অনুকাব্য

অনুকবিতা-১

কার রক্তমাখা সিঁদুরে রঙিন তোমার সিঁথি?
আমার পোড়া কপাল
আমি ঘাটের মড়া
তুমি পুণ্যবতী।
জানিনা ঐ লাল সিঁদুরে জ্বাললো আগুন কারা!
আমি রাত দুপুরে জাগি,
হোঁচট খাই আর হাঁটি-
কেবল তুমি ছাড়া!

অনুকবিতা-২

প্রীয়তমা,
একবার এ ঠোঁটে ঠোঁট রেখেই দেখনা-
বিপুল তৃষ্ণা নিয়ে বসে আছি
দ্বন্দ্বময় গদ্যে!

প্রিয়তম,
সময় বুঝে একদিন নিয়ে যেও বালুকাবেলায়-
সমুদ্রকে­ সাক্ষী রেখে ঠোঁটে ঠোঁট চেপে
মিটিয়ে দিব সব তৃষ্ণা।

অনুকবিতা-৩

এই অখণ্ড ঘুমের খাতা,
স্বপ্নে খসড়া বই,
পরীদের আঙুলের ছাপ,
রুপোর মুদ্রার মতো
নেমেছে অঝোর বৃষ্টি।
এই মেঘের
সৌরভে বুঝি দূরে ভেসে যায়,
ঠিকই জানি-
বেঁচে থাকা শুধু এই ঘুম আর
স্বপ্নের মহড়া।

অনুকবিতা-৪

তোর খোঁজে পরবাসী,
রাত জাগে জোৎস্না।
দুপুরবেলা ঝুম বৃষ্টি
সাঁঝবেলা নাগরিক কোলাহলে ছাড়খার!
একলা আকাশ
একটুকরো মেঘ
একটা ডেউ ভাঙা গান।
……..ভালো থাকিস

ফেসবুক মন্তব্য
শেয়ার করুনঃ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

44 + = 53