পথ…

আমি অ্যালিসে পৌঁছাই ভোর পাঁচটায় সাথে একটি কুকুর, ৬ ডলার এবং ছোট্ট এক সুটকেস ভর্তি অনুপযুক্ত কাপড় চোপড় নিয়ে।ব্রৌশ্ররে বলা ছিল, “সন্ধ্যার জন্য একটি কার্ডিগান এনো”।এক ঝলক রুক্ষ বরফ শীতল বাতাস প্ল্যাটফর্মে ঝাপটা দিয়ে গেল আর আমি দাঁড়িয়ে কাঁপছিলাম, কুকুরের উষ্ণ মাংস জড়িয়ে ধরে এবং অবাক হচ্ছিলাম যে কোন বোকামি আমাকে এমন ভূতুড়ে, নির্জন ট্রেন স্টেশনে এনেছে যা কোন স্থানের কেন্দ্রে নয়। আমি বাতাসের বিপরীতে ঘুরে দাঁড়ালাম এবং শহরের প্রান্তে পর্বতের সারিগুলো দেখতে পেলাম।

জীবনে কিছু কিছু মূহুর্ত আছে যা পিভটের মত যাকে কেন্দ্র করে তোমার জীবৎকালের গতি বদলায় – হ্মীণ অন্তরজ্ঞাত ঝলক; যখন তুমি জানো যে পরিবর্তনের জন্য তুমি সঠিক কিছু করেছ, যখন তুমি ভাব যে তুমি সঠিক পথে আছো।আমি তাকিয়ে দেখলাম ফ্যাকাশে ভোরের একটি ক্ষীণ রশ্মি পর্বতের চূড়াগুলো উজ্জল প্রভাত আলোয় রাঙ্গিয়ে দিয়েছে। এই মূহুর্তটি ছিল পবিত্র, নির্ভেজাল এবং নির্ভরতার – এবং তা দশ সেকেন্ডের জন্য স্থায়ী হয়েছিল।
চলবে …

ফেসবুক মন্তব্য
শেয়ার করুনঃ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

− 2 = 1