কোথায় আমাদের মানবতা??

“এ এক অন্য কথা” -তাপস ভৌমিক “শূন্য আমার মায়ের গলা,মুখ ভার কালো আভায় স্বর্ণের হার আজি মৃত্তিকায় শোভা পায়। আপন মানুষ হাহাকার করে,মরে ক্ষুধার জ্বালায় কোটি টাকার উৎসবে মাতি আজ অবেলায়। বছর ঘুরে ভাসে স্বদেশ,রক্তের বন্যায় আমি হাসি সে হাসে,কান্না এখানে অন্যায়। অমুকের ছেলে তমুক মরুক কিবা আসে যায়, হাজার…

বিস্তারিত পড়ুন...

ভ্রমণ

ভ্রমণ কর আমাকে। আমার মাঝে যা কিছু আছে যা কিছু অল্প কিংবা বৃহৎ যা কিছু মহৎ সৌন্দর্য কিংবা যা কিছু তড়িৎ আশ্চর্য! ভ্রমণ কর সবকিছুই। সেখানে পবিত্র জ্যোৎস্নার দুধ শুষে নিয়ে কোমল হৃদয় ঘুমিয়ে পড়ে তুলোমেঘ ড্রেসিং করে দেয় রক্তাক্ত পাহাড়ের ক্ষত গায়ক মাঝি বৈঠাকে বানিয়ে নেয় সুরেলা বাঁশি উদ্বাস্তু…

বিস্তারিত পড়ুন...

কেন এমন, জন্মজীবন

জন্মের শিরদাঁড়া উপেক্ষা করতে ব্যার্থ হয়েছে ফুলের অনন্ত যৌবন, ভোরখোলা আকাশের ঘোষনা ব্যাবহৃত হতে হতে গন্ধবিলাপ করে; জন্মের গন্ধ। এতো ব্যাকুল তৃষ্ণাও টলাতে পারে না; কিসের যেন ছুটোছুটি, গন্ধ-সুগন্ধ মিছিমিছি এতো সুন্দর উৎসব তবু দম ফেলে গাইতে পারে না। অতল বন্ধুর তবু উদ্বেল সৃজনে এবং বিমুগ্ধ সত্যের উপাসনায় নিঃশেষের প্রস্তুতি,…

বিস্তারিত পড়ুন...

যমুনাপাড়ের ইস্টিশন

যমুনাপাড়ের ইস্টিশন কীর্তিবতী মনান্তরের ইশতেহার, যুগান্তরের সাক্ষ্য যেন নৃতত্ত্বের বধ্যভূমি, হাওয়া খেতে খেতে স্কুল শার্ট খুলে যমুনাপাড়ের ইস্টিশন তোমায় ভালবেসে। হুইশেল ভেঙ্গে ফেলে, আসর যেখানে সমান্তরাল পথ অতিদূরে চোখ ফেলে; বয়েসি লোকের স্মৃতিমেদুর আসাম-বেঙ্গল মালগাড়ী, কালের দেয়ালে স্তব্ধ থাকে পুরনো কালো কাটার ঘড়ি। তবে বর্তমানে নিয়ম করে মানুষের শেষ ঘটে…

বিস্তারিত পড়ুন...

অলিক মুক্তি

ভিড় বেড়েছে মানুষের শত শত যুগের সঙ্গমে মানুষ বাধ ভেঙ্গেছে সংসারের আবদ্ধ বৃত্ত ভেঙ্গে পৃথিবী এখন ব্যাস্ত-তটস্থ লাল মাংসের উপর গোপন প্রণয় যেন ঢেউ খেলে বাড়িয়েছে মানুষ, দিগন্তের এক দিকে যেন সে জোয়ার শুধু ফেটে উঠে মানুষের ভিড় বেড়েছে গোলার্ধদুটিতে বোহেমিয়ান! অবিক্রীত জীবনে মূল্যে সুফলা তরল বিলিয়েছে, বলেছে তোমার পথ…

বিস্তারিত পড়ুন...

বিষাদ

আমার ব্যথা করছে ভিষন! একটি সমুদ্র, একটি মাছ বস্তুত সে বিভিন্ন প্রণালি পার হয়ে পানি ছেড়ে অন্যকোথার খোঁজে হন্যে হয়ে খুঁজছে অন্য পৃথিবী। এবং তোমরা এবং তোমরা তাঁকে যতটা কাছে থেকে দেখো এবং সে অতঃপর হায় মাছ হয়ে গভীর সমুদ্রে তলিয়ে যায়। বিরামহীন বর্ণনা দেওয়া গেলে বোঝা যাবে একেক পৃথিবী…

বিস্তারিত পড়ুন...

বিলম্বিত ভোরে একদিন

বিলম্বিত ভোর, দাঁত খিঁচোতে খিঁচোতে চামচিকা উড়ে গেল সরাইখানা হতে পয়সা দিল কি দিলনা, কেউ তার রাখেনি খবর, সিসি ক্যামেরা খুলে ফেলেছে কেউ গত সন্ধ্যায় । মাঝে মাঝে দূর হতে ডাক আসে মৃত্যু ও কল্পনার মাঝামাঝি কোনও এক স্থান হতে আবহে শোনা যায় শিরহীন পাখিদের গান গরুর মত কোন জীব…

বিস্তারিত পড়ুন...

একজন বেকুব এর উপাখ্যান পাণ্ডুলিপি থেকে কিছু টোটকা

এটি নিয়ে একটা ইবুক হইছে। বানাইয়া দিছেন শতাব্দি সেঁজুতি। আমি তাঁর কাছে ঋনী। ইবুকটা ডাউনলোড করতে এইখানে ক্লিক করেন। সাইজ ৭.৯৩ এমবি। পৃষ্ঠা সংখ্যা ১৩১। নমুনা একেবারে নিচে দেওয়া হইছে। কবি প্রেমিকা কথা হইলো গিয়া কী আরাফাত ভাই; প্রেমিকার মতো বড়কবি আর দুইজন দেখিনাই! অপমান প্রতিদিন কয়েকটা জুতো গিলে ফেলার…

বিস্তারিত পড়ুন...

তোমার চুমু

তুমি যে পথেই হেঁটে যাও সে পথেই তোমার মানবতাবাদী ঠোঁট থেকে ত্রাণের মত ঝরে পড়তে শুরু করে অজস্র চুমু। আর সেই চুমুর লোভে শহরের সকল তরুণ তোমার পিছু পিছু হাঁটে শরণার্থীর ছিন্ন বস্ত্র গায়ে ছদ্মবেশে। তাদের জিহ্বা থেকে হিংস্র লোভ কুকুরের জিহ্বার লালার মত ঝরতে থাকে। তারা সেটা আটকে রাখতে…

বিস্তারিত পড়ুন...

এই বঙ্গে দানিয়ালা বিয়ানছির প্রেমিক-বিষাদ আব্দুল্লাহ

তাঁর সমস্ত অবয়ব অজস্র চাঁদের আগুনে মোড়া ভেবেছিলাম এশিয়ার আলো। কি অদ্ভুত ! ইতালির আগুন এই বঙ্গে ! কী অসহ্য সুতীব্র কী জোরালো হয়ে আমাকে ছুঁলো আগুন কি করে আগুন রুখে ! এযাবৎ বিষাদের বুকে ধুপ করা কাঠি জ্বলেনি অবশ্য সাহস কোন যুবতীর কি ছিলো আমারও কি ! দ্বন্দ্ব তা…

বিস্তারিত পড়ুন...