আমরা এমন নির্মম নাটক দেখতে চাইনা। প্লিজ আমাদের রেহাই দিন।

প্রথম দৃশ্যঃ (ফাটল দেখা যাওয়ার পর)
সৎ ইঞ্জিনিয়ারঃ বিল্ডিং ব্যাপক রিস্কি হয়ে আছে রানা ভাই। কন্টিনিউ করলে ঝামেলা হয়ে যেতে পারে।
মালিকঃ তাইলে আমি কি কাজ না করাইয়া লোকসানে পড়মু নাকি!হুদাই বিল্ডিং ভাঙ্গমু? কত্ত লোকসান জানে্ন?? মগের মুল্লুক নাকি?
সৎ ইঞ্জিনিয়ারঃ বিল্ডিং ধ্বসে পড়লে কিন্তু আপনারও রক্ষা নাই, আমারও নাই।
মালিকঃ হ, কইছে আপনারে! আমার হাত কতদূর আপনি জানেন না। হুদাই ভাইঙ্গা লাভ নাই, ধ্বইসা পড়লে তবু কিছু সাহায্য-মাহায্য পাওয়া যাইতে পারে।এক কাজ করেন, খামডা রাহেন আর বাড়িত যাইয়া আরাম করেন। আমি দেখতাছি।
সৎ ইঞ্জিনিয়ারঃ(নেড়েচেড়ে খামের স্বাস্থ্য পরীক্ষা করে) ওকে ধন্যবাদ ভাই। তাইলে আসি এখন।

দ্বিতীয় দৃশ্যঃ
বিজিএমই’র পরিদর্শকঃ রানা সাহেব, বিল্ডিংয়ে কাজ চালানো যাবে না। আমরা ঘুরে দেখেছি, সম্ভব না।
মালিকঃ তাইলে আমার এত টাকা ইনভেস্ট কি জলে যাইব? আপনারা কইলেই হইব!বিল্ডিংয়ের তো কিছুই হয়নাই। প্লাস্টার ভাঙ্গছে কিছু। দাড়ান আপনার বসরে ফোন দিতাছি।
বিজিএমই’র পরিদর্শকঃ বসকে ফোন দিলে দেন। কিন্তু আমি পুলিশকে বলে যাচ্ছি বিল্ডিং কলাস্প করে দেয়ার জন্য।
মালিকঃ হ, আপনি যান। আমি দেখতাছি।

তৃতীয় দৃশ্যঃ( ফোনে সব ম্যানেজ করার চেষ্টা হচ্ছে)
মালিকঃ (ফোনে) বস, বিল্ডিংযের একটু প্লাস্টার ধ্বসে পড়ছে এইজন্য দেখি লোকজন পাঠাইছে বিজিএমই। আপনি একটু ব্যাপারটা দেখেন প্লিজ। আর পুলিশের ব্যাপারটাও মিটাইতে হইব, ঝামেলা করতাছে।
মহান নেতাঃ আচ্ছা আমি দেখতাছি।কিন্তু মাল ছাড়া লাগব কিছু। একেবারেই খালি হাতে এসব কাজ হয় না।
মালিকঃ আচ্ছা। আমি লোক পাঠাচ্ছি। কত দিয়া পাঠাব?
মহান নেতাঃ আরে পাঠাও। সবাই আছে, কত ভাগ দিতে হয়! চার জায়গায় মাল খাওয়ান লাগব। সে হিসেবে পাঠাও।
মালিকঃ আচ্ছা, বস। আপনি তাইলে ওদিকটা সামলান। আমি কিন্তু কাজ বন রাখুম না।
মহান নেতাঃ গার্মেন্টস চালাইয়া যাইতে পারো। কিন্তু ব্যাঙ্কগুলা বন্ধ কইরা দাও। এগুলা বিপদে পড়লে ওপর থাইকা প্রেসার আসব ব্যাপক।আর গার্মেন্টস চালাইয়া যাইতে পার।ওদের নিয়া বেশি বিপদ নাই, আগেও তো দেখছি।
মালিকঃআচ্ছা, বস। রাখলাম।

চতুর্থ দৃশ্যঃ(সকালে)
ভয়ানক ক্যাডারঃ ওস্তাদ, ওগো তো ত্যাল বাড়ছে মনে হয়। কাজ করবার ভিত্রে ঢুকবার চাইতাছেনা।
মালিকঃ এত টাকা কি ওগো *গায় ত্যাল মাখাইতে খসাইলাম। পিডাইয়া ঢুকা সব কয়ডারে। শালারা!
ভয়ানক ক্যাডারঃ আইচ্ছা, ওস্তাদ। ওই চল(তার বাহিনীকে নির্দেশ দিয়ে)

