জঘন্য আম্পায়ারিং ও বিরক্তিকর ধারাভাষ্য

জিম্বাবুয়ের সাথে চলতি টেষ্ট সিরিজের প্রথম টেষ্টের ২য় দিন শেষ ।প্রথম ইনিংসে জিম্বাবুয়ের ৩৮৯ রানের বিপরীতে ২য় দিনশেষে বাংলাদেশের সংগ্রহ ১ উইকেটে ৯৫ ।ম্যাচটি এখনও দুই পক্ষের দিকে সমানভাবে হেলে আছে ।দুই দলের যে কারো এখান থেকে ম্যাচ জিতার সম্ভাবনা আছে ।কালকে ৩য় দিন শেষে হয়তো বোঝা যাবে ম্যাচটির গতিপথ কোনদিকে যাবে ।
তবে এই দুই দিনে খেলা দেখে যে দুইটি বিষয় সবচেয়ে বেশি চোখে পড়েছে তা হলো খুবই বাজে আম্পায়ারিং ও জঘন্য ধারাভাষ্য ।
বাজে আম্পায়ারিং বাংলাদেশের পিঁছু ছাড়ছেই না ।বড় দল বা ছোট দল, বিপক্ষে যারাই থাকুক না কেন বাংলাদেশের বিপক্ষেই কেন যেন ভুল সিদ্ধান্তগুলো বেশি হয় ।
আম্পায়ার টনি হিল প্রথম দিনে রবিউলের বলে কমপক্ষে ২টি নিশ্চিত এলবিডব্লিও আউট দেয় নাই ।এরমধ্যে জিম্বাবুয়ের ওপেনার মারুমার বিপক্ষে দেয়া ভূল সিদ্ধান্তটা ছিল খুবই হতাশার ।এরপর দিনের শেষের দিকে রুবেলের বলে চিগুম্বুরা বোল্ড ,কিন্তু থার্ড আম্পায়ার নো বল দেখিয়ে আউটটি বাতিল করে দেয় ।যদিও রিপ্লেতে দেখা যাচ্ছিল ওটা কোনভাবেই নো বল ছিল না ।থার্ড আম্পায়ার যদি এরকম ভূল সিদ্ধান্ত দেয় তবে তা খুবই হতাশ করে ।২য় দিনেও ভূল সিদ্ধান্ত দেয়া অব্যাহত থাকে । কয়েকবার ক্যাচ ফেলে দেবার কারনে ব্রেন্ডন টেইলর তার শতরান পূরন করে ।সেই শতককে ১৭৭ পর্যন্ত টেনে নেবার জন্য টেইলর আম্পায়ারকে ধন্যবাদ দিতেই পারে ।রবিউলের বলে নিশ্চিত একটি এলবিডব্লিও থেকে বন্চিত হয় বাংলাদেশ ,সেখানেও আম্পায়ার টনি হিল ।একটা ম্যাচে এতো ভূল সিদ্ধান্ত হলে ম্যাচে ভালো করাটা খুব কঠিন ।
এই ম্যাচের আরেকটা বাজে দিক হলো জঘন্য ধারাভাষ্য ।ধারাভাষ্য প্যানেলে বাংলাদেশের কেউ নেই ,সব জিম্বাবুয়ের ধারাভাষ্যকার ।অখ্যাত সব ধারাভাষ্যকারের পক্ষপাতদুষ্ট ধারাভাষ্য শুনতে শুনতে কান ঝালাপালা হয়ে গেছে ।প্রতিটা ক্ষেত্রে জিম্বাবুয়ের অতিরিক্ত প্রশংসা করছে সারাক্ষন ।আম্পায়ারের প্রত্যেকটা ভূল সিদ্ধান্তকে নিজেদের মতো করে ব্যাখ্যা করছে দুই দিন ধরে ।আর প্রতিমুহূর্তে অখ্যাত সব জিম্বাবুয়ে খেলোয়াড়কে বিভিন্ন দেশের ভালো ভালো খেলোয়াড়ের সাথে তুলনা তো আছেই ।কৌশলে বাংলাদেশের খেলোয়াড়দের ছোট করে কথা বলছে,বাংলাদেশের কেউ ভালো বোলিং করলে বেশিরভাগ ক্ষেত্রে তাদের প্রশংসা না করে জিম্বাবুয়ের ব্যাটসম্যানদের কৃতিত্ব দিচ্ছে বলটি মোকাবেলা করতে পারায় ।বিরক্তির চরম সীমায় পৌছে গেছি এইরকম বাজে ধারাভাষ্য দেখে ও শুনে ।আশা করছি বাংলাদেশ খেলার মাধ্যমেই এর সমুচিত জবাব দেবে ।
জয় বাংলা ।

ফেসবুক মন্তব্য
শেয়ার করুনঃ

৩ thoughts on “জঘন্য আম্পায়ারিং ও বিরক্তিকর ধারাভাষ্য

  1. আমরাই জিতব ইনশাআল্লাহ।
    আমরাই জিতব ইনশাআল্লাহ। আম্পায়ারদের নিয়া কিছুই বলার নাই। বাংলাদেশের বিপক্ষেই ভুল সিদ্ধান্ত যাবে এটা মাইনা নিছি।

    1. জ্বি ভাই আমরাই জিতবো
      জ্বি ভাই আমরাই জিতবো ইনশাআল্লাহ ।তবে এই রকম বাজে আম্পায়ারিং ও একপেশে মানহীন ধারাভাষ্য খুবই কষ্টদায়ক ।
      মন্তব্য করার জন্য অনেক অনেক ধন্যবাদ 😀

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

− 3 = 7