অনাগতের কাছে খোলা চিঠি

আমার প্রিয় অনাগত সন্তান,

তিনি লিখেছেন তার ভালবাসা দরকার..!
তার সত্য…!
এবং গরম ভালবাসা দরকার….!

এখানে আমি আজ সত্যই চিন্তা করে পাই না তার কাছে তো ভালবাসা বলতে তো শুধু প্রমান….!
তার কাছে ভালবাসা বলতে তো প্রতিযোগিতা…
তার কাছে ভালবাসা বলতে শুধু টাকা…!

তা হলে তার সত্য ভালবাসা বা ভালবাসার কি দরকার…?

তিনি যদি তার বেডরুমের কথা অন্য কারো কাছে শেয়ার করে এতো মজা পায় তবে আমার আর কিছুই বলার নেই।

কেউ যদি তোমার মায়ের কাছে বলে আজ তোমার জামাই এসেছে সে তোমার কাছে থাকবে একটু সাবধানে ও বাচ্চা নিয়ে ফেলতে পারে তা হলে আমাদের সাথে আর একটা আপদ বাড়বে তা হলে তোমার সেই মায়ের কাছে আমার নিজেকে প্রমান করে না থাকার জন্য তুমি আমাকে অপরাধী করবে না তো ….?

আর তার পরে যদি তোমার মায়ের ব্যাগ থেকে একটি পিলের প্যাক খুজে পাওয়া যায় এবং সেটা যদি সেই পুরুষের কিনে দেওয়া হয় তবে তুমি কি ভাববে…?

আমি বাবা হবে কিনা সেটা তোমার মা কে বলবে অন্য একজন তবে সেই সম্পর্কের কি লাভ বলো….?

এটাকে কি তুমিও স্বাধিনতা বলবে..?
আমি জানি না…!
কিন্তু আমার তো এতোটুকু গুরুত্ব ছিলো না তোমার মায়ের কাছে, তবে বলো সেই বাধনে জরিয়ে থাকার কি মানে।

আমি তো কখনো ভাল স্বামী হতে পারলাম না কিন্তু তাই বলে তোমার ভাল বাবা হতে বাধা কোথায়..?
আমি চেয়েছি তোমার ভাল বাবা হতে, তোমার মা আমাকে একদিন মেসেজ দিয়ে বলেছিলো বাবু আমার পিরিয়ড হচ্ছে না আমি মনে হয় মা হয়ে যাচ্ছি সত্য কথা বলতে আমার আয়োজনের কমতি ছিলো না তোমার জন্য কিন্তু সে বলেছিলো তুমি তো বাচ্চার কথা শুনলে পালিয়ে যাবে তবে তাকে জন্ম দিয়ে কি লাভ।
তুমি বলো তোমার জন্মের মাঝেও কি তোমার মায়ের লাভ ক্ষতির হিসাব করাটা কতটা ঠিক ছিলো…?

আমি গিয়েছিলাম প্রমান করতে তার কাছে কিন্তু আরো কিছু জানার ছিলো। বসে ছিলাম সেটুকু জানার জন্য।
জেনেও গেলাম, তোমার মমা যা যা প্রমান চেয়েছিলো ব্যাগে সব ছিলো।
কিন্তু সব কিছু জানার পরে তোমার মাকে দেখানোর মতো ইচ্ছেটা ছিলো না কারন তখন তোমার মায়ের শিরায় বাস করছে অন্য কারো ভালবাসা।
তবে কি তুমি ববলবে আআমি ভালই বাসতে পাররিনি..

তোমার মাকে সত্যই সে দিন মিথ্যা বলেছিলাম আমাকে যা মনে করতো তাই বলেছিলাম।
কারন আগের রাতটা তার কেটেছিলো আমার থেকে দামি সেই পুরুষের কাছে।
তোমার মাকে প্রমান না দেওয়ায় সে বলেছিলো আমি কাল রাতে রুদ্রের সাথে কাটিয়েছি।

এর পরেও কি বলবে আমি অন্যায় করেছি…?

আমি তোমার মায়ের জন্য নিজেকে শেষ করে দিতে পারতাম(তখন) কিন্তু আমার অনাগত সন্তানকে শেষ করে দেবার কি যৌক্তিকতা ছিলো আমার…?

কি অধিকারে আমি তোমাকে শেষ করতাম….!

আমি শিপে উঠলে তোমাকে তোমার মায়ের কাছে রেখে যেতাম কিন্তু তুমি মানতে পারতে অন্যপুরুষের সেই আনাগোনা…?

আমি তোমার মাকে ধরে রাখতে পারিনি, তোমার মা ওদের সাথে মিলে যা করতে চাইছে তাই করুক আমি আগেও যেমন বাধা দেইনি আজো দেবো না।

শুধু এটুই বলবো তোমাকে দেখার জন্য প্রতিদিন একটা
আকন্ঠ লালসা নিয়ে জীবনকে পান করে বেচে আমি।

ইতি,

ইতিতে ভাল কিছু লিখতে হয় নিন্তু জন্মের পরে তো তোমার মা আমাকে তোমার সাথে পরিচয় করিয়ে দিতে তাই সেই পরিচয়েই,

কুত্তারবাচ্চা,হারামজাদা,চোর,মিথ্যুক,বাটপার,অশিক্ষত,
টোকাই তোমার বাবা।

ফেসবুক মন্তব্য
শেয়ার করুনঃ

৬ thoughts on “অনাগতের কাছে খোলা চিঠি

  1. আমি জানি না এটা আপনার জীবনের
    আমি জানি না এটা আপনার জীবনের কথা কি না। তবু বলবো এভাবে নিজিকে নষ্ট করে দেওয়ার কথা ভাববেন না। একটু ভাবুন। ভাল থাকুন।

    1. আমি ভাল থাকার চেষ্টা করলেও
      আমি ভাল থাকার চেষ্টা করলেও থাকবো না।
      মানুষ কিছু আশা নিয়ে বেচে থাকে আর আমার তো কোনো আশাই নেই।
      হু এটা আমার জীবনের কথা।

        1. চেষ্টা করার জন্য বেচে থাকাটা
          চেষ্টা করার জন্য বেচে থাকাটা জরুরী।
          কিন্তু আমি আর এভাবে চলতে পারবো না, সব কিছুর একটা শেষ আছে হয়তো আমারো অন্তিম সময় সহ্মুখে তাই আমাকেও পাড়ি জমাতে হবে অতল গভীরে।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

2 + 6 =