সাভার: সরকারকে দোষারোপ কেন নয়?

সাভারের মানবতার চরম বিপর্যয়ের পর ফেসবুক আর ব্লগও ভেসে যাচ্ছে নিহতদের প্রতি সমবেদনায় আর সাহায্যের আবেদনে।সত্যিকার অর্থেই বাঙ্গালী অনলাইন কমিউনিটি যা করেছে তা নি:সন্দেহে প্রশংসার যোগ্য।
কিন্তু এই আবেদনের পাশাপাশি অদ্ভুত এক ধরণের আওয়াজ শোনা যাচ্ছে।গত দিনে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী যা করেছেন কিংবা মালিক রানার আওয়ামী সংশ্লিষ্টতা চরমভাবে সমালোচিত হয়েছে।এছাড়াও স্পটে সামান্য মাস্ক কিংবা অক্সিজেন নিয়ে টানাটানি করতে যা নি:সন্দেহে লজ্জাজনক।এমনকি সরকারের ত্রানমন্ত্রী আছেন দিনাজপুরে আর লাশপ্রতি বিশ হাজার টাকা ঘোষণা মোটামুটি তামাশার সৃষ্টি করা হয়েছে।এরপর রয়েছে মালিক রানাকে গ্রেফতারে ব্যর্থতা।এত কিছুর পরেও কিছু তথাকথিত সেলিব্রেটি সরকারের সাফাই গাইছেন।একজন তো একে স্রেফ দূর্ঘটনা বলে চালিয়ে দিলেন।সবশেষে এ হত্যাকাণ্ডের প্রতিবাদে বাম দলগুলো যে ধর্মঘট ডেকেছে তারও কুৎসিতভাবে আক্রমণ করেছেন একটি নির্দিষ্ট গোষ্ঠী।
মাননীয় প্রধানমন্ত্রী প্রথম দিন বললেন,এই দূর্ঘটনার আগাম খবর তারা জানতেন।এবং নিহতরা মালামাল আনতে গার্মেন্টসে গিয়েছিলেন।প্রধানমন্ত্রীর এই অবিবেচনাপ্রসূত উক্তির জন্যই কেবল তার পদত্যাগ দাবি করা যায়।কারণ তিনি প্রতিটি মৃত শ্রমিককে অপমান করেছেন।

হ্যাঁ,যুদ্ধাপরাধী ইস্যুতে আওয়ামী লীগ আমাদের মিত্র।তাই বলে তাদেরকে নিজ আত্মাকে বন্ধক দিইনি।আর মজুরের দেশে শাসন করার অধিকার মজুরেরই থাকা উচিৎ।কয়েকজন এসির নিচে থাকা অলস বুদ্ধি প্রতিবন্ধীর নয়।

ফেসবুক মন্তব্য
শেয়ার করুনঃ

৩ thoughts on “সাভার: সরকারকে দোষারোপ কেন নয়?

  1. যুদ্ধাপরাধী ইস্যুতে আওয়ামী
    যুদ্ধাপরাধী ইস্যুতে আওয়ামী লীগ আমাদের মিত্র।তাই বলে তাদেরকে নিজ আত্মাকে বন্ধক দিইনি।আর মজুরের দেশে শাসন করার অধিকার মজুরেরই থাকা উচিৎ।কয়েকজন এসির নিচে থাকা অলস বুদ্ধি প্রতিবন্ধীর নয়।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

1 + 3 =