তাৎক্ষনিক পোষ্ট — ওরে মমিনা , মৃত্যু নিয়ে অসুস্থ রাজনীতি আর কবে বন্ধ হবে

সাভার হত্যাকাণ্ড নিয়ে আম্বালীগ , বিনফি , জামাত ( খা*কির পুলাদের দল ) রমরমা রাজনীতি শুরু করে দিয়েছে । কিভাবে ? আসুন নীচে একটু লক্ষ্য করি

১ /

প্রথমে আম্বালীগের এক বাচাল ভাইয়া বিরোধীদলের কাঁধে দোষ ফেলে দেয়ার জন্য চোয়াল বাইড়াইয়া ঘোষণা দিয়ে বললো — বিরোধীদলের ” নাড়াচাড়া ” তে রানা প্লাজায় ধস !! বাচাল ভাইয়ার এই কথা ধপে টিকেনি দেখে সরকার মহাশয় নতুন করে গল্প বানানো — সোহেল রানা যুবলীগের কেউ না !!
দুর্ভাগ্য , তাদের এই ফাইযলামিও জনগন হজম করতে পারিনি , রবং মুরাদ জং এর পুত্র সোহেল রানাকে গ্রেফতারের দাবীতে যখন দেশ উত্তাল , বিরোধীদল যখন বলল — সরকার কোনদিন সোহেল রানাকে গ্রেফতার করবে না । রানা টেকাটূকা নিয়া দেশান্তরী , বিরোধীদলকে চিপায় ফেলাইয়া বর্ডার থেকে গ্রেফতার করলো রানাকে । নিয়ে আসলো হেলিকাপ্টারে চড়াইয়া । অথচ গ্রেফতার করলো না মুরাদ জং কে । কিন্তু এই মুরাদ জং রাই রানাকে লালন পালন করে বড় করে । তাই সোহেল রানার মতো মুরাদ জন রাও সমান কিংবা আরও বেশী অপরাধী ।

২/

বিনফি সাভার হত্যাকাণ্ডের প্রথম থেকেই ফাযলামি শুরু করলো । প্রথমে তারা হরতাল শিথিল করলো ঐ এলাকায় । আরে আবাল , ঐ এলাকায় হরতাল শিথিল করে লাভ কি , সাহায্য তো যাবে বাইরের শহর থেকে । কি হতো যদি সঙ্গে সঙ্গে হরতাল বাদ দেয়া যেত ! হরতাল বড় নাকি মানুষের জীবন বড় ? বিনফির কাছে হরতাল তখন বড় ছিল । তাই তারা হরতাল প্রত্যাহার করলো , দুর্ঘটনা ঘটার বেশ কয়েক ঘণ্টা পর !!
এখন ২ তারিখ তারা আবার হরতাল দিল । বিনা কারণে এই হরতাল দিয়ে এবং আজ হরতাল প্রত্যাহার করে তারা আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে আসলো । সবাই এখন বিনফির সুনাম গাইতে বেস্ত আর ঐদিকে ঢাকা পড়ে গেল সোহেল রানা আটকের মতো সরকারের বিরাট একটা সাফল্য । ঢাকা পড়ে গেল রানা প্লাজা কোন সরকারের আমলে তৈরী হয়েছিল ( অনেকেই হয়তো জানেন না , রানা প্লাজার প্ল্যান পাশ হয়েছিল তৎকালীন বিনফির আমলে )

৩/

আর খা*কির পুলাদের দল জামাত এই সুযোগে আসমানে তুলে নিল তাদের অনুগত ” হেফাজতে ইসলাম ” কে । তারা আল্লামা শাফিরে হেলিকপ্টারে কইরা উড়াউড়ি করানো শুরু কইরা দিল । মানুষের দৃষ্টি এখন আসমানে , জেলের ভিতরে কাদের মোল্লা , সাইদী , গোয়াজমদের এখন মানুষ ভুলে যেতে বসেছে । শাহবাগের প্রজন্ম কয়েক ঘণ্টার মধ্যে যে শতশত রক্তের ব্যাগ যোগার করে দিল তারা তো কাদের মোল্লার চাড়া গাছে পানি ঢালা দেখতে চায়নি । আমরা দেখতে চাই ফাঁসি ।

সেই সাথে আরেকটা কথা , আমরা কিন্তু ভুলে যেতে বসেছি সম্পূর্ণ বিনা হিসেবে কারাগারে আটক আমাদের ব্লগার ভাইদের কথা । তারা কবে মুক্ত আকাশ দেখবে টার সঠিক তারিখ কি কেউ একজন বলতে পারেন ?

