আর অনিচ্ছায় হোক—সকলেই আজ বেশ্যা। আর বেশ্যাদের…

বিস্তারিত পড়ুন...

সলিমুল্লাহ খানরা বর্ণচোরা-আম। তাই, তাদের জার্সি চেনা যায় না

সলিমুল্লাহ খানরা জানে না, আমাদের দেশের কওমীমাদ্রাসাগুলো কোনো নিয়মরীতি বা রীতিনীতির ভিত্তিতে গড়ে ওঠেনি। এগুলো যখন-যেমন আর তখন-তেমন নীতির উপরে দাঁড়িয়ে কোনোরকমে একপায়ে-দু’পায়ে খাড়া হয়েছে। তারপর এগুলোর পাশে এসে দাঁড়িয়েছে একশ্রেণীর সমাজ-রাষ্ট্রবিরোধী অমানুষ। এরা নিজেদের সমস্ত পাপ, ব্যভিচার, লাম্পট্য, নৈরাজ্য, অত্যাচার, মানুষহত্যা, পরের জমিদখল, পরের স্ত্রীদখল ইত্যাদি থেকে আখেরাতে মুক্তিলাভের…

বিস্তারিত পড়ুন...

হে কুকুর, তোমরা ধর্ম ছেড়ে জঙ্গলে যাও

বিস্তারিত পড়ুন...

আওয়ামীলীগের হেফাজতপ্রীতির কারণ এবং এর প্রতিকার

ষাট-সত্তরের দশকে আওয়ামীলীগ করতেন একদল দেশপ্রেমিক শিক্ষিত, তরুণ ও উদ্যমী মানুষেরা। আর এঁদের সকলের পড়ালেখাবিষয়ক ডিগ্রী বা শিক্ষাগত-যোগ্যতা ছিল কমপক্ষে বিশ্ববিদ্যালয়ের গ্রাজুয়েশন পর্যন্ত। এঁরা সবাই ছিলেন পড়ুয়া ও ধীমান। এঁরা রাজনীতির পাশাপাশি প্রচুর পড়াশুনা করে সময় কাটাতেন। আর এঁদের প্রতিভা ছিল ঈর্ষণীয়। এঁদের মনুষ্যত্ব ও মানবতাবোধ ছিল সকলের কাছে গ্রহণযোগ্য।…

বিস্তারিত পড়ুন...

আমি ধার্মিক দেখিনি—দেখেছি কতকগুলো আদিম-হিংস্র শূয়র! দেখতে চাইলে আসুন।

আমাদের দেশে এখন শুধু পহেলা বৈশাখ নয়—সবকিছুতেই আজকাল হিন্দুয়ানি খুঁজে বেড়াচ্ছে একটি শয়তানচক্র। আর এই শয়তানচক্রটি বাঙালি-জাতির অতীব আনন্দের পহেলা বৈশাখ থেকে শুরু করে রাষ্ট্রীয় সকলপ্রকার আচারপ্রথাসহ আমাদের ইতিহাস-ঐতিহ্য ও সংস্কৃতির বিরুদ্ধে লাগামহীন তথ্যসন্ত্রাস আর আগ্রাসন চালাচ্ছে। এই চিহ্নিত-পশুচক্রটি বাংলাদেশরাষ্ট্রের চিরশত্রু। এদের নিজস্ব কোনো ধর্ম নাই। আর এদের বাপ-দাদা-পরদাদা সবাই…

বিস্তারিত পড়ুন...

মাননীয় প্রধান বিচারপতি, রাষ্ট্রের স্বার্থে আপনার সর্বোচ্চ শক্তি, সাহস ও ক্ষমতা প্রয়োগ করুন

রাষ্ট্র এখন ধর্মান্ধ-অক্টোপাসের খপ্পরে পড়তে যাচ্ছে। ধর্মের নামে ‘হেফাজতে শয়তান’ নামক অরাজনৈতিক ও সন্ত্রাসী সংগঠন অপরাজনীতি শুরু করেছে। আর এদের একমাত্র লক্ষ্য-উদ্দেশ্য ও কর্মসূচি হলো: যেকোনোভাবে, যেকোনোউপায়ে আর যেকোনোমূল্যে রাষ্ট্রক্ষমতাদখল করা। এরা আফগানী-তালেবানী-পাকিস্তানী পাশবিক-শাসন কায়েম করতে চায়। আপনি অবগত রয়েছেন, এরা চিরকালীন রাষ্ট্রবিরোধীঅপশক্তি। ধর্ম এদের মুখোশ মাত্র। আর ‘আল্লাহ-রাসুল’ এদের…

বিস্তারিত পড়ুন...

নামাজের ফজিলত বলতে গিয়ে ইমামসাহেব কী ভয়ংকরভাবে খুনীদের পক্ষ নিলেন!

“ঘটনাটা মুসা আ.-এর যুগের। একদিন মুসা আ. হয়তো কোথাও যাচ্ছিলেন। এমন সময় তার কাছে একটি মহিলা আসলো। একে ঠিক মহিলা বলা যায় না। সে ছিল যুবতী। সে মুসার কাছে এসে বললো, “হে আল্লাহর নবী, আমি একটি পাপ করেছি। এখন আপনি আল্লাহকে বলে আমার পাপমোচন করে দিন।” একথা শুনে মুসা নবী…

বিস্তারিত পড়ুন...