মডারেট মুসলিম ও মাক্কাল ফল তত্ত্ব

মডারেট মুসলিম ও মাক্কাল ফল দুইটা দুই ধরনের বস্তু হলেও এদের সাদৃশ্যতা বাড়াবাড়ি রকমের এক। তার আগে বলে নেওয়া ভালো এই মাক্কাল ফলটা কি। মাক্কাল ফল মক্কার কোন ফল নয়, যদিও এর নাম আর গুনের সাথে এর মিল যথেষ্ট। মা, নানা-নানীর কাছে শোনা-মাক্কাল ফল দেখতে খুব সুন্দর এবং আকর্ষণীয় কিন্তু খেতে ততোধিক কুৎসিত এবং বিষাক্ত। বাংলায় অঞ্চলভেদে এর নাম ভিন্নতর হতে পারে খুব স্বাভাবিক ভাবেই। যে কথা বলছিলাম আরকি- এই মাক্কাল ফলের সাথে আজ কালের মডারেট মুসলিমদের মিল খোঁজার চেষ্টা করা খুবই প্রাসঙ্গিক হয়ে পড়েছে ।

এক॥ দেখতে সুন্দর
এরা দেখতে সুন্দর হয়। নারী পুরুষ নির্বিশেষে অধিকাংশ ক্ষেত্রেই ক্লিন সেভড্, স্যুটেড-ব্যুটেড হয় এবং এদের মন সবসময় আরাবিক আলখেল্লা পরে গলায় ইয়াসীর আরাফাত স্টাইলে বান্দানা চাপিয়ে ফিলিস্তিনের পক্ষে স্লোগানের বেশী কিছু না করতে পারসে জন্য বুকের এক কোণে চিন্ চিনে ব্যাথা অনুভব করে।

দুই॥ ক্ষতিকর
এরা মাক্কাল ফলের মতো ক্ষতিকর।দড়ি টানাটানির মধ্যে কিছু লোক যে রকম টানার ভান করে, এরাও তেমনই মধ্যযুগীয় বর্বর আদর্শ ও বর্বরতার বিরুদ্ধে যাওয়ার ভান করে।

তিন॥ ভুল ধারনা
এরা সাধারণ মুসলিমদের মধ্যে ভুল ধারনার সৃষ্টি করে। হাজার হলেও এরাই সাংবাদিক হয়ে লক্ষ কোটি মানুষের কাছে পৌছায় সকালের আলো ফোটার আগে, দিন শেষে টিভি চ্যানালের জ্বালাময়ী আলোচনায়, বিজ্ঞানের শিক্ষক হয়ে কোরানে বিজ্ঞানের উৎস সন্ধানে।

চার॥ ছদ্দবেশ
এরা ছদ্দবেশী শয়তান।মাক্কাল ফলের মতই এরা ছদ্দবেশের আড়ালে সাধারণ মুসলিমদের শিলা দেয় দহজেই।কি জানি এটাই কি সেই তথাকথিত “ত্যাকীয়া” বা “ধিম্মি”।মাঝে মাঝেই প্রশ্ন জাগে এই ত্যাকীয়া কি প্রাতিষ্ঠানিক মগজধোলাইকরন থেকে আসে না “এত দিন যা জেনে আসলাম তার সবই ভূল” এই ধরনের সংশয়বাদীতা থেকে আসে?

পাঁচ॥ বিভেদকারী
এদেরকে আমি বলবো গ্রেট ডিভাইডার। এরা কোরানের অনুবাদ বাংলায় করলে অস্বীকার করে, রেফারেন্স চেয়ে কান ঝালাপালা করে, আক্ষরিক-ভাব অনুবাদের ধোঁয়া তোলে, প্রেক্ষাপটের জিগীর তুলে এর প্রাসঙ্গিকতা নিয়েই প্রশ্ন তুলে এরিয়ে যাওয়াকেই শ্রেয় মনে করে।

ফেসবুক মন্তব্য
শেয়ার করুনঃ

১ thought on “মডারেট মুসলিম ও মাক্কাল ফল তত্ত্ব

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

7 + = 15