কুরবানির সামর্থ্য নেই ,কি করবেন?

আহলে হাদিস ইমামরা ইদানিং ফতওয়া দিছে ভাগা কুরবানি দেওয়া যাবে না।এক্ষেত্রে তাদের দাবি হল রাসূলুল্লাহ (ছাঃ) বিদায় হজ্জে আরাফার দিনে শেষ ভাষনে বলেন-
.
হে জনগণ! নিশ্চয় প্রত্যেক পরিবারের উপরে প্রতি বছর একটি করে কুরবানী’ (তিরমিযী, আবুদাঊদ, নাসাঈ, ইবনু মাজাহ, মিশকাত/১৪৭৮)।
.
তো আপনী মুকিম অবস্থায় ভাগে কুরবানীতে গেলেন কেন?
আছ্ছা বুঝলাম ভাগে কুরবানী দিচ্ছেন কিন্তু এটা কি জানা আছে ৭জন আর ৭ পরিবার একনয়?
তাহলে আপনি কি করবেন? একাই একটি গরু বা ছাগল কেনার সামর্থ্য আপনার নেই?এদিকে কুরবানি দিলে অনেক সওয়াব। এক্ষেত্রে আপনি কুরবানির দিন মাথার চুল ও হাত-পায়ের নখ, গোঁফ খাট করবেন,নাভির নিচের লোম পরিস্কার করতে পারেন এবং আপনি পুরো কুরবানির সওয়াবপাবেন। বিশ্বাস না হলে দেখুন হাদিস কি বলে?
হাদীছ শরীফ-এ বর্ণিত আছে,
عن عبد الله بن عمرو رضى الله تعالى عنه قال قال رسول الله صلى الله عليه وسلم امرت بيوم الاضحى عيدا جعله الله لـهذه الامة قال له رجل يا رسول الله صلى الله عليه وسلم ارايت ان لم اجد الا منيحة انثى افاضحى بـها قال لا ولكن خذ من شعرك واظفارك وتقص شاربك وتحلق عانتك فذلك تمام اضحيتك عند الله.
অর্থঃ- হযরত আব্দুল্লাহ ইবনে আমর রদ্বিয়াল্লাহু তায়ালা আনহু হতে বর্ণিত, মহান আল্লাহ্ পাক উনার রসূল, হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি বলেন, “আমি কুরবানীর দিনকে ঈদের দিন হিসেবে নির্ধারণ করার জন্য আদিষ্ট হয়েছি। মহান আল্লাহ পাক তিনি উক্ত দিনটিকে এই উম্মতের জন্য ঈদ হিসেবে নির্ধারণ করেছেন। এক ব্যক্তি হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনাকে জিজ্ঞাসা করলেন, ইয়া রসূলাল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম! আমি যদি একটি মাদী মানীহা (উটনী) ব্যতীত অন্য কোন পশু কুরবানীর জন্য না পাই, তাহলে আপনি কি (আমাকে) অনুমতি দিবেন যে, আমি উক্ত মাদী মানীহাকেই কুরবানী করবো। জবাবে হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি বললেন, না। তুমি উক্ত পশুটিকে কুরবানী করবে না। বরং তুমি কুরবানীর দিনে তোমার (মাথার) চুল ও হাত-পায়ের নখ কাটবে। তোমার গোঁফ খাট করবে এবং তোমার নাভীর নিচের চুল কাটবে, এটাই মহান আল্লাহ পাক উনার নিকট তোমার পূর্ণ কুরবানী অর্থাৎ এর দ্বারা তুমি মহান আল্লাহ্ পাক উনার নিকট কুরবানীর পূর্ণ ছওয়াব পাবে।” (আবু দাউদ শরীফ)
এরপরও কি আপনি ধারদেনা করে অবলা পশুটার জীবন নিতে চাইবেন?

ফেসবুক মন্তব্য
শেয়ার করুনঃ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

− 1 = 1