পঞ্চম দৃশ্যঃ(ছয়তলায় পিলারের নিচে আটকা দুলালী আর মনি)
দুলালীঃ মনিরে, বাচি আছিস?
মনিঃ দম বন্ধ হবার লাগছে। এর চাইতে মরাই ভাল আছিল।
দুলালীঃ মোর তো পাও দুখান ভাংছে রে। খুব বমি আইসোছে।এত গোন্দ সহ্য কইরবার পাওছোনা রে।
মনিঃ ক্যান যে কাজ করবার ঢুকছিলাম? এর চাইতে না খাইয়া মরা ভাল আছিল।
দুলালীঃ মোর না আসি উপায় আছিল না। অপুর আব্বার হাতত কাজ নাই। মুইই শেষ আশা আছিনু।
মনিঃ ক্যান, এহন ক্যামনে বাইচ্ছা থাকপেন ভাঙ্গা পাও নিয়া? বাইচ্চা বাইর হবার পাইবা নাকি তাই সন্দেহ!
দুলালীঃ জানো না কিছু। কি পাপ করছিনু জীবনে! মুই না থাকলে অপুর কি হইবে রে?(গোঙ্গাতে শুরু করল দুলালী)
মনিঃ আর কাইন্দা শক্তি খরচ করি লাভ নাই। আল্লাক ডাকো দুলালী, আল্লাক ডাকো।

ষষ্ঠ দৃশ্যঃ (বিল্ডিং ধ্বসার পড়)
মালিকঃ বস, গরবর তো হইয়া গেছে। বিল্ডিং তো ধ্বইসা পড়ছে!
মহান নেতাঃ বল কি!
মালিকঃ বস, দ্যাখেন জিনিসডা অন্যদিকে নিয়া যাওন যায় কি না! খুব ফাপরে আছি।ওপরের দিকে একটু ভাল মতন কথা কন।
মহান নেতাঃ আরে তুমি চিন্তা কইর না।এইরকম কতই তো হইতাছে। তোমার দোষ কি! বিল্ডিং তো আর তুমি ভাঙ্গ নাই! তয় লুকায় থাকো খানিক, আমি দেখতাছি।
মালিকঃ বস, সাহায্য-মাহায্য কিছু পামু? এত লোকসান!
মহান নেতাঃ আরে ধুর মিয়া। এত মানুষ মরল, ওগোই তো আবার দশ-বিশ হাজার কইরা দেওন লাগব। তুমি বাচার চিন্তা কর।
মালিকঃ বস, আপনি একটু দেখেন
মহান নেতাঃ কইলাম তো দ্যাখতাছি। হরতাল আছিল না আইজকা? দেখি জিনিসডা ওইদিকে নিয়া যাওন যায় কি না!
মালিকঃ ওকে বস…

নাটকের এখনও বাকি আছে বন্ধুরা। তবে এখন এই নাটকের মঞ্চ সবার জন্য উন্মুক্ত থাকবে।

ফেসবুক মন্তব্য
শেয়ার করুনঃ

৬ thoughts on “আমরা এমন নির্মম নাটক দেখতে চাইনা। প্লিজ আমাদের রেহাই দিন।

  1. পরবর্তী নাটক দেখার অপেক্ষায়
    পরবর্তী নাটক দেখার অপেক্ষায় থাকলাম। আমরা আমজনতা, নাটক দেখা ছাড়া আর কোন বালটাই ছিড়তে পারি?

  2. সবকিছুর একটা শেষ আছে। এটাই
    সবকিছুর একটা শেষ আছে। এটাই প্রকৃতির নিয়ম। এই কুত্তার বাচ্চারা জানেনা খুব বেশী দেরী নাই দুলালীরা এদের ছিঁড়েখুঁড়ে খাবে।

  3. পিকচার অওর কুচ ভি বাকি নেহি
    পিকচার অওর কুচ ভি বাকি নেহি হ্যায় মেরি দোস্ত !!!

    সরকার বাহাদুরের মখা বলতাছে হরতালকারীদের ধাক্কাধাক্কিতে ভবন ধসে পরার কারণ হইতে পারে, বিরোধীদলীয় এম.কে কইতাছে যুবলীগ নেতার ভবন বইল্যা ভবন ধইসা পড়ছে, কুলামার্কা বি চধিরী ভবন ধসে পরার লগে তত্বাবধায়ক সরকার না দেওয়ার সংযোগ খুঁইজা পাইতেছে আবার সমসাময়িক সময়ের শ্রেষ্ঠ চোদনা হেপাঝথি রুহী ইহাকে ১৩দফা দাবী না মানার প্রেক্ষিতে আল্লাহর গজব-মূলক তাত্বিক নিয়া হাজির হইছে

    নাটকের একেকটা ডায়লগ শুইন্যা চোদনার পর চোদনা হইতাছি !!! আর হতাশ মনে কইতাছি, দেশের এহেন দুর্দশাময় পরিস্থিতিতে চোদনার এত ঝানু রাজনীতিবিদ, চুচীল, আল্লামা লইয়া করমু’ডা কি ???

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

− 5 = 2