ইসলামকে বিশ্বের সবচেয়ে শান্তির ধর্ম ঘোষণা করল ইউনেস্কো…

ইসলামকে বিশ্বের সবচেয়ে শান্তির ধর্ম ঘোষণা করল ইউনেস্কো
ইসলামকে বিশ্বের সবচেয়ে শান্তির ধর্ম ঘোষণা করল ইউনেস্কো

ইসলামকে বিশ্বের সবচেয়ে শান্তির ধর্ম বলে ঘোষণা করেছে জাতিসংঘের শিক্ষা, বিজ্ঞান ও সংস্কৃতি বিষয়ক অঙ্গসংগঠন ইউনেস্কো (UNESCO)। গত ৭ জুলাই এ সম্পর্কিত একটি বিবৃতি প্রকাশ করে ইউনেস্কো।

এর আগে ইউনেস্কো ইন্টারন্যাশনাল পিস ফাউন্ডেশন-এর সঙ্গে যৌথভাবে বিশ্বের সবগুলো ধর্ম নিয়ে গবেষণা চালায়। ওই গবেষণার মূল উদ্দেশ্য ছিল বিশ্বের সবচেয়ে শান্তিপূর্ণ ধর্ম কোনটি তা খতিয়ে বের করা।

এক সংবাদ সম্মেলনে ইন্টারন্যাশনাল পিস ফাউন্ডেশনের তুলনামূলক গবেষণা বিভাগের প্রধান রবার্ট

ম্যাকগি বলেন, ছয় মাসব্যাপী গভীর গবেষণা ও বিশ্লেষণের পর আমরা এই উপসংহারে উপনীত হয়েছি যে, ইসলামই বিশ্বের সবচেয়ে শান্তির ধর্ম। সংবাদ সম্মেলনে ইউনেস্কোর কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

সম্প্রতি ঢাকা ও বাগদাদের সন্ত্রাসী হামলাসহ ইসলামের নামে চালানো সন্ত্রাসী হামলাগুলোর সঙ্গে ইসলাম ধর্মের কোনো যোগ নেই বলেও মন্তব্য করেছেন ইউনেস্কো কর্মকর্তারা। তারা বলেন, সন্ত্রাসবাদের কোনো ধর্ম নেই। ইসলামের অর্থ শান্তি।

এদিকে, বিশ্বের বড় বড় রাজনৈতিক ও ধর্মীয় নেতারা ইউনেস্কোর এই সনদ ও ঘোষণাকে স্বাগত জানিয়েছে। তিব্বতের ধর্মীয় নেতা দালাইলামাও অন্যান্য ধর্মগুলোকে ইসলামের কাছ থেকে শান্তির শিক্ষা গ্রহণ করতে বলেছেন। আর কী করে অহিংস এবং অপরের প্রতি সহনশীল থাকা যায় সে চেষ্টাও করতে বলেছেন।

এদিকে, অনেক ইসলামী পণ্ডিতের মতে, ইসলাম আগে থেকেই শান্তির ধর্ম এবং বিশ্বসেরা ও সর্বশেষ ধর্ম হিসেবে পরিচিত ছিল। সূতরাং ইউনেস্কোর এই ঘোষণার কোনো দরকার ছিল না। এতে বরং বিষয়টি নিয়ে নতুন করে বিতর্ক বাড়বে।

তবে ইউনেস্কো ঘোষাণা করছে কি না সঠিক জানিনা,তবে ওরা ঘোষনা করাও লাগবেনা ইসলাম শান্তির ধর্ম এটা চিরন্তর সত্য।

ফেসবুক মন্তব্য
শেয়ার করুনঃ

৭ thoughts on “ইসলামকে বিশ্বের সবচেয়ে শান্তির ধর্ম ঘোষণা করল ইউনেস্কো…

  1. যে সংবাদ ভুঁয়া বলে ইতিমধ্যে
    যে সংবাদ ভুঁয়া বলে ইতিমধ্যে প্রমাণিত সব মিডিয়া এই সংবাদ মিথ্যা হওয়া সরিয়ে নিয়েছে, সেই মিথ্যা সংবাদ আবার উপস্থাপনের উদ্দেশ্য কি? ইসলাম আসলেই এই ধরনের মিথ্যার উপর ভিত্তি করেই টিকে আছে। দুনিয়ার বলদ সব মুসলিম! অসহ্য এদের আচার-আচরণ!

    1. মাথামোটার মতো কথা বলেন কেন?
      মাথামোটার মতো কথা বলেন কেন? নিজে একটু বিশ্লেষণ করলে তো বুঝতে পারেন।
      ধর্ম গ্রন্থের অনুশাসন গুলো মিলিয়ে দেখুননা..

      1. আমি আপনাকে বলতেছি, ইউনেস্কো
        আমি আপনাকে বলতেছি, ইউনেস্কো ইসলামকে শান্তির ধর্ম ঘোষনা করছে এটা যে মিথ্যা সংবাদ সেটা কি জানেন? এটি একটি স্যাটায়ার সাইটের ট্রল করা সংবাদ। সেই সংবাদকে আপনি শেয়ার করতেছেন ইসলাম মহান ধর্ম বলে। মাথা মোটা কার? আপনার না আমার? আপনি প্রমাণ দিতে পারবেন ইউনেস্কো এমন কোন ঘোষনা দিয়েছে? মিথ্যা সংবাদ ঘোষনা দিয়ে আমাকে মাথামোটা বলতেছেন? প্রমাণ করে দেখিয়ে দেন মাথামোটা কার? না হয় এখান থেকে ক্ষমা চেয়ে যেতে হবে মিথ্যা সংবাদ শেয়ারের জন্য। ইসলাম এই ধরনের মিথ্যার উপর ভিত্তি করেই চলছে।

          1. হাহাহাহা, আপনি এখন এডিট করে
            হাহাহাহা, আপনি এখন এডিট করে দিয়ে আমাকে উল্টা বোকা বানাচ্ছেন? এই ধরনের অসততা আপনার মত ধার্মিকদের পক্ষেই সম্ভব। ভুল মানুষের হতেই পারে। প্রথম মন্তব্যে সহজভাবে বিষয়টা স্বীকার করার মত সততা আপনাদের মধ্যে নাই। এজন্যই আপনারা ধার্মিক। আপনার এই অসততার প্রতি তীব্র ঘৃণা জানালাম। আশাকরি ইস্টিশনের মডারেট প্যানেল বিষয়টা লক্ষ্য করেছেন।

          2. আমার এডিট করার এগের পেরা কি
            আমার এডিট করার আগের পড়া কি পড়েন নি?
            “”ইসলাম আগে থেকেই শান্তির ধর্ম এবং বিশ্বসেরা ও সর্বশেষ ধর্ম হিসেবে পরিচিত ছিল। সূতরাং ইউনেস্কোর এই ঘোষণার কোনো দরকার ছিল না। এতে বরং বিষয়টি নিয়ে নতুন করে বিতর্ক বাড়বে””

  2. আমার এডিটের আগের অংশ পড়েননি?
    আমার এডিটের আগের অংশ পড়েননি? নাকি না দেখার বানধরেছেন। নিছে দেওয়া অংশটুকু পড়লেতো হয়।

    “”ইসলাম আগে থেকেই শান্তির ধর্ম এবং বিশ্বসেরা ও সর্বশেষ ধর্ম হিসেবে পরিচিত ছিল। সূতরাং ইউনেস্কোর এই ঘোষণার কোনো দরকার ছিল না। এতে বরং বিষয়টি নিয়ে নতুন করে বিতর্ক বাড়বে””

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

6 + 2 =