ধর্মীয় উচ্চ শ্রেনীর বৈষম্য কিভাবে অত্যাচারে জর্জরিত করেছে তার একটি নমুনামাত্র

#শবরীমালা_ও_নাঙ্গেলি ২১৫ বছর অাগে শিবঠাকুরের আপন দেশ কেরলে পুরুষরা গোঁফ রাখতে চাইলে কর দিতে হতো। অার নারীদের দিতে হতো স্তনকর। সে সময় ওই রাজ্যে নিয়ম ছিল শুধু ব্রাহ্মণ পরিবারের ছাড়া অন্য কোনো হিন্দু নারী তাদের স্তনকে আবৃত রাখতে পারবে না। কোনো নারী যদি তার স্তনকে আবৃত করতে চাইত, তাহলে তাকে…

বিস্তারিত পড়ুন...

টাক মাথা ও সাদা চুলের গল্প

প্রায় ৮০-বছরের বৃদ্ধ আমি। লাঠিতে ভর দিয়ে হাঁটতে হয় আমাকে। কৈশোর যৌবনে গ্রামে ভেজালমুক্ত নির্ভেজাল সব খাবার খেয়েছি বলে হয়তো এখনো চলাফেরা করতে পারি একাকি। তাই এ বয়সেও ভারতের এপার-ওপার ঘুরে বেড়াই প্রতি বছর। এবং এ ভ্রমণে ট্রেনযাত্রা সবচেয়ে প্রিয় আমার। তা দুটো্ কারণে! প্রথমত ভারতীয় ট্রেন তুলনামূলক সস্তা বিমান…

বিস্তারিত পড়ুন...

স্মৃতিতে ভারত ভ্রমণঃ শিখ ড্রাইভার ও দুজন কাশ্মীরী

ভারতীয় কাশ্মীরের মানুষজন সম্ভবত পাকিস্তানকেও সেভাবে পছন্দ করে না। তবে তাদের সাধারণ মানুষ বাংলাদেশকে ভীষণ পছন্দ করে। নানা সময়ে সেটার প্রমাণ পাই। দেখতে সুন্দর, অমায়িক এ মানুষগুলো বাংলাদেশী শুনলে আলাদা খাতির করে। কারণটা ঠিক জানি না। আগ্রাতে এক কাশ্মীরী ছেলের সাথে পরিচয় হয়, বাংলাদেশী শুনবার পর তার আচরণ একদম পালটে…

বিস্তারিত পড়ুন...

জল মেঘ পাহাড়ের নৈসর্গিক মিলনমেলা

প্রবল ঝাঁকুনি আর সহযাত্রীদের চিৎকারে ঘুম ভাঙতেই জানালার বাইরে তাকিয়ে দেখি ভোরের নীল আকাশ, রাশি রাশি ধূসর-কালো মেঘের অন্তরালে ক্ষণে ক্ষণে হারিয়ে যাচ্ছে। দৃষ্টি নিচে নামাতেই দেখি জল থৈ থৈ করছে অনেক দূূরের সবুজরেখার গ্রাম পর্যন্ত, জলের আয়নায় আকাশ-মেঘচ্ছবি, মাঝে মাঝে দ্বীপের মতো সবুজ অরণ্যের স্থলভাগ, দিগন্তে তাকালে মনে হয়…

বিস্তারিত পড়ুন...

গল্প উপন্যাসের ভিটে মাটি মানুষের সন্ধানে-২

গল্প-উপন্যাসের ভিটে-মাটি-মানুষের সন্ধানে আমার এবারের গন্তব্য মাগুরা, ফরিদপুর এবং রাজবাড়ী। আমার আগামী উপন্যাসের পটভূমি তিনশো বছরের অধিক সময় আগের ভূষণার রাজা সীতারামের সময়কাল, তৎকালীন সময়ের কিছু সত্য ঘটনা এবং হড়াই নদীর চরের একটি জনপদের গোরাপত্তন। রাজা সীতারামের রাজত্ব ছিল বর্তমান রাজবাড়ী, ফরিদপুর, মাগুরা এবং নড়াইলের বিস্তীর্ণ অঞ্চল নিয়ে। আমি রাজবাড়ীর…

বিস্তারিত পড়ুন...

গল্প উপন্যাসের ভিটে মাটি মানুষের সন্ধানে-১

বছর তিনেক হলো আমার নিজ গ্রামের সাথে আমার সকল সম্পর্কের হয়েছে জলাঞ্জলি। গ্রামটিতে আমার জন্ম না হলেও জীবনের এগার-বারটি বছর ওখানকার জল-হাওয়ায় আমার শরীর বেড়ে উঠেছে, দুষ্টুমি আর ধুলিখেলা করে সময় কেঁটেছে, ফুটবল-ক্রিকেট খেলতে খেলতে বেলা গড়িয়ে সন্ধ্যা হয়েছে। এই তিন বছরে আমার দুটো ক্ষতি হয়েছে। প্রথমত-মাটি ও মানুষের নিবিড়…

বিস্তারিত পড়ুন...

পাখি চেনা-২

এ অঞ্চলে খয়রা মাথা সমুচা(Hooded Pitta)পাখিটির প্রজনন ঋতু শুরু হয় এপ্রিল মাস থেকে। এই সময় সঙ্গীনির খোঁজে পুরুষ পাখিটি চঞ্চল হয়ে ওঠে, গায়ের রঙ অধিকতর উজ্জল হয় এবং ডাল থেকে ডালে দুই শব্দের ‘কুঈক কুঈক’ ডাক ডাকতে থাকে, তাই এই সময়টাই পাখিটির ছবি তোলার জন্য আদর্শ সময়।মে মাসের মাঝামাঝি সময়ে…

বিস্তারিত পড়ুন...

৪-বোনের দলিত জীবনের আনন্দ মঠ

বিস্তারিত পড়ুন...

না ঘরকা না ঘাটকা

কাউকে বলা যায় না, কারুর কাঁধে মাথা রেখে কাদাও যায় না, প্রতিদিন কষ্টগুলো এভাবেই স্মৃতির বাক্সে জমা হতে থাকে। হেটে যাওয়া পথের বাকটা পেরুলেই পাতাল ট্রেন স্টেশনের সিঁড়ি বেয়ে আমার অবশ মগজটা ট্রেনের বিকট শব্দে বিন্দু মাত্র জেগে উঠবে না, আমি যেন ধাবমান জীবনের ট্রাক, এভাবেই সবুজ পৃথিবী ছেড়ে আমার…

বিস্তারিত পড়ুন...

দক্ষিণ কাট্টলির কেতুপুর গাঁয়ের জলদাসরা!

বিস্তারিত পড়ুন...