টক শো এবং কতিপয় গাধা …

একদা এক গাধার সাধ হলো রাজনীতিবিদ হওয়ার , গাধা গেলো টিভি চ্যানেল এ টক শো করতে । সেখানে ছিল আরও দুই গাধা । অপর গাধার ইচ্ছে সাংবাদিক হিসেবে দেশবাসীর কাছে নিজেকে পরিচিত করা । এদের দুই জনের মাঝে ছিল তৃতীয় গাধা, এই গাধা মাত্রাতিরিক্ত বাঁচাল হিসেবে খ্যাত এবং অতিথি দুই গাধা কে সেই আমন্ত্রণ করে এনেছে । অবশ্য বঞ্চিত গাধা সমাজে গুঞ্জন আছে যে, রাজনীতিবিদ গাধা এবং সাংবাদিক গাধা বাঁচাল গাধা কে ঘুষ দিয়ে টক শো তে সুযোগ পেয়েছে । রাজনীতিবিদ তরুণ গাধা সম্পর্কে গাধা বাজারে একটা খবর বেশ প্রচার পেয়েছে । আর তা হোল, তরুণ গাধাটি উত্তরাধিকার সূত্রে হাজার হাজার কোটি টাকার মালিক হয়েছে প্রয়াত বৃদ্ধ গাধার হেফাজতে রক্ষিত আরেক চরিত্রহীন গাধার লুটপাটকৃত অর্থ আত্মসাতের মাধ্যমে । তো যাই হোক টক শো শুরু হয়ে গেলো । গাধায় গাধায় প্রচণ্ড বাক লড়াই শুরু হোল । তরুণ গাধা আক্রমণাত্মক ভাষায় সাংবাদিক গাধাকে বলছে,

রাজনীতিবিদ গাধা — আপনার তো কোন রিপোর্টই হয়না । এই যে নাস্তিক বালগার’ রা আমাদের গাধানুভুতিতে আঘাত দিয়ে যা খুশি তাই করে বেড়াচ্ছে , গাধা – গাধী একসাথে খাচ্ছে দাচ্ছে নাচছে, শোচ্ছে,বেলেল্লেপনা করে বেড়াচ্ছে কই ওই নাস্তিক নাছার বালগার দের বিরুদ্ধে এক লাইন লিখেছেন । খালি আছেন তালে কার পশ্চাতদেশে কয় হালি বাঁশ দেওয়া যায় সেই ধান্দায় । বলি, ৩০০ টা বাঁশের দাম কতো জানেন ? কতো টাকা খরচ করলে ঝাড়ে ৩৫০ পিছ বাঁশ হয় সে খবর রাখেন ?

সাংবাদিক গাধা এই পর্যায়ে খুব উত্তেজিত হয়ে ওঠে । কলম তুলে হুমকি দেয় দেখে নেবে । সঞ্চালক বাঁচাল গাধা তরুণ গাধা কে থামিয়ে দিয়ে সুযোগ দেয় সাগা ( সাংবাদিক গাধা ) কে ।

সাংবাদিক গাধা — আমি রিপোর্ট করি নাই তো কী হইছে ? আমার দেশের অন্যান্য গাধা ভাই রা তো ” গাধানুভুতিতে আঘাত ” নিয়ে সমানে লিখে গেছে । শোনেন বেশি ফাল পাইরেন না । আপনার ঝাড়ে একটাও বাঁশ থাকবনা । এই কলম দ্যাকছেন, এইডা একে – ৪৭ এর চাইতে শক্তিশালী । এইটা মেশিন বুঝলেন, মেশিন চলবে … ।

ওদিকে রাগা ( রাজনীতিবিদ গাধা ) রাগে ফুঁসছে । বার বার আস্তিন গোটাচ্ছে । যেকোনো মুহূর্তে মেরে বসতে পারে এমন অবস্থা ।

বাঁচাল গাধা ( সঞ্চালক ) — জনাব রাগা আপনি শান্ত হন । আপনার কাছে আমার জিজ্ঞাসা আপনি ক্ষমতায় গেলে আমাদের গাধা সমাজে মত প্রকাশের স্বাধীনতা থাকবে ?

রাজনীতিবিদ গাধা — মত প্রকাশের স্বাধীনতা থাকবে কিন্তু নাস্তিক বালগার দের কোন মত থাকতে পারেনা । আমি ক্ষমতার শীর্ষ মসনদে বসতে পারলে প্রথম কাজ হবে এই দেশ কে গাধাস্তান ঘোষণা করা এবং কেউ আমার সরকারের বিরুদ্ধে কথা বললে বা নাস্তিক্যবাদের চর্চা করলে তাকে ৩ বেলা কানে ধরে ওঠ বস করানো এবং অবশ্যই এদেরকে সরবচ্ছ শাস্তি দেওয়া হবে ইনশাল্লাহ !

টক শো যখন জমে উঠেছে ঠিক এমন সময় একটা কটু গন্ধ বাতাসে ভেসে এলো । এবং প্রথম ঝাঁপটাটা লাগলো রাগা’ র নাকে । নাক কুঁচকে ওয়াক শব্দ করে রাগা রুমালে মুখ ঢাকলো । ওদিকে সাগা কটমট করে বাগা’ র ( বাঁচাল গাধা ) দিকে তাকিয়ে হাত দিয়ে মুখ চাপা দিলো । যেন বাগা’ ই এই দুর্গন্ধের উৎস । বাগা হতভম্বের মতো একবার রাগা’ র দিকে আর একবার সাগা’ র দিকে তাকিয়ে ওয়াক ওয়াক করে বমি করা শুরু করলো । ইতোমধ্যে টক শো রুম টা দুর্গন্ধে ভরে উঠেছে । ক্যামেরাম্যান’ রা যে যেদিকে পেরেছে ছুটে পালিয়েছে । পুরো এসি কক্ষ কারখানার চিমনির কালো ধোঁয়ায় ঢেকে গেছে , কিছুই দেখা যাছে না । তিন গাধা বেরোনোর দরজা খুঁজে পাছে না । প্রকাণ্ড ঘরে এলোমেলো ছুটোছুটি করছে আর সমানে বমি করছে এবং এই ভীষণ নারকীয় দুর্গন্ধের জন্য একে অন্যকে দোষারোপ করছে। প্রায় শুন্য ঘরে গায়েবী আওয়াজের মতো তাদের কথা শোনা যাছে … ” তুইইই তুউইইই মূলা খেয়ে এসেছিস …” , কীইইই কীইইইইই বললি আমি আমি মূলা খেয়েছি , দাঁড়া দেখাচ্ছি মজা ” , ” না না তোরা দুই জনই খেয়েছিস…” , ” কী আমরা আমরা ??? ” , ” তুই ” , ” না তুই ”, ” না তোরা ”…না … তুই … তোরা … মূলা … গন্ধ…

ফেসবুক মন্তব্য
শেয়ার করুনঃ

৬ thoughts on “টক শো এবং কতিপয় গাধা …

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

53 + = 63