বেছে বেছে হিন্দু পুরোহিত হত্যা: কিন্তু কি কারনে ?তারাও কি ইসলাম নিয়ে বাজে কথা বলেছে ?

গত তিন বছর ধরে ব্লগার হত্যা শুরু হয়েছে , বেশ কয়েকজন ইতোমধ্যে খুন হয়েছে , বাকীরা বিদেশে পালিয়ে বেচেছে। যখনই তাদেরকে হত্যা করা হয়েছে , তখনই সরকার বলেছে , ব্লগাররা ইসলাম নিয়ে বাজে কথা বলেছে, এভাবে ধর্মানুভুতিতে আঘাত দেয়া ঠিক হয় নি। যার একটাই অর্থ , ব্লগার হত্যায় কোন অন্যায় নেই। কিন্তু সম্প্রতি পুলিশ কর্মকর্তার স্ত্রীকে হত্যা করা হয়েছে , তারপর হত্যা করা হয়েছে কিছু হিন্দু পুরোহিত। এবার সরকার কি বলবে ? এরাও কি ইসলাম ধর্ম নিয়ে বাজে মন্তব্য করেছে ?

বর্তমানের ধর্মনিরপেক্ষ আদর্শের দাবীদার আওয়ামী লিগ যেভাবে মৌলবাদী মুমিনদেরকে তোষন করছে ও করে চলেছে , অতীতে বাংলাদেশে এমনটা কখনই দেখা যায় নি। তারা মুখে বলছে ধর্ম নিরপেক্ষ কিন্তু তাদের প্রতিটা কাজই ভয়াবহভাবে মৌলবাদী। তা যদি না হবে , তাহলে ধর্ম নিরপেক্ষ দেশে কিভাবে বাক স্বাধীনতা থাকে না ? কিভাবে তারা বলে যে ব্লগার নিহত হচ্ছে কারন তারা ধর্মকে কটাক্ষ করেছে। কিভাবে এসব হত্যাকে এভাবে পরোক্ষভাবে সমর্থন করে, আর কাদেরকে সন্তুষ্ট করার জন্যে এরকম নগ্নভাবে সমর্থন করে ? সরকার কি ভেবেছিল , মৌলাবাদী গোষ্ঠিকে এভাবে সন্তুষ্ট করলে তারা থেমে থাকবে ? তারা কি মনে করে , যে এভাবে মৌলবাদী গোষ্ঠিদেরকে সন্তুষ্ট করলে বা সারা দেশে নানা ওয়াজ মাহফিল আয়োজনে বিপুল সাহায্য করলে , বা টঙ্গী বিশ্ব এজতেমার আয়োজন ভালভাবে করলে বা মাদ্রাসা , মসজিদে বিপুল সাহায্য সহয়োগীতা করলে মৌলবাদীরা মনে করবে আওয়ামী লিগ একটা ইসলামী আদর্শের দল ? দেশের সাধারন মানুষরাও কি তাই মনে করবে ?

ব্লগাররা এখন সেয়ানা হয়ে গেছে। নিজেদের নাম ফুটানোর জন্যে আর নিজেদের পরিচয় ব্লগ বা ফেসবুকে তুলে ধরে না।তারা এখন সবাই ছদ্ম নামে সক্রিয়। মৌলবাদীরারা তাদেরকে আর খুজে পায় না। অগত্যা মৌলবাদীরা টার্গেট করেছে পুলিশের স্ত্রী, হিন্দু পুরোহিতদেরকে। এরপরেই শুরু করবে বেছে বেছে আওয়ামী লিগের নেতাদেরকে , তাদেরকে না পেয়ে তাদের স্ত্রী সন্তানদেরকে টার্গেট করবে। কারন মৌলবাদীদের শত্রু তারা সবাই যারা তাদের আদর্শকে অনুসরন করে না। শুধুমাত্র ব্লগাররা নয়।

সর্বশেষ খবর অনুযায়ী, ৩৫০০ জনের ওপর সন্দেহভাজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। কিন্তু তাদের অধিকাংশই বি এন পি ও জামাতের লোকজন। আর তাদের মধ্যে সম্ভবত একজনও এসব হত্যা কান্ডের জন্যে দায়ী নয়। তবে জামাতের মদদ থাকতে পারে । কিন্তু জামাত সরাসরি এসব হত্যাকান্ডে লিপ্ত না এটা বোঝাই যায়। তারা সেই সব আদর্শবাদী মৌলবাদীদের দ্বারা এসব হত্যা কান্ড ঘটাচ্ছে যারা চায় বাংলাদেশে আই এস বা তালেবান স্টাইলে খেলাফত প্রতিষ্ঠা হোক। কিন্তু সরকার স্বীকার করে না এদেশে তালেবান বা আই এসের অনুসারী আছে। আর সেখানেই আসল সমস্যা। যদি সঠিক ভাবে রোগ সনাক্ত করা না যায়, তাহলে কি রোগের চিকিৎসা করা যায় ?

