জিহাদ ও খেলাফতের সিলসিলা

২০১৩ সালে বাংলাদেশে যে সংঘাতের সৃষ্টি হয়েছিল, সমাজের ভেতর থেকে সেই সংঘাতের সমাধান ও শান্তির পথ আমরা খুঁজে পাই নাই। আমরা স্বৈরতন্ত্রের দামে সাময়িক শান্তি কিনেছি। এই শান্তি উপর থেকে চাপিয়ে দেয়া, সমাজের ভেতর থেকে উঠে আসা নয়। জনপ্রিয়তাহীন সেক্যুলার স্বৈরশাসন আর তার বিপরীতে প্রধান রাজনৈতিক শক্তি হিসাবে ইসলামিস্টদের আবির্ভাবের পরবর্তিতে কি হয় তা আমরা এখন লিবিয়া, মিশর, ইরাক, সিরিয়া ইত্যাদি দেশে দেখতে পাচ্ছি। বাংলাদেশে যে সেই অবস্থা হবে না, এখন আর তা সাহস করে বলতে পারি না।

জিহাদ ও খেলাফত এখনকার দুই রাজনৈতিক ফেনোমেনা। এই দুই রাজনৈতিক ধারণা মুসলিম প্রধান দেশগুলোর সেক্যুলার গণতান্ত্রিক রাষ্ট্রব্যবস্থার জন্যে হুমকিস্বরূপ। যে সহিংসতা দুনিয়া ব্যাপি ছড়িয়ে পড়েছে তার শিকার সাধারণ জনগণ, যার বড় অংশই মুসলমান। এই সহিংসতা শক্তি সঞ্চয় করে ‘সহি ইসলাম’ নামক মৌলবাদের ডিসকোর্স থেকে। সহি ইসলামের ব্যবসা যারা করেন তারা তাই জনগণের শত্রু। সহি ইসলাম নামক একত্বের বদলে মুসলিম জনগনের বহুত্বের কথা ‘জিহাদ ও খেলাফতের সিলসিলা’ বইটি প্রচার করে। বইটিকে তাই জনগণের বন্ধু বলা যায়।


‘সিলসিলা’ শব্দটি দর্শন ও সমাজবিদ্যায় ‘জেনোলজি’ বলতে যা বুঝানো হয় তার অনুবাদ হিসাবে ব্যবহার করেছি। জিহাদ ও খেলাফতের মতো ধারণাগুলার বৈচিত্রময় ইতিহাস বইটিতে তুলে ধরার চেষ্টা করা হয়েছে। সেই সুবাদে ইসলামের নবীর মৃত্যুর পর থেকে আধুনিক সময় পর্যন্ত মুসলিম সমাজ ও তাদের রাজনীতির বিভিন্ন পর্বের ইতিহাস বইটিতে আলোচনা করা হয়েছে। কিন্তু ইতিহাস আলোচনা করে বর্তমান সমস্যার মোকাবেলা করা যাবে কি? করা সম্ভব, যদি রাজা, খলিফা, ইমাদের ইতিহাসের পাশাপাশি জনগণের ইতিহাসটাও উঠে আসে। আশরাফের ইসলাম আর আতরাফের ইসলামের ইতিহাস কখন আলাদা আর কখন এক তা বোঝা জরুরি। শিয়া এবং সুন্নি ইসলামের ইতিহাসের চাইতে আরবের ইসলাম, বাঙালির ইসলাম, দাসের ইসলাম অথবা নারীর ইসলামের ইতিহাসের গুরুত্ব কম নয়। বইটিতে ‘ইসলামের ইতিহাস’ বলতে তাই এমন বিভিন্ন শ্রেণী, জাতীয়তা ও লিঙ্গের মধ্যকার অন্তঃসম্পর্ক ও সংগ্রামের ইতিহাস আলোচনা করা হয়েছে।

আগামীকাল ১৫ ফেব্রুয়ারি, বিকাল ৪:৩০ মিনিটে বাংলা একাডেমিতে লিটল ম্যাগ কর্নারে ‘জিহাদ ও খেলাফতের সিলসিলা’ বইটির প্রকাশনা অনুষ্ঠান হবে। ইস্টিশনের সহব্লগার, পাঠক ও বন্ধুদের প্রতি আমন্ত্রন রইলো। যারা নিয়মিত আমার ব্লগ পড়েছেন এবং লিখে যাওয়ার উৎসাহ দিয়েছেন তাদের উপস্থিতি প্রত্যাশা করছি।

বইটি কিনতে পাওয়া যাবে আদর্শ প্রকাশনীর স্টলে, স্টল নং ৪১১-৪১২। প্রচ্ছদ করেছেন মিতা মেহেদি। বইটির গায়ে দাম লেখা আছে ৩০০টাকা। পার্সেন্টেজ সহ ২২০ টাকায় পাওয়া যাবে।

ফেসবুক মন্তব্য
শেয়ার করুনঃ

৩ thoughts on “জিহাদ ও খেলাফতের সিলসিলা

  1. শুনলাম বইমেলায় নাকি
    শুনলাম বইমেলায় নাকি হেপাজুতুদের সীল-মোহর ছাড়া কোন বই বিক্রয় করতে দেয়া হচ্ছে না, তা এই প্রকাশনার ব্যাপারে তাদের কোন আপত্তি নাই তো?

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

39 − = 35