সভ্যতা আজ হুমকির মুখে

সভ্যতা আজ হুমকির মুখে। যখনই শুনি, কোন লেখক, অধ্যাপক, কবি, সাহিত্যিক, সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব এবং বিভিন্ন পেশার উদীয়মান আলোকিত মানুষেরা নিশংসভাবে খুন হচ্ছেন তখনই থমকে যাই। তারা সভ্যতাকে অন্ধকারে ছুঁড়ে ফেলে দিতে চায়। তারা অন্ধকারাচ্ছন্ন, কুসংস্কারের রাজত্ব কায়েম করতে চায়। কারা তারা? কি চায়!

১৯৭১ সালের মতোই দেশের আলোকিত, বুদ্ধিজীবীদের হত্যা এখনও থেমে নেই। মধ্যযুগীয় বর্বর কায়দায় তারা একের পর এক হত্যা করে যাচ্ছে। স্বাধীনতার স্বপক্ষের শক্তি আজ রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায় বহাল থাকা স্বত্বেও অন্ধকার জগতের উপাসনাকারীরা কিভাবে সুযোগ পাচ্ছে এসব বর্বর হত্যাকাণ্ড ঘটানোর। যেকোন মুল্যে সরকারকে এসব খুনের মূলোৎপাটন করতে হবে। খুনিদের কঠোর বিচারের সম্মুখীন করতে হবে। তানাহলে বর্তমান সরকারের অনেক বড় বড় সাফল্যও যে ম্লান হয়ে যাবে আলোকিত মানুষদের রক্তে। এখনই উপযুক্ত সময় সকল মৌলবাদ, জঙ্গিবাদের মূলোৎপাটন করার।

বাঙালি জাতির জনক, বঙ্গবন্ধুর নির্দেশিত পন্থায় রাষ্ট্রীয় শাসন ব্যবস্থা পরিচালিত নাহলে এসব নারকীয় হত্যাকাণ্ড যে সহজে থামবার নয়। বাংলাদেশ এবং বাঙালি জাতিকে বঙ্গবন্ধু রন্ধে রন্ধে চিনতেন, জানতেন। যা অন্য সবার পক্ষে জানা অনেকটা দুর্বোধ্য বটে। স্বাধীনতাকামী, আলোকিত মানুষদের সঙ্গে অন্ধকার জগতের উপাসনাকারী মৌলবাদী, জঙ্গিবাদীদের কখনও আপোষ হবার নয়, হতে পারে না।

ফেসবুক মন্তব্য
শেয়ার করুনঃ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

− 1 = 1