বিশ্বে মাতৃস্বাস্থ্য সেবায় শীর্ষ আটে বাংলাদেশের ‘আপনজন সগর্ভা’: ম্যাশেবল


নূরুর রহমান

সারা দুনিয়া জুড়ে বিশেষত উন্নয়নশীল দেশগুলির মধ্যে মাতৃস্বাস্থ্য সেবায় বিপ্লব ঘটিয়েছে যে আটটি মোবাইল এ্যাপ্লিকেশন তার মধ্যে স্থান করে নিয়েছে বাংলাদেশের ‘আপনজন সগর্ভা’। ডিজিটাল মিডিয়া ওয়েবসাইট ম্যাশেবলের এমন আটটি মোবাইল এ্যাপ্লিকেশনের তালিকায় এটা শীর্ষ পাঁচ নম্বরে।

বিশ্বে বহু দেশে এখনো গর্ভবতী মায়েদের জন্য চিকিৎসা সেবা অপ্রতুল। বিশেষত উন্নয়নশীল দেশের এসব মায়েরা প্রায়শই চিকিৎসা সেবার বাইরে থেকে যান। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার হিসেব অনুযায়ী, সন্তান জন্মদান ও গর্ভধারণ সংক্রান্ত প্রতিরোধ যোগ্য জটিলতায় প্রতিদিন ৮০০ মহিলা মারা যান। যাদের ৯৯% এর বাস উন্নয়নশীল দেশগুলোতে। এদের বেশিরভাগই মারাত্মক রক্তক্ষরণ, ইনফেকশন, গর্ভকালীন উচ্চ রক্তচাপ এবং অনিরাপদ গর্ভপাতের কারণে মারা যান। অথচ গর্ভবতী মা ও স্বাস্থ্যসেবা প্রদানকারীদের সঠিক জ্ঞান এই মর্মান্তিক মৃত্যু রোধ করতে পারে।

সেক্ষেত্রে জীবন রক্ষাকারীর ভূমিকা পালন করতে পারে মোবাইল হেলথ বা এম হেলথ ব্যবস্থা। এর মাধ্যমে মোবাইল ফোন ব্যবহার করে সরাসরি কল করে বা মোবাইল এ্যাফ্লিকেশন ব্যবহার করে রোগীদের স্বাস্থ্য বিষয়ক পরামর্শ ও চিকিৎসা দেয়া হয়। উন্নয়নশীল দেশগুলোতে এই এমহেলথ ব্যবস্থা এরই মধ্যে মাতৃস্বাস্থ্য সেবায় এক নিরব বিপ্লব ঘটিয়েছে।

ডিজিটাল মিডিয়া ওয়েবসাইট ম্যাশেবল সারা দুনিয়া জুড়ে এমন ৮টি অ্যাপস ও মোবাইল ভিত্তিক সার্ভিস একটি তালিকা করেছে, যা এমহেলথ সেবায় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছে।

১। গিফটেড মম:

ম্যাশেবলের তালিকায় এক নম্বরে আছে ‘গিফটেড মম’ এ্যাপ্লিকেশনটি। গর্ভবতী নারী ও নতুন মা’দের মোবাইলে স্বাস্থ্য সেবা দিয়ে থাকে আফ্রিকা ভিত্তিক সেবা প্রদানকারি এই এ্যাপ্লিকেশনটি। তারা প্রয়োজন অনুযায়ী সেবা গ্রহীতাদের মোবাইলে বার্তা পাঠিয়ে থাকে। এছাড়া সেবার আওতা বাড়াতে মোবাইল নেই এমন অনেককেই মোবাইলও দিয়ে থাকেন তারা।

২। জিরো মাদারস ডাই:

তালিকার ২ নম্বরে আছে ‘জিরো মাদারস ডাই’ নামে আরেকটি মোবাইল স্বাস্থ্য সেবা দাতা প্রতিষ্ঠান। তারা আফ্রিকার দেশগুলো- বিশেষত ঘানা, গ্যাবন, মালি, নাইজেরিয়া এবং জাম্বিয়াতে মহিলাদের বিনামূল্যে মোবাইল দিয়ে থাকে। যা ব্যবহার করে তারা জরুরি প্রয়োজনে বিনাখরচে সেবাদাতাদের সাথে কথা বলতে পারে। এছাড়া দূর্গম এলাকায় বসবাসকারী গর্ভবতী মহিলাদের নিয়মিত মোবাইলে বার্তাও পাঠানো হয়। একই সাথে এই মোবাইলে সহযোগী সেবাদাতাদের জ্ঞান বাড়াতে দেয়া হয় বিশেষ অ্যাপ্লিকেশন।

৩। মে মে:

মিয়ানমারে প্রসূতী মা ও শিশু মৃত্যুর হার তুলনামূলক বেশি। আর তা সমাধানে সেখানে কাজ করে ‘মেয়মেয়’। এই অ্যাপ্লিকেশনের মাধ্যমে গর্ভবতী মায়েদের প্রতি সপ্তাহে তিনটি করে স্বাস্থ্য বার্তা পাঠানো হয়। এসব বার্তায় দেয়া হয় পুষ্টি পরামর্শ, গর্ভধারণের বিভিন্ন পর্যায়ের যত্নসহ নানা ধরনের টিপস। এছাড়াও এ অ্যাপ্লিকেশনের মাধ্যমে নিজেদের প্রয়োজনে ডাক্তার ও সেবাদাতা প্রতিষ্ঠান খুঁজে নিতে পারেন গ্রহীতারা।

