প্রেমপত্র-৮২

মাধবীলতা
তোমার সাথে থাকব বলে বন্দী করেছি কিছু বেয়াড়া ইচ্ছে।চোখ বন্ধ করে প্রহর গুনছি এক অলস দুপুরে।তোমার সাথে কাটানো এক মহাকাল আমি বাক্সবন্দি করে রাখছি।বুড়ো বুড়ি বয়সে এই সময়গুলোর গল্প আমি করে যাব কচি কাচাদের সাথে।তুমি আছ বলে গুলশান থেকে কমলাপুরের পাঁচ ঘন্টার বিরক্তিকর ভ্রমন আমি হাসি মুখে পার করে দি অহর্নিশ।এই সস্তাজীবনে যদি মারা যাই হঠাৎ তাবে শুধু একবার তুই স্বীকার করো,আমি তোমাকে যতটা ভালোবাসি এর থেকে আর বেশি পারবেনা কেউ বাসতে।
এই একলা প্রহরে আমার ভুলের শহর,দিকছিন্ন হীন আমার যৌবনে,আমার আবেগ,তোমার নিশ্চুপতা,লজ্জা মাখা প্রথম মুখ অতঃপর হেঁটে যাই আমি মহাকাল পথে আগস্ত যাত্রা।শুরু তোমার সাথে,শেষ টাতেও তুমি, তোমারই তরে হৃদয়ের এই কম্পন।আমি শুধু তোমায় এতটুকু বলি,আমি তোমার সম্মান কে সম্মানিত করব সবসময় , এতটুকু বলতে পারি আমার কাছে তুমি সবচেয়ে বেশি নিরাপদ ও স্বস্তি বোধ করবে যেমন তোমার প্রথম আদর্শ বাবার কাছে থাকলে করো , তোমার ঠোটের চেয়ে আমার কাছে কপালের টিপ ও চোখের কাঁজল বেশি আকর্ষণীয় হবে সর্বদা।আমি তোমাকে সামাজিক মর্যাদা দেবার সাহস রাখি।সমাজের মুখের উপর বলেতে পারি “আমি সামাজিক ভাবে এই পাগলীকে মানে তোমাকে গ্রহণ করছি । সীমাহীন প্রাচুর্য দিতে না পারি,আমি দেখতে আতটা ভাল না হতে পারি,সমস্ত জীবন তোমার নামে লিখে দিব,যেমনটা এখন থাকি তোমাকে পাওয়ার প্রার্থনায়।আনন্দের সমুদ্র না হোক,অন্তত অশ্রু নদী শুষে নেব সবসময় ।আমি এতটুকুই বলতে পারি তোমাকে তোমার পরে যে মেয়েটিকে আমি ভালবাসব সে তোমাকে মা বলে ডাকবে আর তোমার আগে সে মেয়েছিকে আমি ভালবেসেছিলাম সে তোমাকে বৌমা বলে ডাকবে কথা দিলাম।
বুঝলে কত যে পাগলামী করি তোমাকে নিয়ে,আচ্ছা এমন যদি হত মাঝরাতে হঠাৎ ফোন দিয়ে তুমি রিসিভ করবে,আর রিসিভ করেই শুনতে
পাবে চিৎকার রাগ আবোলতাবোল বকা পাজি,ফাজিল,হারামী আমাকে কষ্টে রেখে নিশ্চিন্তে ঘুমাচ্ছ তাইনা?আমি তোমাকে খুন করে ফেলবো শয়তানি।তুমি শুধু আমার আমি তোমাকে আর কারো হতে দিবনা।আর যদি হও গুলি করে মারব তোমায় তারপর আমি আত্মহত্যা করব।
অথবা যদি হঠাৎ কোনো একদিন ব্যস্ত রাস্তায় দেখা হয়ে যাওয়ার পর
হাতটা ধরে হেচকা টান দিয়ে বুকে জড়িয়ে ধরে বলি খুব ভাব হয়ে গেছে না তোমার আমাকে কষ্ট দিয়ে দিব্বি তো টৈ টৈ করে বান্ধবী নিয়ে ঘুরছ এখন দেখি কত্তো বড় সাহস আমার কাছ থেকে দূরে যাও,তোমাকে এভাবেই সারাজীবন বুক পাজরের মাঝে জোড় করে আটকে রাখবো।
বিশ্বাস করো এমন অদ্ভুত বকা,আর সবার সামনে হাতটা ধরে হেচকা
টানে যদি আমার জেলে যেতে হয় তবুও আমি তোমাকে একজীবন করাদন্ডের বিনিময়ে ভালবেসে যাব। এভাবেই প্রতি রাতে আমি প্রায় সারা রাত জেগে কাটিয়ে দেয় এই ভেবে যে-হয়তো কোনো একদিন
আমার তুমি আমার ভালবাসা বুঝতে পেরে দৌড়ে আমার কাছে আসবে সব কিছু দুমড়ে মুচড়ে। আর কিছু বকা আর অভিমানী অশ্রু দিয়ে ঝাপটে ধরে বলবে এতদিন কোথায় ছিলে।
আমি এমন করি কেন জানো?কারন আমি সেই মানুষ যার কাছে পৃথিবীর সব গান সব কবিতা থেকেও আলাদা একটা শব্দ চয়ন মধুর লাগবে যদি তুমি সেটা বলো আর ছোট্র একটি শব্দটি হলো “ভালবাসি”।
আমি চাই তুমি আমায় বুঝতে পেরে ছুটে আস,কারন তুমি নামক সেই সত্ত্বাটি আমার আত্মার গভীরে মিশে গেছ ।প্রতিটি বিশ্বাসে ,প্রতিটি নিঃশ্বাসে , তুমি আছো এ মনে , তুমি আছো এ হৃদয় জুড়ে।তোমাকে পাওয়ার জন্য আমি তপস্যা করে যাব জন্ম থেকে জন্মান্তর শুধু তোমারই নামে,তোমার নামে শপথ করে বলছি।
ইতি
অনিমেষ

ফেসবুক মন্তব্য
শেয়ার করুনঃ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

66 − 58 =