শুধু তোমাকে দেখব

তোমার মুখখানা যদি ঝলসানো হয়-ঐ চোখ দুটো ভালবাসব,
দীঘির জলে পদ্মপাতায় সারাটা দূপুর ভাসব।
তোমার দেহ যদি ওগো ধর্ষিত হয় মনটা ভালবাসব,
যখনি স্মরণ করবে আমায়-ছুটে কাছে ওগো আসব।

নগ্ন দু’পায়ে আঙ্গোট হয়ে শিউলী জড়িয়ে রাখব,
আলতা দিয়ে রাঙ্গিয়ে দু’পা মায়ার বাঁধনে বাঁধব।
ব্যর্থ যদি হয় জীবন তোমার-বঞ্চনায় কাটে কাল,
অফুরন্ত সময় দেব ওগো তোমায়-হাওয়ায় উড়াব পাল।

অস্থিরতা,কাতরতা,ব্যাথায় আমাকেই পাবে কাছে,
জেনে রেখো ওগো মহীয়সি,কেউ-তোমার জন্য বাঁচে।
তোমার ঐ অধর জুড়ে যদি না থাকে হাঁসি,হাঁসি জমা করে রাখব,
চাঁদনী রাতে মুখোমুখি বসে শুধু তোমাকেই দেখব।

জীবনের মাঝপথে এসে যখন হবেগো একা,
আমি সে পথ এগিয়ে নেব আঁকব জীবন রেখা।
তোমার কথাগুলো যদি অগোছালো হয় ফুলের মালায় গাঁথব,
হ্রদয়ের ক্যানভাসের মনের তুলিতে তোমারি ছবি আঁকব।

ফেসবুক মন্তব্য
শেয়ার করুনঃ

৫ thoughts on “শুধু তোমাকে দেখব

  1. ‘তোমার কথাগুলো যদি আগোছনা হয়,
    ‘তোমার কথাগুলো যদি আগোছনা হয়, ফুলের মালায় গাঁথব’। এই ভালবাসা ছড়িয়ে পড়ুক সীমানাহীন ভাবে।

  2. ভাই কবিতা অনেক জটিল সাহিত্যিক
    ভাই কবিতা অনেক জটিল সাহিত্যিক ধারা…
    ৩-৫ বছর নিজের কবিতা না ছিঁড়লে সাধারন কবি হয়ে উঠার প্রত্যাশীদের কবিতা পাবলিক করা উচিৎ না!! কবিতা মানে ছন্ধ নয়, কবিতায় কাব্য থাকতে হয়!
    আমি নিরাশ করছি না আত্ম-সমালোচক হতে বলছি…
    কজনেই বা সাহস করে কবিতা লিখার!! :আমিকিন্তুচুপচাপ: :আমিকিন্তুচুপচাপ: :আমিকিন্তুচুপচাপ:

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

84 − = 74