” ব্যাস্ত পৃথিবীতে সবকিছুর বড্ড অভাব ”

“হাহাহা … ছেলেটা হাত কাটছে !!”
“হোহোহো … মেয়েটা ঘুমের ওষুধ গিলছে !!”
হাসতে থাকা মানুষের সংখ্যা অনেক … চারপাশে হাসতে থাকা মানুষের অভাব হয় না … উপহাস করা খুব সোজা কাজ … মজার কাজ !!
হাত কাটা খুবই নিম্নমানের কাজ, ঘুমের ওষুধ খাওয়া কোন সমাধান না … একটা ছেলে বা মেয়ের দিকে তাকিয়ে মানুষগুলো হাসে, উপহাস করে … চিন্তা করতে চায় না, কেন সে দাঁতে দাঁত চেপে ব্লেডটা হাতে নিলো … চিন্তা করতে চায় না, কেন সে ভর দুপুরে ওষুধের দোকানগুলোতে হন্য হয়ে ঘুমের ওষুধ খুঁজছিলো !!
প্রচন্ড যন্ত্রণা না হলে কেউ নিজেকে নিজে কষ্ট দেয় না … ছেলেটার হৃদয়ের ভেতরের রক্তক্ষরণটা কেউ দেখতে পাচ্ছিলো না, হাতের রক্তক্ষরণটাই দেখছিলো !!
মেয়েটার চোখের ঘুমটা কেউ কেড়ে নিয়েছিলো … অনেকগুলো রাত এপাশ ওপাশ করে কাটানো মেয়েটার অশ্রুর গল্প শুধু বালিশটাই জানতো … মানুষগুলো জানে শুধু ঘুমের ওষুধের খালি প্যাকেটের গল্প !!
নরম হৃদয় মানুষের … ভীষণ নরম … অতটা কষ্ট সে নিতে পারে না … অতটা রক্তক্ষরণ সে সইতে পারে না … বুকের ভেতর থেকে চিৎকার করে সে ছেলেটাকে বলে কিছু একটা করো … কষ্ট সইতে না পেরে সে মেয়েটাকে বলে, ঘুম পাড়াও আমাকে, আমি আর পারছি না !!
বাধ্য হয়েই ছেলেটা আঘাত করে নিজেকে … বাধ্য হয়েই মেয়েটা একটার পর একটা ওষুধ গলা দিয়ে নামিয়ে দেয় … একটু মুক্তির আশায় … একটু কষ্ট কমার আশায় !!
হাতের আঙ্গুল তুলে দোষ দেয়া মানুষের অভাব নেই … হাতটা মাথায় রেখে “খুব কষ্ট পেয়েছিলা, না ??” – জিজ্ঞেস করার মানুষের বড্ড অভাব !!
তোমার আশেপাশের মানুষটার দিকে একটু তাকাও … একটু তার গল্পটা শুনো … তার মাথায় হাতটা রাখো … তার গাল বেয়ে গড়িয়ে পড়া অশ্রুটা মুছে দাও আলতো করে … সে একটা মানুষ খুজছিলো কষ্টগুলো শেয়ার করার জন্য … তুমিই সেই মানুষ হও … তোমাকে খুঁজে পেলে হয়তো আজ রাতে সে আর ব্লেড খুঁজবে না, ঘুমের ওষুধটা খুঁজবে না !!
ব্যস্ত পৃথিবীতে এখন গল্প শুনার মানুষেরও বড্ড অভাব !!”

ফেসবুক মন্তব্য
শেয়ার করুনঃ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

65 − 63 =