যত আছে কাতরতা

এক লক্ষ্ণী প্যাঁচা তারস্বরে চেঁচায় শিমুলের ডালে
জানিয়ে দিতে নির্বাক রাত্রির দুঃখ -ব্যথা
ও দেখেছে যামিনীর কাতরতা
আর শুনেছি আমি….
অভিমানীর হৃদে পাথর চাপানো যত উপকথা।

ও নিশী, দুঃখ করো না
প্রকৃতি ছলনাময়ী তাও তো রেখেছে ভাষা
সরব,নীরব দুভাবেই ব্যক্ত তোমার অপূর্ণ সব আশা।

আমার কথা ভাবো,
মুখে বালিশ চেপে আটকানো হাউমাউ কান্না
কী তার মূল্য !
নীরবে জন্মেছে যে অশ্রুনদী
আছে তার কোন উপভাষা!

আমি জানি….
কতোটা অভিমানে তুমি হয়েছো অবগুণ্ঠিতা
আমারো সময় হয়েছে,কী লাভ প্রকাশি কাতরতা!

চেয়েছি সহজ জীবন-স্ফটিকের স্বচ্ছতা,
আর হীরকসম উজ্জ্বল দ্যোতি;
হন্যে হয়ে খুঁজেছে অস্থির মতি
কোথাও ঝলক দেয়নি এক চিলতে রোশনাই
এতোকাল পরে জানলাম –
মোর হৃদয়ে কোন আলো নাই।

০৬-০৭-১৫

ফেসবুক মন্তব্য
শেয়ার করুনঃ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

16 − = 15