মানুষের মৃত আজও এই দেশের রাজনৈতিক দল গুলোর জন্য ভোট বাণিজ্য । যেদিন ই মানুষের জীবনের মূল্য থাকবে যেইদিন এই অসুস্থ ভোট রাজনীতি বন্ধ হবে ।

ফেসবুক মন্তব্য
শেয়ার করুনঃ

১৮ thoughts on “তাৎক্ষনিক পোষ্ট — ওরে মমিনা , মৃত্যু নিয়ে অসুস্থ রাজনীতি আর কবে বন্ধ হবে

  1. ডানপন্থি রাজনীতিবিদদের
    ডানপন্থি রাজনীতিবিদদের একমাত্র লক্ষ্য ক্ষমতা আর ক্ষমতায় যাওয়ার জন্য ভোট দরকার ! সুতরাং ভোটের রাজনীতি তো তারা করবেই। আর আমরা আবালরা ডানপন্থিদের পুজারি ! তাইলে আর তাদের গালি দিয়ে লাভ কি ?

    1. হতাশা ভর করে মাঝে মাঝে ই ।
      হতাশা ভর করে মাঝে মাঝে ই । কিন্তু আমার আশার আলো পাই যখন দেখি সাধারণ মানুষগুলো এতো স্বতঃস্ফূর্তভাবে এগিয়ে আসচ্ছে তখন

  2. আম্বালীগ আর বিম্পি মুদ্রার
    আম্বালীগ আর বিম্পি মুদ্রার এ-পিঠ আর ও-পিঠ। এরা রাজনীতির জন্য প্রয়োজনে তিন শত মানুষকে লাশ বানিয়ে দিতে পারে ক্ষণিকের মধ্যেই। এসব পুঁজিবাদী স্বার্থন্বেসী দলকে এই শ্রমিকরাই প্রত্যাক্ষান করবে। শ্রমিক বিপ্লব এখন সময়ের দাবী। প্রলেয়তারিয়েতরা ফুঁসে উঠলে এই দুই দল পালাবার রাস্তা পাবেনা।

    1. আম্বালীগ আর বিম্পি মুদ্রার

      আম্বালীগ আর বিম্পি মুদ্রার এ-পিঠ আর ও-পিঠ। এরা রাজনীতির জন্য প্রয়োজনে তিন শত মানুষকে লাশ বানিয়ে দিতে পারে ক্ষণিকের মধ্যেই। এসব পুঁজিবাদী স্বার্থন্বেসী দলকে এই শ্রমিকরাই প্রত্যাক্ষান করবে। শ্রমিক বিপ্লব এখন সময়ের দাবী। প্রলেয়তারিয়েতরা ফুঁসে উঠলে এই দুই দল পালাবার রাস্তা পাবেনা

      বুলেট কথা বলছেন দুলাল ভাই

  3. এসব পুঁজিবাদী স্বার্থন্বেসী

    এসব পুঁজিবাদী স্বার্থন্বেসী দলকে এই শ্রমিকরাই প্রত্যাক্ষান করবে

    কিন্তু বাস্তবে দেখি এই শ্রমিকরাই আওয়ামী লীগ, বিএনপি’র পতাকা তলে বেশী ফাল পাড়ে….

    1. আর কতদিন? একজন শ্রমিকের জন্য
      আর কতদিন? একজন শ্রমিকের জন্য আওয়ামীলীগ-বিএনপি’র মত পুঁজিবাদী দলগুলোর অপ্রয়োজনীয়তা যখন শ্রমিকরা বুঝবে, তখন শ্রমিকরাই রুখে দাঁড়াবে। একটা শ্রমিক বিপ্লব আসন্ন।

    2. কিন্তু বাস্তবে দেখি এই

      কিন্তু বাস্তবে দেখি এই শ্রমিকরাই আওয়ামী লীগ, বিএনপি’র পতাকা তলে বেশী ফাল পাড়ে….

