রাজস্ব আদায়ে লক্ষভেদ

চলতি অর্থবছরে এখানকার রাজস্ব আহরণ খুবই ভালো। এর ধারাবাহিকতা ধরে রাখার জন্য সংশ্লিষ্ট সবার সহযোগিতা প্রয়োজন। বন্দর ব্যবহারকারী ব্যবসায়ী, সিঅ্যান্ডএফ এজেন্ট ও আমদানি-রফতানিকারকরা একসঙ্গে সুষ্ঠুভাবে কাজ করে রাজস্ব আহরণ যেমন বাড়ে, তেমনি ব্যবসা-বাণিজ্যেরও প্রসার ঘটে। গত অর্থবছর ভোমরা স্থলবন্দর থেকে এনবিআরের রাজস্ব আহরণের লক্ষ্য ছিল ১৬৪ কোটি টাকা। চলতি অর্থবছর এখান থেকে রাজস্ব আহরণের লক্ষ্য বেড়েছে তিন গুণেরও বেশি। চলতি অর্থবছরের লক্ষ্য ছাড়িয়েছে ভোমরা স্থলবন্দরের রাজস্ব আহরণের পরিমাণ। আলোচ্য সময়সীমার মধ্যে স্থলবন্দরটি থেকে রাজস্ব আহরণ হয়েছে ৫৫৬ কোটি ৯৬ লাখ ৩৯ হাজার টাকা, যা গত অর্থবছরের একই সময়সীমার তুলনায় ১৭৩ কোটি ৮৬ লাখ টাকা বেশি। অন্যদিকে এ সময়ের মধ্যে ভোমরা স্থলবন্দর থেকে ৫১০ কোটি ৬৫ লাখ ৫৮ হাজার টাকা রাজস্ব আহরণের লক্ষ্য নিয়েছিল জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর)। এ হিসাব অনুযায়ী, চলতি অর্থবছরের প্রথম ১০ মাসে ভোমরা স্থলবন্দর থেকে লক্ষ্যের তুলনায় ৪৬ কোটি ৩০ লাখ ৮১ হাজার টাকা অতিরিক্ত রাজস্ব আহরণ হয়েছে। এরই ধারাবাহিকতায় ভোমরা স্থল বন্দরের রাজস্ব আয় লক্ষ্য মাত্রা ছাড়িয়ে গেছে।

ফেসবুক মন্তব্য
শেয়ার করুনঃ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

4 + 1 =