আরো অনেক পথ পাড়ি দিতে হবে আমাদের

প্রতিদিনই বিশ্বের কোনো না কোনো প্রান্তে বাংলাদেশী ছিনিয়ে নিচ্ছে সাফল্যের মুকুট। এ অগ্রযাত্রায় সব থেকে বড় ভূমিকা পালন করেছে অশিক্ষিত কৃষক, পোশাক শ্রমিক, প্রবাসী শ্রমিকেরাই। সরকারি প্রতিষ্ঠান যেখানে ব্যর্থ, সেখানে বেসরকারি প্রতিষ্ঠান দেখিয়েছে সাফল্য। যুক্তরাষ্ট্র তাদের সমীক্ষায় বলছে, ২০৩০ সাল নাগাদ ‘নেক্সট ইলেভেন’ সম্মিলিতভাবে ইউরোপীয় ইউনিয়নের ২৭টি দেশকে ছাড়িয়ে যাবে। লন্ডনের একটি শীর্ষস্থানীয় পত্রিকা লিখেছে, ২০৫০ সালে প্রবৃদ্ধির বিচারে বাংলাদেশ পশ্চিমা দেশগুলোকে ছাড়িয়ে যাবে। বিশ্বের নামকরা রেটিং বিশেষজ্ঞ সংস্থা মুভিস ও স্ট্যান্ডার্ড অ্যান্ড পুওরস কয়েক বছর ধরে বাংলাদেশকে সন্তোষজনক অর্থনৈতিক রেটিং দিয়ে যাচ্ছে।
এ অগ্রগতিকে আন্তর্জাতিক পর্যবেক্ষকেরা ‘ঈর্ষণীয়’ বলে বর্ণনা করেন। অর্থনীতিতে অগ্রযাত্রা শূন্য থেকে শুরু করে আজ বাংলাদেশের রিজার্ভের পরিমাণ ২২ দশমিক ৭৭ বিলিয়ন ডলার। দক্ষিণ এশিয়ার মধ্যে বাংলাদেশই এখন একমাত্র দেশ যা রিজার্ভ থেকে ছয় মাসের আমদানি ব্যয় মেটাতে সক্ষম। বিশ্বের বেশির ভাগ দেশেই কমবেশি বাংলাদেশীরা চাকরিসহ নানা ধরনের ব্যবসা-বাণিজ্য করে থাকে। তাদের আয় থেকে বাংলাদেশে প্রতি মাসে বৈদেশিক মুদ্রা আসে শত কোটি ডলারের বেশি। অল্প সময়েই খাদ্য উৎপাদনে ব্যাপক সাফল্য এনেছে দেশের কৃষকেরা। ধান উৎপাদনে লক্ষ্যমাত্রা ছাড়িয়ে দেশের চাহিদা মিটিয়ে বিদেশে রফতানি করতে সক্ষম হয়েছে বাংলাদেশ। এরই মধ্যে চাল রফতানি করে বাংলাদেশ ছুঁয়েছে আরেকটি মাইলফলক। ধান চাষ ও চাল উৎপাদনের রেকর্ড গড়েছে বাংলাদেশ। আর এতে পাল্টে গেছে জিডিপির গ্রাফ। জাতীয় পরিসংখ্যান অনুসারে শুধু কৃষি খাতে জিডিপির অবদান ২১ শতাংশ। আর কৃষিশ্রমে ৪৮ শতাংশ। কৃষির সাবসেক্টরসহ এ পরিসংখ্যান ৫৬ শতাংশ। বর্তমানে বাংলাদেশ বিশ্বের ধান উৎপাদনকারী দেশগুলোর মধ্যে চুতর্থ। আর আলু উৎপাদন কৃষি খাতের সাফল্যের এক বিস্ময়। এগিয়ে যাচ্ছে বাংলাদেশের ওষুধ শিল্প। এক সময়ের আমদানিকারক দেশ এখন ওষুধের রফতানিকারক দেশের গৌরবে গৌরবান্বিত। দেশের উৎপাদিত ওষুধ অভ্যন্তরীণ চাহিদা পূরণসহ প্রায় ১০০টি দেশে রফতানি হচ্ছে। পৃথিবীর অনুন্নত ৪৮টি দেশের মধ্যে বাংলাদেশ ওষুধ শিল্পে সবচেয়ে এগিয়ে রয়েছে। বর্তমান অগ্রগতির ধারাকে আরো সামনের দিকে নিয়ে যেতে হলে, একটি সুখী, সমৃদ্ধ, অগ্রসর জাতি হিসেবে দাঁড়াতে হলে আমাদের আরো অনেক পথ পাড়ি দিতে হবে।

ফেসবুক মন্তব্য
শেয়ার করুনঃ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

25 + = 26