মতিঝিল টু কলেজগেট !

যাচ্ছি কলেজগেট
রাশফিয়া ফোন দিয়েছিল একটু আগে বলল,

রাশুঃ

হ্যালো

আমিঃ

হ্যা বল

রাশুঃ

শুন কলেজ গেট আয় , একটু কাজ আছে ।

আমিঃ

এখন ? এই কাঠফাটা রোদে ??? [ বিরক্তগলায় ]

রাশুঃ

কিচ্ছু জানি না আমি , তুই আয় ।

এই বলেই কেটে দিল ।
“ধুর” শব্দটা এক নিশ্বাসে বলে আমি ফোনটা ডান হাতে নিয়েই বেরিয়ে পরলাম ।
মতিঝিল ব্যাংক কলনির পেছেনে বাসা আমার , তাই শাপলা চত্বর এসেই ভাল একটা বাস চেপে উঠে পরলাম ।

প্রথম পুরা মাথাই নষ্ট হয়ে গিয়েছিল , পরক্ষণে দেখলাম পেছনের সিটের আগের সিটে কাল টি-শার্ট এক ভাইের পাশের সিট টা খালি ।
আর কিছু ভাবতে পারলাম না, পিছে গিয়ে বসে পরলাম ।
পাশের বসা ভাইয়ের বয়স কুড়ি কি বিশ ,গলায় ঝুলানো ঢাবির আইডি কার্ডও দেখালাম ।
এসব ভাবতে ভাবতেই বাস “শাহবাগ” এসে জামে আঁটকে গেছে -_-
তার ওপর লক্ষ্য করলাম, পিছনে থাকা লাল বর্ণের দ্বিতল “BRTC” বাস ক্রমগত কান ধরা হর্ন বাজাচ্ছে :/
মেজাজ আমার চটে গেল ।
একটু পর মাথা ক্ষানিকটা উঁচু করে দেখতেই মনে হল আজ এই জ্যাম আর শেষ হবে না । >.< চোখটা সমানে থেকে সরিয়ে নেব এমন সময় লক্ষ্য করলাম, নীল ছেঁড়া শার্ট আর লুঙ্গি পরা ড্রাইভার তার মোবাইল খানা মাথা উপর উঠিয়ে কি যেন করছেন ! বুঝতে সময় লাগল না ক্যামেরার শব্দ শুনে :v আমার মেজাজ এই বার পুরা বিগডে গেল , আশে পাশে দেখলাম সব যাত্রীরাও ওনার দিকে এমন ভাবে তাকিয়ে আছেন যেন এখনই কাঁচা খেয়ে ফেলবেন । ২০ মিনিট পর ……

সময়ের ব্যবধানে জ্যাম কেটে গেল ।
বাস আবার চলতে শুরু করেছে …
আমি ততক্ষণে বুজলাম অনেক দেরি হয়ে গিয়েছে :p
আজ যে রাশুর “wtf”নামক তার বোগাস গালি থেকে আমার রক্ষা নেই -_-
এমনিতেই আমাকে অনেক ঝারি মারে সে ! 🙁

এক অজানা ভয়ে নিয়ে কাঁপা কাঁপা হাতে ফোনটা পকেটে ভরে চুপটি করে বসে রইলাম ।

ফেসবুক মন্তব্য
শেয়ার করুনঃ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

74 − 65 =