গত ১৪০০ বছরে মুসলমানরা ইসলামের নামে যত মানুষ হত্যা করেছে

এক মুমিন সুন্দর করে একটা পরিসংখ্যান দিল দুনিয়ার বিভিন্ন নাস্তিক, স্বৈরশাসক ইত্যাদির হাতে কত মানুষ নিহত হয়েছে। এটা তুলে ধরে মুমিন প্রমান করতে চাইল, সেই তুলনায় মুসলমানরা ইসলামের নামে প্রায় কাউকেই হত্যা করে নি, আর তাই ইসলাম হলো একমাত্র সহিহ শান্তির ধর্ম , আর মুসলমানরা হলো দুনিয়ার সব চাইতে শান্তিপ্রিয় মানুষ। তো প্রথমেই মুমিনের দেয়া পরিসংখ্যানটা দেখা যাক :

মাওসেতুং (নাস্তিক)- ৭ কোটি ৮০ লাখ
হিটলার (খ্রিষ্টান)- ১ কোটি ৭০ লাখ
জোসেফ স্তালিন (নাস্তিক)- ২ কোটি ৩০ লাখ
লিওপন্ড-২ (খ্রিষ্টান)- ১ কোটি ৫০ লাখ
হাইভেকি তোশো (বৌদ্ধ)- ৫০ লাখ
পল পট (নাস্তিক)- ৩০ লাখ
কিম ইন-সাং (নাস্তিক)- ১৬ লাখ
মেনপিশটু হেইলি মারিয়াম (নাস্তিক)- ১৫ লাখ
জর্জ ডব্লিও বুশ (খ্রিষ্টান)- ১০ লাখ –

মোট: ১৪ কোটির কিছু বেশী

সূত্র: https://istishon.blog/?q=node/20902#sthash.VmYlH3QA.dpuf

মুমিনের যুক্তি : মাও সেতুং , হিটলার ,স্টালিনরা যদি তাদের রাজনীতির নামে কোটি কোটি মানুষ হত্যা করতে পারে , তাহলে মুসলমানরা যদি কিছু মানুষ হত্যা করে থাকে , তাহলে দোষের কি আছে ? অর্থাৎ সেই মুমিন কিন্তু নিজের অতি চালাকিতে তার প্রিয় নবী মুহাম্মদকে হিটলারের মত একজন পৈশাচিক ও বর্বর মানুষের সাথে তুলনা করে ফেলেছে , এবং সে প্রমান করেছে , মুহাম্মদ , হিটলারের মতই একজন বর্বর খুনি ছিল- কিন্তু সে বুঝতে পারে নি।

আচ্ছা , বলুন তো উক্ত মাওসেতুং বা হিটলার বা স্টালিন কোন ধর্মের নামে মানুষ হত্যা করেছিল ? তারা যেটা করেছিল সেটা হলো সম্পূর্ন তাদের নিজস্ব রাজনৈতিক উদ্দেশ্য হাসিলের জন্যে। এবার বলুন তো দুনিয়ার কোন বিবেকবান লোক তাদের এই গনহত্যাকে সমর্থন করে ? কোন লোক তাদের এই গনহত্যাকে সঠিক কাজ বলে গণ্য করে ? কেউই তাদের গনহ্ত্যাকে সমর্থন করে না , দুনিয়ার সকল বিবেকবান লোক তাদের এই গনহত্যাকে ঘৃণা করে , আর কঠিন সমালোচনা করে। তাদের এসব কর্মকান্ডকে ধিক্কার জানিয়ে, সারা দুনিয়ায় লক্ষ লক্ষ বই লেখা হয়েছে , লেখা হয়েছে নিবন্ধ , খবর আর হয়েছে কঠিন সমালোচনা। আর এর জন্যে কিন্তু কোন লোকই সমালোচনাকারীদেরকে চাপাতি দিয়ে কল্লা কাটতে যায় নি। দুনিয়ার কোন বিবেকবান লোকই মাওসেতুং বা হিটলার বা স্টালিনকে সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ট আদর্শ মানুষ তো দুরের কথা , একজন স্বাভাবিক বিবেক সম্পন্ন মানুষ বলেও স্বীকার করতে রাজি না। বরং সবাই বলে, তারা ছিল সবাই বর্বর , অসভ্য ও খুনি। আর এর জন্যেও কেউ কোন সমালোচনাকারীর কল্লা কাটতে যায় না।