৪। সেফ ডেলিভারি:

ম্যাটারনিটি ফাউন্ডেশনের তৈরি করা এই অ্যাপ্লিকেশন তৈরি করা হয়েছে হেলথ ওয়ার্কারদের জন্য। এর মাধ্যমে তারা দূর্গম এলাকায় গর্ভবতী ও প্রসূতী মায়েদের প্রয়োজনীয় পরামর্শ দিয়ে থাকেন। ইথিওপিয়া এবং ঘানায় যাত্রা শুরুর সময় থেকেই সেফ ডেলিভারি অ্যানিমেটেড ভিডিও ব্যবহার করে সেবাদাতাদের প্রশিক্ষন দেয়। এছাড়া এতে থাকা ফ্ল্যাশকার্ড ব্যবহার করে নিজেদের জ্ঞান ঝালিয়ে নেয়ার সুযোগও রয়েছে হেলথ ওয়ার্কারদের।

৫। মামা:

মোবাইল অ্যালায়েন্স ফর ম্যাটারনাল অ্যালায়েন্স বা মামা, কাজ করে বাংলাদেশ, সাউথ আফ্রিকা, ভারত এবং নাইজেরিয়ায়। তাদের এ্যাপ্লিকেশনটির নাম ‘আপনজন সগর্ভা’। এই অ্যাপ্লিকেশন গর্ভবতী ও প্রসূতি মায়েদের বিনামূল্যে দুই থেকে তিনটি এসএমএস পাঠিয়ে থাকে। এছাড়াও সরাসরি কল করে স্বাস্থ সেবা দিয়ে থাকে। এর আরেকটি বিশেষত্ব হচ্ছে, অঞ্চল ভিত্তিক সাংস্কৃতিক পার্থক্য মাথায় রেখে তারা বিভিন্ন এলাকার মায়েদের আলাদা এসএমএস পাঠিয়ে থাকে। এতে তাদের এ সময়ের বিভিন্ন বিপদ সম্পর্কে সর্তক করার পাশাপাশি, চিকিৎসা নেয়ার বিষয়ে মনে করিয়ে দেয়। গুগল প্লে ষ্টোরে ‘আপনজন’ লিখলে এই এ্যাপটি পাওয়া যাবে।

৬। মোবাইল মিডওয়াইফ:

শুধু বার্তা নয়, এর সাথে রেকর্ড করা ভয়েস এসএমএস পাঠিয়ে প্রয়োজনীয় বিভিন্ন তথ্য দিয়ে থাকে মোবাইল মিডওয়াইফ। ঘানার এ অ্যপ্লিকেশন গর্ভবতী মায়েদের পাশাপাশি পরিবারের অন্যান্য সদস্যদেরও এসব বার্তা পাঠায়। একই সাথে এ অ্যাপটি নার্সদেরও ব্যবহার করার সুযোগ রয়েছে। এর মাধ্যমে তারা রোগীদের বিভিন্ন তথ্য সংগ্রহ করে ও তা কেন্দ্রীয় তথ্যভান্ডারে তা সংরক্ষণ করে থাকে। ফলে সময় অনুযায়ীদের গর্ভবতীদের প্রয়োজনীয় সেবা নিশ্চিত করা যায়।

৭। সুয়োজানা:

ধাত্রীরা উন্নয়নশীল দেশগুলোতে সন্তান জন্মদানে খুবই গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে থাকেন। সন্তান জন্মের পরেও টিকা দেয়া, প্রয়োজনে তাদের প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়ার কাজও করে থাকেন তারা। আর তাদের সাহায্যে কাজ করে থাকে এমন একটি অ্যাপ্লিকেশন সুয়োজানা। এর মাধ্যমে ধাত্রীরা আধুনিক চিকিৎসা সংক্রান্ত প্রশিক্ষন পেয়ে থাকেন। মাতৃত্বের প্রতিটি ধাপে এটি ধাত্রীদের নির্দেশনা দিয়ে থাকে। এছাড়া মেডিকেল রেকর্ড সংরক্ষন করে বলে এর মাধ্যমে আঞ্চলিক স্বাস্থ্য পরিস্থিতি সম্পর্কে ধারনাও পাওয়া যায় এ অ্যাপটির মাধ্যমে।

৮। সেফ প্রেগন্যান্সি অ্যান্ড বার্থ:

সেফ প্রেগন্যান্সি অ্যান্ড বার্থ, একই সাথে কাজ করে ধাত্রী ও প্রসূতি মায়েদের জন্য। মূলত চার ধাপে এটি কাজ করে থাকে। এগুলো হচ্ছেঃ তথ্য সংগ্রহ, রোগী পর্যবেক্ষন, স্বাস্থ্য শিক্ষা ও ডাক্তারের সাথে সাক্ষাতের সময়সূচী মনে করিয়ে দেয়া। এতে তথ্যগুলো দেয়া হয় ইংরেজি ও স্প্যানিশ ভাষায়। এছাড়া কমিউনিটি হেলথ ওয়ার্কারের জন্য প্রতিটি ধাপের জন্য প্রশিক্ষণও দেয়া হয় এ অ্যাপের মাধ্যমে।

সূত্র: http://mashable.com/2016/03/13/apps-maternal-health/#3IEPGNqumOqS

ফেসবুক মন্তব্য
শেয়ার করুনঃ

১ thought on “বিশ্বে মাতৃস্বাস্থ্য সেবায় শীর্ষ আটে বাংলাদেশের ‘আপনজন সগর্ভা’: ম্যাশেবল

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

74 − = 65