      ফাল পাড়ানো হয় তাদের ! নাইলে যে রুটি রুজি বন :মনখারাপ:

  4. নিয়ে আসলো হেলিকাপ্টারে

    নিয়ে আসলো হেলিকাপ্টারে চড়াইয়া । অথচ গ্রেফতার করলো না মুরাদ জং কে । কিন্তু এই মুরাদ জং রাই রানাকে লাওন পালন করে বড় করে । তাই সোহেল রানার মতো মুরাদ জন রাও সমান কিংবা আরও বেশী অপরাধী

    হেলিকপ্টারে না আইনা তারে কি জেট বিমানে আনা উচিৎ ছিলো? ওই মুহুর্তে তারে যদি দ্রুত আনা না হইত তাইলে তো দুই তারিখে হরতালডা ভন্ডুল করা যাইতো না। বলগার শ্রমিক জনতা, গড়ে তুলো একতা কইয়া সাভারসহ সারাদেশে একখান কাহিনীই হইয়া যাইতো। আফসুস আম্বালীগ সেইডা করতে দিলো না।
    সোহেল রানারে মুরাদ জং পালছে সেইজইন্য যদি মুরাদ জং-এর বিচার হওয়া লাগে তাইলে বলব মুরাদ জংরে লাওন(লালন) পালন করার জইন্য শেখ হাসিনা সহ পুরা আম্বালীগরে শাস্তি দেওয়া দরকার আর এই আম্বালীগ যাদের ভোটে লাওন(লালন) পালন হয় তাদের মাইরা ফালা দরকার!!!

    খালি বিম্পিই হরতাল ডাকছে আর কেউই ডাকে নাই?

    ব্লগারদের মুক্তির দাবীতে অটল থাকতেই কিন্তু ব্লগ এলায়েন্স থেকে বলা হয়েছিল যতদিন ব্লগারদের মুক্তি দেয়া না হবে ততদিন ব্লগ বন্ধ থাকবে কিন্তু ব্লগারদের চাপে পড়েই ব্লগ কর্তৃপক্ষ ব্লগ খুলে দিয়েছে এখন ব্লগাররা যদি তাদের দেয়া কথা থেকে সরে এসে অন্য বিষয় নিয়ে মাথা ঘামায় সেখানে দোষ কার?

    শেষমেশ বলি শুধু লিখলেই হয় না, সেখানে যুক্তি দিয়ে বোঝাতে হয় না হলে সেটি আর লেখা থাকে না সেটি হয় বাল আর ছাল।

    1. ১ /
      ওই মুহুর্তে তারে যদি

      ১ /

      ওই মুহুর্তে তারে যদি দ্রুত আনা না হইত তাইলে তো দুই তারিখে হরতালডা ভন্ডুল করা যাইতো না

      এর মানে আপনার কথায় বুঝা গেল হরতাল ভন্ডুল করাই আম্বালীগের আসল উদ্দেশ্য !! হত্যাকারীর বিচার নয় !! চমৎকার

      ২/ মুরাদ জং সম্পর্কে তাইলের আপনার অভিমত কি ? তাঁরে কি আমরাও চুমু খাবো ?

      ৩/

      খালি বিম্পিই হরতাল ডাকছে আর কেউই ডাকে নাই?

      ডাকছে , ডাকে যারা ইচ্ছা তারা সাড়া দিবে । কিন্তু কোথায় কি বলা হয়েছে আর কেউ ডাকে নাই ? বা ডাক্তে পারবে না ? পোস্টের কোথায় বলা হইছে এই কথা ?

      ৪/

      ব্লগারদের মুক্তির দাবীতে অটল থাকতেই কিন্তু ব্লগ এলায়েন্স থেকে বলা হয়েছিল যতদিন ব্লগারদের মুক্তি দেয়া না হবে ততদিন ব্লগ বন্ধ থাকবে কিন্তু ব্লগারদের চাপে পড়েই ব্লগ কর্তৃপক্ষ ব্লগ খুলে দিয়েছে এখন ব্লগাররা যদি তাদের দেয়া কথা থেকে সরে এসে অন্য বিষয় নিয়ে মাথা ঘামায় সেখানে দোষ কার?