পার্থক্য শুধু ইসলামের নামে হত্যাযজ্ঞ। খোদ মুহাম্মদ নিজেই হত্যা করেছেন হাজার হাজার অমুসলিম বিশেষ করে ইহুদিদেরকে। যেমন –

বনু কুরাইজা হত্যা কান্ড— ৭০০-৯০০ ইহুদিকে অত্যন্ত ঠান্ডা মাথায় শিরোচ্ছেদ করা হয় ( ইবনে ইসহাক)।
খায়বারে ইহুদি নিধন যজ্ঞ। এখানেই ইহুদি সর্দার কিনানকে নির্মমভাবে হত্যা করে মুহাম্মদ সেই হত্যার দিনেই কিনানের স্ত্রীকে নিয়ে রাত কাটান , পরদিন তাকে বিয়ে করেন।

এছাড়া মুহাম্মদের নির্দেশে বহু মানুষকে হত্যা করা হয় বিচ্ছিন্ন ভাবে ।

এবার মুহাম্মদের উম্মত তথা মুসলমানদের হাতে নিহতের একটা পরিসংখ্যান দেয়া যাক –

১। ইসলাম চালুর পর , মুসলমানরা যখন আফ্রিকার বিভিন্ন দেশ দখল করে , তখন তাদের প্রধান কাজই ছিল কাল মানুষদেরকে ধরে ধরে দাস দাসী হিসাবে বিক্রয় করা। এভাবে গত ১৪০০ বছরে তারা মোট ২ কোটি ৫০ লক্ষ মানুষকে দাসদাসী হিসাবে চালন করেছে । মুসলমানদের হাতে নিহত হয়েছে প্রায় ১২ কোটি কাল আফ্রিকান।
২। এশিয়া মাইনর অঞ্চলে মোট ৫ কোটি ৯০ লক্ষ খৃষ্টান হত্যা করেছে মুসলমানরা।
৩। বল্কান অঞ্চল, হাঙ্গেরি, ইউক্রেন , রাশিয়তে মোট ৮ কোটি খৃষ্টানকে হত্যা করেছে মুসলমানরা।
৪। ভারতে গত ১৪০০ বছরে মুসলমানরা প্রায় ৪০ কোটি হিন্দু হত্যা করেছে।
৫। আনুমানিক ১ কোটি বৌদ্ধ হত্যা করেছে মুসলমানরা এই সময়ে।

সুতরাং মুসলমান কর্তৃক মোট নিহতের সংখ্যা – প্রায় ৬২ কোটি

সবচাইতে সফল ছিল ইহুদি নিধনে , মুহাম্মদ ও তার দলবল আরব দেশ থেকে সকল ইহুদিকে তাদের ভিটা মাটি থেকে চিরতরে উচ্ছেদ করেছে।

সূত্র : https://themuslimissue.wordpress.com/2013/06/19/muslims-have-killed-over-590-million-non-muslims-since-the-birth-of-mohammed/

সুতরাং দেখা যাচ্ছে , যেখানে মাও সেতুং , হিটলার , ষ্টালিন ইত্যাদিরা তাদের বর্বর রাজনীতির নামে ১৪ কোটির মত মানুষ হত্যা করেছে , সেখানে মুসলমানরা ইসলামের নামে গত ১৪০০ বছরে হত্যা করেছে হিটলার বা স্টালিন ইত্যাদির চাইতে সাড়ে চারগুন বেশী মানুষ। আর এই অবিশ্বাস্য হত্যাকান্ড ঘটান হয়েছে শুধুই মাত্র ইসলাম নামক একটা ধর্মের জন্যে।

তাহলে- মাও সেতুং , হিটলার ইত্যাদির সাথে ইসলামের তফাৎ কোথায় ? তফাৎ হলো , আমরা ধুমছে মাও সেতুং বা হিটলার ইত্যাদির সমালোচনা করতে পারি , আর তারা নিজেরাও কেউ নিজেদেরকে সর্বকালের আদর্শ মানুষ বলে দাবী করে নি। তাই তাদেরকে সমালোচনা করলে কেউ আমাদের কল্লা কাটতে আসে না।পক্ষান্তরে কেউ যদি ইসলামের এই বর্বর হত্যাকান্ডের বা মুহাম্মদের এই নিষ্ঠুরতা ও বর্বরতার সমালোচনা তো দুরের কথা , শুধুমাত্র এই তথ্যগুলো কেউ উচ্চারন করে , তাহলে সারা দুনিয়ার মুমিন বান্দারা চাপাতি নিয়ে, আত্মঘাতী বোমা নিয়ে আক্রমন করতে চলে আসে।

