মুসলমান হয়ে কি মুসলমান হত্যা করা বৈধ?

পৃথিবীর সবচেয়ে হিপোক্রেট জাতি সম্প্রদায়ের মধ্যে বাঙালি মুসলিম অন্যতম। ফিলিস্তিনিদের কষ্টে এরা ব্যথিত হয়, চোখের পানি ফেলতে ফেলতে সমুদ্রে ঝড় তোলে। কিন্তু নিজ দেশে সংঘটিত মৌলবাদের বিরুদ্ধে সোচ্চার হতে চায় না। সিরিয়া আক্রমণে তারা উন্মাদ হয়ে উঠে কিন্তু বাঙলাদেশ রণক্ষেত্রে পরিণত হলেও খুব সাধারণ বোধ করে। ইসরায়েলকে ধ্বংস করার স্বপ্নে একেকজন জীবন দিতে প্রস্তুত অথচ বাঙলাদেশকে রক্ষা করার জন্য তাদের ভূমিকা নেই।

খ্রিষ্টান যখন মুসলমানদের হত্যা করে তখন তাদের খুব কষ্ট লাগে; রাগান্বিতবোধ করে। হিন্দু ও বৌদ্ধ যখন মুসলমান হত্যা করে তখন তারা বিধ্বংসী হয়ে উঠে, কিন্তু পৃথিবীজুড়ে মুসলমান যখন মুসলমানদের হত্যা করেই চলে সে বিষয়ে তারা চোখ কান মুখ বন্ধ করে রাখে। তবে কি মুসলমান হয়ে মুসলমান হত্যা করা বৈধ?

যে কোন নির্যাতিত মানুষের পাশে দাঁড়াতেই হবে। সেটা ফিলিস্তিন, সিরিয়া কিংবা ইসরায়েলই হোক না কেনো! প্রতিবাদ করতেই হবে কিন্তু পূর্বে নিজ মাতৃভূমির দিকে লক্ষ্য রাখা জরুরি ও প্রয়োজন। ধর্ম যতদিন মানুষের ঊর্ধ্বে, রক্ত ততো ঝরবে। সর্বপ্রথম মানবতাকে প্রাধান্য দিতে হবে,পরবর্তীতে ধর্ম ।

ফেসবুক মন্তব্য
শেয়ার করুনঃ

২ thoughts on “মুসলমান হয়ে কি মুসলমান হত্যা করা বৈধ?

  1. মদিনায় হামলা হল, কিন্তু সিবার
    মদিনায় হামলা হল, কিন্তু সিবার মুখে চুপ!
    এই হামলা যদি অন্য ধর্মের লোক করতো!!! তাহলে…. একটু চোখ বন্ধ করে কল্পনা করুন!!

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

1 + = 5