কবিতা: আমরা কোনো ধর্মান্ধপশু নই

আমরা কোনো ধর্মান্ধপশু নই
সাইয়িদ রফিকুল হক

আমরা কোনো ধর্মান্ধপশু নই
আমরা শুধু মানুষ।
মানুষের রক্ত আমার দেহে
মানুষের সন্তান আমি,
আমি কেন হতে যাবো পাশবিক-পশু?
দলে-দলে ঘুরছে আজ মনুষ্যরূপীপশু,
এদের চিৎকারে আর ভয়াবহ তাণ্ডবে
পালিয়ে যাচ্ছে কোথায় মানুষ?
মানুষের সমাজ
আর মানুষেরই রাষ্ট্র,
এখানে থাকবে শুধু মানুষ,
পশুদের ভয়ে লেজগুটিয়ে পালায়
আজকে কোন কাপুরুষ?

আমাদের রাষ্ট্রে বেড়ে গেছে
শিয়াল-শকুনের সংখ্যা,
আর বন্য-বরাহগুলো
আসছে তেড়ে মানুষ দেখে!
মানুষের শহর তছনছ হচ্ছে
পাশবিক-পশুদের তাণ্ডবে,
মানুষ, আর কত সইবে এদের তাণ্ডব?
লোহার পিঞ্জরেও রাখা যাবে না এদের
আর দেওয়া যাবে না কোনো লঘুদণ্ড,
এদের একমাত্র শাস্তি এবার প্রাণদণ্ড।

এই রাষ্ট্র মানুষের বাসযোগ্য করতে
প্রস্তুত হও দৃঢ়চেতা মানুষ,
পশুদের বধ করতে গড়ে তোলো দুর্গ
আর মানুষের বুকে যারা আঘাত করে
সাজতে চায় ধার্মিক,
আর যারা মানুষহত্যা করে
পান করে ধর্মের শরাব!
এবার তাদের উপড়ে ফেলো শিকড়সুদ্ধ।
কেউ চেয়ে থেকো না কারও দিকে,
সত্যের আদেশ আজ দেখো সবখানে,
ছুটে এসো মানুষ, পশুবধে।
আমরা কোনো ধর্মান্ধপশু নই
আমরা মানুষের সন্তান মানুষ।

সাইয়িদ রফিকুল হক
মিরপুর, ঢাকা, বাংলাদেশ।
০৮/০৬/২০১৬

ফেসবুক মন্তব্য
শেয়ার করুনঃ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

40 − 37 =