কিন্তু ইসলাম নামক বর্বরতা আর কতদিন চলবে ? পরকালে বেহেস্তে কাল্পনিক ৭২ কুমারী নারীর লোভে আর কতদিন মুসলমানরা ইসলামের শিকার হবে ? পরিশেষে , মুসলমানদের এই বর্বরতার বিপরীতে দুনিয়ার সকল অমুসলিম এক হয়ে মুসলমানদের ওপর আক্রমন চালালে সেদিন মুসলমানদের কি অবস্থা হবে ? আর সেই অবস্থার জন্যে কে দায়ী হবে ?

ফেসবুক মন্তব্য
শেয়ার করুনঃ

৫ thoughts on “গত ১৪০০ বছরে মুসলমানরা ইসলামের নামে যত মানুষ হত্যা করেছে

    1. মুমিনেরা প্রকৃত ইতিহাসের ঘটনা
      মুমিনেরা প্রকৃত ইতিহাসের ঘটনা জানলে গাজা না টেনেও গাজা টানার মত আচরন করে। ৬২ কোটি মানুষ কি দুই দিনে হত্যা করছে নাকি ? গত ১৪০০ বছর ধরে। ইতিহাসের নানা তথ্য উপাত্ত বিশ্লেষণ করেই ইতিহাসবিদরা এটা বলেছে, হয়ত সামান্য কিছু ভুল থাকতে পারে। কিন্তু তাতে কি তেমন কিছু যায় আসে ? আমি তো সূত্র দিয়েছি। সেটা ভাল করে পড়ুন।

  1. যে সমস্ত স্ট্যাটিস্টিকস
    যে সমস্ত স্ট্যাটিস্টিকস মুসলিমেরা দেয় সেগুলো বিশ্বজনীন , সেগুলো Un-Biased Source থেকে দেয়া , আর যে সাইট এর লিঙ্ক দিয়েছেন সেটা একটা Loon Site থেকে দেয়া , আর সেখানে যে তথ্য সূত্র দেয়া আছে তার মধ্যে একটা অথ্যসূত্র তে গেলাম । WORLD
    CHRISTIAN TRENDS
    AD 30-AD 2200

    সেখানে কিন্ত এটা দেখানো হয়েছে যে এই ৫৯ মিলিয়ন খ্রিস্টান যুদ্ধে নিহত হয়েছিল মুসলিম দের হাতে আর সেটার সাথে সাথে মুসলিম নিহত হয়েছিল প্রায় ৮০ মিলিয়ন । তো খুব খিয়াল কইরা [Islam Muslim martyrs 80 million] এটা বলা আছে টেবিল নং ৪.১ এ দেয়া আছে আর যার কাছ থেকে শুন্তেছেন যে ৪০ কোটি হিন্দু মারা গেছে সেই Koenraad Elst একজন Orientalist এর মানে সোজা বাংলায় উনি মুসলিম বিদ্বেষী ,অনেকটা Henry Tisdall দের মত যারা এর আগেও অনেক আজাইরা ক্লেইম করেছিলেন । আর তার মতে ভারতের জনসংখ্যা ১২০০ খ্রিস্টাব্দে ছিল ৬০ কোটি (!) যেখানে ইংরেজ দের সময়েই ছিল ২৮ কোটি (প্রায় ৫০০ বছর পরে) আচ্ছা তাহলে বিশ্ব জনসংখ্যা Datasheet দেখা যাক
    Upper Estimate
    1200 AD 360 450(In Millions)
    1250 AD 400 416
    1300 AD 360 432
    তো তাদের মানে যেখানে বিশ্বের জনসংখ্যা যেখানে (সর্বোচ্চ অনুমানে) ৪৫ কোটি ছিল সেখানে ইন্ডিয়ার জনসংখ্যা ছিল ৬০ কোটি ???? এর থেকে বড় কৌতুক আর কোথাও নাই । বিশ্বের সবথেকে বড় গণহত্যাকারী হচ্ছেন আপনারা বাম নাস্তিক রা এটা মেনে নিতে শিখেন আর নিজেদের ঘৃণার জায়গাটা পাকা করেন ।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

13 − 7 =