রাস্তা বা পার্কের প্রেম : বেহায়াপনার বায়োস্কোপ !!

মনে রাখবেন সাধু সকল,
যে ছেলে/মেয়ে ইডেনের উল্টো দিকে রাস্তায় বসে হাতের ব্যয়ামে মগ্ন, সেই ছেলে/মেয়ে আর হাত ধরে অন্দরে পৌঁছুতে পারেনা !
আর যে ছেলে/মেয়ে রাস্তা আর অন্দরের তফাৎ বুঝে না, তার অন্দরে যাওয়ার অধিকারই বা কতোটুকু ?
সম্পর্কের মূল্যটুকু এতো নিচে নামাবেন না, প্লীজ !
কোনো না কোনো গ্রাম থেকে রাজধানীতে পড়তে আসা ভাই-বোনদের বলছি, যদি আপনার-আমার অভিভাবকদেরকে একদিনের জন্য ইডেনের সামনে-ধানমন্ডি লেকে-টি এস সি তে-সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে-মৈত্রী হলের সামনে-তারেক মাসুদের ভাঙা গাড়ির পাশে ঘুরানো যায়, আমার বিশ্বাস তারা আর সন্তান পড়াতে এই শহরে পাঠাবেন না!
আর এই মহান দৃশ্য দেখে তারা বলবেন ‘ডাহা আইয়া ফোলাফান ইতাঅই করে………. ? ★
তাই আপনারা যারা পড়তে এসে, এই লাগামহীন পতিত জীবনে লিপ্ত আছেন, তারা কী ভবিষ্যতে উচ্চ শিক্ষার্থে শহরে আসার অপেক্ষায় থাকা ছেলে/মেয়েদেরকে বঞ্চিত করার দায়ে, দায়ী নন?
হতে পারে আপনার শরীরের-স্নায়ুর ক্ষণিকের উত্তেজনার জন্য গ্রামের অভিভাবকদের এই স্ববিরোধী-দেশবিরোধী-জাতি বিরোধী সিদ্ধান্তের বলি হলেন, ময়মনসিংহের কলসিন্দুরের অসামান্য প্রতিভার অধিকারী মেয়েরা বা অন্য যে কোনো মেধাবী ছাত্র-ছাত্রী ! হতে পারে যে, তারা আপনার-আমার চেয়েও বেশি মেধাবি ! যাদের কাছে দেশ-আপনি-আমি কিছু পাওয়ার আশা করতে পারি ! কী অধিকার আছে আপনার, জাতিকে এই ভবিষ্যত সম্ভাবনাময় মেধা থেকে বঞ্চিত করার ?
তাই সময় থাকতে সাধু সাবধান !
ভাব কৃতজ্ঞতা : সদ্য ইডেন পাড় হওয়ার সময়, চোখে পড়া কতিপয় কপোত-কপোতী !
ফুটনোট : ★(তারকা) চিহ্নিত বাক্যটি আমার আঞ্চলিক ভাষায় লিখিত ! কারন আশা করি গ্রাম থেকে আসা অভিভাবকগণ তাদের যার যার আঞ্চলিক ভাষায়ই বলবেন ! তাই এই বাক্যটি যার যার আঞ্চলিক ভাষায় পড়ুন ! মজা পাবেন !
দ্র : কোনো সামাজিক-রুচিশীল সম্পর্ককে আমি ছোট করতে রাজি নই ! তাই ভুল বুঝাবুঝি থেকে বিরত থাকুন !

ফেসবুক মন্তব্য
শেয়ার করুনঃ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

48 + = 49