আমি স্বীকার করব না দেশে তালেবান বা আই এসের অনুসারী আছে , অথচ দেশ থেকে জঙ্গি নির্মূল করব ,এটা হলো একটা বালখিল্যতা। এসব মৌলবাদী বা জঙ্গি এরা কিন্তু নিজেদের জীবনের পরোয়া করে না , এরা কিন্তু পুলিশের কাছে পেশাদার ক্রিমিনালও না। এরা সবাই আপনার আমার পরিবারের মধ্যেই বাস করে , মঙ্গল গ্রহ থেকে ঝুপ করে এসে পতিত হয় নি, সমাজে এদেরকে ভদ্র সজ্জন ব্যাক্তি বলেই সবাই জানে। শুধু জানে না , এরা মনে মনে কঠিন মৌলবাদী জঙ্গি যারা জীবনের পরোয়া করে না , আর তাদের আদর্শ বাস্তবায়নে নিজেদের জীবন বিসর্জন দিতেও এক মুহুর্ত দেরী করে না। তাদের জীবনের একটাই লক্ষ্য কিভাবে দেশে ইসলামী হুকুমত কায়েম করা যায়। মানুষকে বুঝিয়ে শুনিয়ে যদি সেটা সম্ভব না হয়, তাহলে জিহাদের পথ ধরেই সেটা করতে হবে , সেটা দেখিয়ে গেছেন স্বয়ং ইসলামের নবী মুহাম্মদ। সুতরাং সমাজে সজ্জন ভাল মানুষ হিসাবে পরিচিত অথচ মনের মধ্যে ভয়ংকর জঙ্গিবাদী, এসব মানুষকে কিভাবে পুলিশ ধরবে , কিভাবে সরকার এদেরকে সামলাবে ?

ফেসবুক মন্তব্য
শেয়ার করুনঃ

২ thoughts on “বেছে বেছে হিন্দু পুরোহিত হত্যা: কিন্তু কি কারনে ?তারাও কি ইসলাম নিয়ে বাজে কথা বলেছে ?

  1. এসব মৌলবাদী বা জঙ্গি এরা

    এসব মৌলবাদী বা জঙ্গি এরা কিন্তু নিজেদের জীবনের পরোয়া করে না , এরা কিন্তু পুলিশের কাছে পেশাদার ক্রিমিনালও না। এরা সবাই আপনার আমার পরিবারের মধ্যেই বাস করে , মঙ্গল গ্রহ থেকে ঝুপ করে এসে পতিত হয় নি, সমাজে এদেরকে ভদ্র সজ্জন ব্যাক্তি বলেই সবাই জানে। শুধু জানে না , এরা মনে মনে কঠিন মৌলবাদী জঙ্গি যারা জীবনের পরোয়া করে না , আর তাদের আদর্শ বাস্তবায়নে নিজেদের জীবন বিসর্জন দিতেও এক মুহুর্ত দেরী করে না। তাদের জীবনের একটাই লক্ষ্য কিভাবে দেশে ইসলামী হুকুমত কায়েম করা যায়। মানুষকে বুঝিয়ে শুনিয়ে যদি সেটা সম্ভব না হয়, তাহলে জিহাদের পথ ধরেই সেটা করতে হবে , সেটা দেখিয়ে গেছেন স্বয়ং ইসলামের নবী মুহাম্মদ। সুতরাং সমাজে সজ্জন ভাল মানুষ হিসাবে পরিচিত অথচ মনের মধ্যে ভয়ংকর জঙ্গিবাদী, এসব মানুষকে কিভাবে পুলিশ ধরবে , কিভাবে সরকার এদেরকে সামলাবে ?

    অালহামদুলিল্লাহ ভাল বলেছেন, সত্যই একেই বলে মুসলমান

  2. আপনি বলছেন “আমাকে গালিদেয়ার
    আপনি বলছেন “আমাকে গালিদেয়ার অধিকার তোমাকে দেয়া হল,কিন্তু নবীকে নয়,আমার ভুল আছে,কিন্তু ইসলামে নেই।”

    তাইলে গালি দেইঃ তুই ব্যাটা শামীম একটা বলদ, নাফরমানী করছস আমাদের সুমহান, আদর্শবাদী নবীর কথা অমান্য কইরা। নবীর কথামত তুই ব্যাটা শামীম হারামজাদা বৎসরে একবার কইরা জিহাদ যাস না, তর কি উচিৎ না প্রতি বছর অন্তত একবার কইরা হইলাও জিহাদ এ যোগ দেওয়া? কোরান হাদিস কিছু পড়স ব্যাটা? পড়া দেখ, খুইজা দেখ, চোখ কান বন্ধ রাখলে চলবো?

    তুই ব্যাটা শামীম বিধর্মী মারোছ না, এইটা কি ঠিক ব্যটা? শালা বোকাচোদা তুই কোরান ের আয়াতগুলা পড়ছ ঠিকমত? সন্মানিত নবীর আদেশ পালস করছ? করছ না … তাই না? এম্নে করলে চলবো হালায়?

    হুন বাঞ্চত, মহান নবীর আদেশ, নির্দেশ ঠিক ঠাক মত পালন করবি। তারপর ইসলাম নিয়া কথা কইবি ।

    তো এই হইল ভাই, মুটামুটি গালী দ্বা শেষ। দেখুন, আমি কিন্তু ব্লগ এর কোন নিয়ম ভঙ্গ করিনাই। আপনার কথামতই আপনাকে গালী দিয়েছি। এবং আপনার নবীকে পূর্ণ সন্মান প্রদান করেছি। কি, ঠিক না ভাই?

    ভাল থাকবেন। আর ইসলাম নিয়ে একটু পড়াশুনা করবেন যদি সম্ভব হয়।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

68 + = 75