      দোষ যদি থাকে তবে বর্তমান পলিটিক্স এর ! তারা ব্লগারদের নিয়ে ধুলাবালি খেলতেছে ।

      ৫/ ” লাওন ” যে এতো হিট খাবে বুঝি নাই । :মুগ্ধৈছি: হই একটু কমাইয়া দেয়ার জন্য বানান ঠিক করা হল

      ৬/ বাল – সাল লিখলাম ! এখন ? :ধইন্যাপাতা:

      1. অবশ্যই হরতাল ভন্ডুল
        অবশ্যই হরতাল ভন্ডুল আম্বালীগের উদ্দেশ্য কেননা এই দেশে হরতাল দেয়া হয় দাবী আদায়ের নামে ভাঙ্গাভাঙ্গি করবার জন্য।
        দেশের এইরকম পরিস্থিতিতে হরতাল দিয়া ট্যাকা খরচ কইরা কর্মী ভাড়া কইরা ভাঁড়ামো বন্ধ করাটা দরকার। আর বিচার যদি নাই করবে তাইলে সোহেল রানার সাথে তার পুরা খানদান গ্রেফতার করার মানে কি?

        আহা শুধু ডানদের পোন মারলে হইব? এইরকম নিরপেক্ষভাব যখন নিলেন তখন সবাইরে একসাথে দেওয়া উচিৎ ছিলোনা! যারাই হরতাল ডাকছে তাদের বিরুদ্ধে যখন লিখছেন তখন যারা যারা ডাকছিলো তাদের নামও নেয়া উচিৎ ছিলো।

        তারা ব্লগারদের নিয়া ধুলাবালি খেলতাসে কেননা ব্লগাররা নিজেদের খেলতে দিতেছে। আমি যদি না নাচি তাইলে আমারে নাচায় কে?

        কি লিখছেন তা আবারো বুইঝ্যা লন।

        1. খান্দান ধরছে মাগার রানার বাপ
          খান্দান ধরছে মাগার রানার বাপ ( জং সাহেব রে ) ধরে নাই ! গুড শট :কেউরেকইসনা:
          একটু পোন মারাতেই যে অবস্থা , পুরাটা মারলে তো বেরাছেরা লাগত :ভালাপাইছি:
          তাইলে চলেন নাচি ! সমস্যা কই ! ইমো তো আছেই একটা নাচানাচির ! দিয়া বইসা থাকি
          কি লিখছি সেটা আপ্নেই স্বপ্রনোদিত হইয়া কইতাছেন । আমি আপনের লগে আছি । কইয়া যান :পার্টি:

          1. বাপ বলতে কি বুঝেন সেইটা
            বাপ বলতে কি বুঝেন সেইটা নিশ্চয়ই আশা করি জানেন যেহেতু পোন মারামারি ইতোমধ্যেই আত্মস্থ করেছেন, সেই হিসাবে রানার বাপকে গ্রেফতার করা হইছে তা সম্বাদ মাধ্যমে জানতে পেরেছি কিন্তু আপনার কথায় রানার বাপ হইলো জং(!!) জনাব একটু কইবেন কোন আয়না পড়া দিয়া হেফাজতে জামায়াতী ত্বরিকায় দেখলেন রানার বাপ জং।
            পারেনও বটে আপনারা ছ্যার, যারে তারে মাইনষ্যের বাপ বানায়া দিয়া তাগো মা’রে কত বিছানায় হুয়াইতাছেন তার হিসাব নাই অন্যদিকে নারী জাগরনের কথা কইয়া হুইয়া যাইতাছেন :টাইমশ্যাষ: :টাইমশ্যাষ:

          2. এই বাপ যে কোন বাপ সেই বাপের
            এই বাপ যে কোন বাপ সেই বাপের পরিচয় ও যদি আপনেরে দিতে হয় তাইলে তো বলতেই হয় — ” বাপ্রে বাপ ”
            রানারে কোলে তুলে হত্যাকারী বানাইছে জং সাহেব এই কথা যদি অস্বীকার না করেন তাইলে কি ছ্যার আপনি একটু বলবেন — ” মুরাদ জং সম্পর্কে আপনার অভিমতটা কি ”
            অনেকবার আস্কাইছি , একবারও ছ্যার আপনি আনসার দেন নাই । এইবার কি একটু দিবেন ?

  5. রুটি রুজির লাইগা আওমী লীগ,
    রুটি রুজির লাইগা আওমী লীগ, বিএনপি’র পতাকা তলে না ফাল পাইড়া নিজেরা জাতিগতভাবে একত্রে থাইকা ফাল পাড়লেই রুটি রুজি আপনা আপনিই চলে আইবো । কারো দালালির দরকার হবে না। নিজেদের স্বার্থে এক হইয়া থাকলে কোন বাপের কাছে সাহায্য চাওয়ার দরকার হইবো না। বাপেরাই ঠেলায় পইড়া তাগোর কাছে আইবো। বুঝাইতে পারলাম ?

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

1 + 6 =