নৈতিক শিক্ষা

H S C পরীক্ষায় ছেলে মেয়েরা ৭৩.৫% পাস করেছে
ছাত্রদের পাশের হার ৭৩.৯৩, ছাত্রীদের পাশের হার ৭৫.৬০। প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, ’ছেলেরা একটু দুষ্টু .তাই রেজাল্ট খারাপ করেছে’। মেয়েদের পাশের হার কম হলে লোকে কী বলবে? বলবে, ‘মেয়েরা একটু ডাল, তাই রেজাল্ট খারাপ করেছে’।
এক মজার বিষয় এ নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করার সময় নাই । নিজেরা করে নিবেন ।
মূল বিষয়ঃ
সেদিন Ettila Roy Etu কে বলেছিলাম তোমার রেজাল্ট কি ছিল ?
ও এক কথায় বলেছিল ফেল ।
আমি অবাক হয়ে ভাবলাম ও তো ফেল করার মতো স্টুডেন্ট নয় ।
তাই আবার জিজ্ঞেস করলাম তুমি কি সত্যি ফেল করেছো ?
ও বলল হ্যা আমি সত্যি ফেল করেছি ।
আমি ভাবলাম ও হয়তো বা ও ধর্মে ফেল করেছে ।
আসল কথা হল ও বিদ্রুপ করে বলেছে ।ও যে পাস করেছে তা কোন পাস না ।
হয়তো বা অনেকেই বোঝেন নি ।
একটু বুঝিয়ে বলি
আসলে এই যারা ৭৩.৫% ছেলে মেয়ে পাস করেছে তা হল খাতা কলমের পাস ।
কলেজের পাস, মাদ্রাসার পাস ।
আমি চ্যালেঞ্জ করে বলতে পারি
এদের কে যদি নৈতিক শিক্ষার কোন পরীক্ষা নেয়া হয়, তাহলে শতকরা ৫% পাস করবে না ।
আর আমি মনে করি ঐ৫% আসল শিক্ষিত ।
তাই আমি অনুরধ করবো নৈতিক শিক্ষার পরীক্ষা চালু করা হোক ।
এই পরীক্ষায় ছেলে ,মেয়ে, মা,বাবা,হুজুর, ব্রাহ্মণ, বুর,বুরি, সবাই অংশগ্রহণ করতে পারবে ।
আর এই পরীক্ষার ফলা ফল ঘোষণা করবে Taslima Nasreen ।
ধন্যবাদ
‪#‎titop‬?oh=4c8cac20e1ea25d1b09543ace3bc223e&oe=585B1CE9″ width=”400″ />

ফেসবুক মন্তব্য
শেয়ার করুনঃ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

57 − 49 =