আমার হৃদয় আমারই হৃদয়…..

কেউ বলে আমি পাগল, পাগলামী করি । কেউ বলে আমি আবেগী…..আমি ভালোবাসা বুঝি না, ভালোবাসা কাকে বলে আমি জানিনা । আমি শুধু আবেগ দেখাই, আবেগের বশে সবকিছু করি ।

তাদেরকে আমারও কিছু বলতে ইচ্ছে করে, প্রশ্ন করতে ইচ্ছে করে- আবেগহীন, পাগলামীহীন ভালোবাসা আবার কবে থেকে ভালোবাসা হলো ? ভালোবাসায় যদি আবেগই না থাকে, পাগলামী না থাকে তবে সেই ভালোবাসায় সার্থকতা কি ?

একটি গোলাপ গাছ লাগানোর পরে সেই গাছ আলো পাচ্ছে, ছাঁয়া পাচ্ছে, মাঝে মাঝে সারও দিচ্ছেন; কিন্তু জল না দিলে সে গাছ বাঁচবে কি, গোলাপ ফুঁটবে কি ? মানুষের জীবনে ভালোবাসা হচ্ছে গাছে জল দেওয়ার মত, আর ভালোবাসার মাঝে আবেগ ও পাগলামী হচ্ছে সেই জলের উপাদান ।
আমি আবেগী বলেই কেউ আমার ভালোবাসা চরম ভাবে প্রত্যাখ্যান করলেও আমি তা মেনে নেই, প্রচন্ড কষ্ট হলেও মেনে নেই । ভেবে নেই আমি তার যোগ্য নই, তবুও মাদকাসক্ত হই না, মাদককে বন্ধু করিনা । শুধু নিজেকে কারো যোগ্য করার চেষ্টা করি ।
আমি পাগলামী করি ভালোবাসার জন্য, কাউকে ভালো রাখার জন্য, কাউকে হৃদয় উজার করা ভালোবাসা দেবার জন্য ।

অনেক কিছুই বলতে ইচ্ছে করে, কিন্তু বলি না । শুধু তাদের কথা মেনে নিয়ে বলি- হ্যা, আমি আবেগী, আমি পাগল….আসলেই আমি ভালোবাসা বুঝি না ।

তবে আমি এটুকু বুঝি যে, আমি ভালোবাসা না বুঝলেও ভালোবাসা আমাকে ঠিকই বোঝে । আর বোঝে বলেই ভালোবাসা আমাকে সহজে ছেড়ে যায় না; যদিও কখনো ক্ষনিকের জন্য যায়, পরক্ষনেই আরও বেশি হয়ে ফিরে আসে ।

তাই আমি রবি ঠাকুরের সাথে কন্ঠ মিলিয়ে বলতে পারি-

আমার হৃদয় আমারই হৃদয়
বেচিনি তো তাহা কাহারো কাছে,
ভাঙাচোরা হোক, যা হোক তা হোক
আমার হৃদয় আমারই আছে।

ফেসবুক মন্তব্য
শেয়ার করুনঃ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

61 − 56 =