দান বাক্স, টাকা এবং নিমো হুজুর।

বিসমিল্লাহির রাহমানের রাহিম।

আজকে মাগরিবের নামাজের পর মসজিদের দান বাক্স খুলে, দানের টাকা হিসাব করা হচ্ছিল। টাকা হিসাবের পর, আমি দানের সব টাকা, নিজের পান্জাবীর পকেটে ডুকিয়ে নিলাম। মসজিদের দুইজন ময়াজ্জিন সাহেবকে কোন ভাগ দিলাম না। মুয়াজ্জিন সাহেবরা তব্দা খেয়ে আমার দিকে হা করে তাকিয়ে রইল। পাশে থাকা একজন মুরিদ বলিল:
“নীল নিমো হুজুর, আপনি একলাই সব টাকা নিয়ে নিলেন, মুয়াজ্জিনদেরকে কিছুই দিলেন না?”

আমি উত্তর দিলাম:
“টাকা পয়সা খারাপ জিনিষ। টাকা পয়সার লোভ করে, অনেকে ধংশ হয়ে গেছে। এই ব্যাপারে রাসুল্লাহর সুন্দর একটি ঘটনা আছে। আমি মুয়াজ্জিন ভাইদেরকে রক্ষা করার জন্য হাদিসটি ফলো করে, পুরা টাকা একাই নিয়ে নিলাম। ঘটনাটা নিম্নরুপ:
‘এক গরীব লোক আঙ্গুর নিয়ে হযরত মুহাম্মদ (সঃ) এর কাছে উপহার দিলো। পাশেই বিভিন্ন সাহাবীরা উপস্থিত ছিলেন। রাসুল (সঃ) আঙ্গুরের থোকা থেকে একটা আঙ্গুর ছিড়ে মুখে দিলেন, তারপর এক এক করে সবগুলো আঙ্গুর খেয়ে ফেললেন কিন্তু পাশে বসে থাকা সাহাবীদের কাউকেই আঙ্গুর খেতে সাধলেন না। চোখের সামনে প্রিয় নবীর এভাবে আঙ্গুর খাওয়া দেখে গরীব লোকটি অনেক খুশী হলো, তারপর রাসুলের কাছ থেকে বিদায় নিয়ে চলে গেলো। লোকটি চলে যাবার পর এক সাহাবী রাসুল (সঃ) কে জিজ্ঞাসা করলেন, ইয়া রাসুলুল্লাহ (সঃ) আপনি কিভাবে একাই সব আঙ্গুর খেয়ে ফেললেন, আমাদের কাউকে একটু ভাগ দিলেন না! সাহাবীর প্রশ্ন শুনে রাসুল (সঃ) মুচকি হেসে উত্তর দিলেন,
“আমি একাই সব আঙ্গুর খেয়ে ফেলেছি কারন আঙ্গুরগুলো টক ছিলো। যদি আমি তোমাদের কে আঙ্গুর খেতে সাধতাম, তোমাদের মুখভঙ্গি দেখেই হয়তো লোকটি বুঝে ফেলতো এবং কষ্ট পেতো। তাই আমি চিন্তা করে দেখলাম, যদি আঙ্গুরগুলো আমি একাই আনন্দের সাথে খেয়ে ফেলি লোকটি খুশি হবে এবং এটাই সবদিক দিয়ে ভাল।'”

আমার কথা শুনে দুই মুয়াজ্জিন বলে উঠিল:
“আল্লাহু আকবর… আমাদের কথা চিন্তা করে, নীল নিমো হুজুর এতবড একটা রিক্স নিচ্ছেন…. নীল নিমোর মত মহান মানুষ এই দুনিয়াতে দ্বিতীয়টি নাই”

ফেসবুক মন্তব্য
শেয়ার করুনঃ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

− 4 = 1