গ্রাম এবং কিছু কথা…!!

অনেককে দেখি গ্রামের কথা শুনলে নাক সিটকায়। “ইয়াক! গ্রাম একটা থাকার জায়গা হলো নাকি!! গ্রামে হেন নাই, তেন নাই।” আরে বাবা, তোর না হয় জন্ম শহরে, কিন্তু তোর বাপ-দাদারে জিজ্ঞেস কর তাদের জন্ম কোথায়? তাদের নাড়ি পোঁতা আছে কোথায়? তারা বড় হয়েছে কোথায়? আমি ১০০% গ্যারান্টি দিয়ে বলতে পারি, এমন কেউ নেই যে, যার কোন পূর্ব-পুরুষের জন্ম গ্রামে হয় নাই।
আবার কিছু আঁতেল পাবলিক আছে যারা শহরে আসছে দুই দিন হয় নাই, কিন্তু ফুটানি মারে ২০০ বছরের। আর মুখে মুখে কাঁচাশুদ্ধ মারে-“আমি তো হেঁটতে পারি না। আমি এলু খাই না।” তাদের অবস্থা এমন যে-“জানে না কইয়ের মাতা, ইংলিশ ছাড়া কয় না কতা।”
যাই হোক আমার ভাগ্য অনেক ভালো যে- আমার জন্ম গ্রামে, বড় হয়েছি গ্রামে। এই জন্য আমার গর্বের সীমা নাই। ভার্সিটি বন্ধ পাইলেই দৌড় দেই গ্রামে। আমার গ্রামে কিছুই নাই। তবুও মনটা কেন জানি গ্রামেই পড়ে থাকে। কেউ গ্রামের বিরুদ্ধে কিছু বললে নিজেকে ঠিক রাখতে পারি না।
আপনি গ্রামকে ভালো না বাসলেও দয়া করে গ্রামের বিরুদ্ধে কটূ কথা বলবেন না। কারণ শহরের চারপাশে গ্রাম আছে বলেই শহরের অস্তিত্ব আছে।

ফেসবুক মন্তব্য
শেয়ার করুনঃ

৬ thoughts on “গ্রাম এবং কিছু কথা…!!

  1. গ্রামকে নিকৃষ্ট বলে লেখা কোন
    গ্রামকে নিকৃষ্ট বলে লেখা কোন পোস্ট বা উপন্যাস বা গল্প আমার জীবণে দেখিনি। কাকে গ্রাম সম্পর্কে নাক সিটকাতে দেখলেন জানিনা। যদি কেউ তা করে থাকে তাহলে ভালভাবে খোঁজ নিয়ে দেখেন সে আসলে গ্রামেরই। শহরে জন্ম নেয়া অধিকাংশ মানুষই গ্রামকে প্রচন্ড পছন্দ করে। তারা মনে করে গ্রামের মানুষগুলো অনেক সহজ সরল হয়। আমি নিজে গ্রামে জন্ম নেয়া মানুষ তারপরেও গ্রামকে আমার বেশী পছন্দ। গ্রামের খোলা হাওয়া, গাছ-পালায় বেষ্ঠিত পরিবেশে বুক ভরে নিঃশ্বাস নেয়া যায়। যেটি শহরে ইচ্ছা করলেও প্রায় অসম্ভব।

    আপনি নিজে হয়ত মনে করেন আপনি গ্রামের ছেলে বলে আপনাকে শহরের ছেলেরা গেঁয়ো মনে করে! এটি আপনার মনের ভূল। শহরে মানুষ গ্রামের মানুষকে অসম্ভব ভালবাসে। শহুরে মানুষগুলো সুযোগ পেলেই গ্রামের পরিবেশে সময় কাটাতে উন্মুখ হয়ে থাকে….

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

2 + 6 =