ধর্মের নামে দেশদ্রোহী কথা বলা জায়েজ

হেফাজতে ইসলামের নেতা শফি হুজুর…। উনি বগুরার সমাবেশে মেয়েদেরকে বলেছিলেন অন্তত প্রধানমন্ত্রীর মত করে যেন পর্দা করে চলতে।
এদিকে উনাদের নেতৃবৃন্দরা, উনাদের পেজে এই প্রধানমন্ত্রীকে নাস্তিক বলেছিলেন, বলছেন, আরো ভবিষ্যতে বলতেও পারে।
তাহলে শফি হুজুর ১জন নাস্তিক মেয়ের উধারণ কেন দিল।???

দ্বিতীয়ত,সামনে ৫তারিখের ব্যপারটা নিয়ে তারা অনেকেই বলছে “এটাই ফাইনাল ম্যচ, দেশ হয় নাস্তিকদের হাতে থাকবে আর না হয় মুসলমানদের হাতে।”

আজব ভাই আপনারাই বলেনতো এখনকার প্রধান মন্ত্রী কি মুসলমান না ????
গত প্রধানমন্ত্রীও কি মুসলমান ছিলোনা…।???
নাস্তিকদের হাতে দেশ গেলো কখন…???

আরো বলছে ”
“৫ তারিখের মধ্যে দাবি না মানলে দেশ কোনদিকে যাবে আমি বলতে পারি না।” “প্রয়োজনে ঐ দিন শহীদ হয়ে যাবো দেশ চালাবো আমরা….”

আর উনাদেরকে কে সার্টিফিকেট দিসে নাস্তিক বলার।???
উনারা ধার্মিক হয়েও বার বার আমাদের দেশের অনেক ধর্মপ্রাণ মানুষকে সম্মুখে নাস্তিক বলছে এমনকি ওপেন মিডিয়াতে বলছে… এতেকি আমাদের ধর্মপ্রাণ মুসলমানদের আঘাত হানছে না???
হ্যাঁ অবশ্যই হানছে।। এমনকি তাদের কথায় আমাদের সার্বভৌমত্বে আঘাত আসছে। অন্যান্য ধর্মালম্বিদেরও
ছোট করছে যা আমাদের ধর্মেও নাই। ওরা বোঝাতে চাইছে আমরা নাস্তিকদের শ্বাসনে চলছি।
তাহলে কি এই দেশে ধর্মের নামে যা খুশি তাই করা যাবে তাতে কোন অপরাধ নেই…???

উনাদের ঐ কথাগুলো কি দেশদ্রোহী কথা না ………………???? এগুলো কি সংবিধানের পরিপন্থী না…???
তারমানে ধর্মের টাইটেল নিয়ে দেশদ্রোহী কথা \ কার্যকলাপ জায়েজ……। এইটাই কি তাদের দেশপ্রেম>???

সরকার তো কিছুই কয়না>>??? সরকারের চোখে কি কথাগুলো পরেনা…???

আসলে আপনি যখনই এই কথাগুলো বলতে যাবে দেখবেন আপনাকেও নাস্তিক বানিয়ে দিবে ঐ ধর্ম ব্যবসায়ীরা। আর সরকার আপনাকে আরামে জেলে ঢুকিয়ে দেবে।

কদিন পর বেহেশ্তের সার্টিফিকেট দেওয়া শুরু করবে ঐ ধর্ম ব্যবসায়ীরা…।
সাধারণ মানুষ আপনারা ঘুমিয়ে থাকেন…। নগদে সার্টিফিকেট পাবেন। মনে রাইখেন সেই সার্টিফিকেট পাইতে, লুঙ্গি খোলাও লাগতে পারে, যেমনটি হয়েছিল একাত্তরে।

ফেসবুক মন্তব্য
শেয়ার করুনঃ

৭ thoughts on “ধর্মের নামে দেশদ্রোহী কথা বলা জায়েজ

  1. উনাদের ঐ কথাগুলো কি দেশদ্রোহী

    উনাদের ঐ কথাগুলো কি দেশদ্রোহী কথা না ………………???? এগুলো কি সংবিধানের পরিপন্থী না…???
    তারমানে ধর্মের টাইটেল নিয়ে দেশদ্রোহী কথা কার্যকলাপ জায়েজ……। এইটাই কি তাদের দেশপ্রেম>???

    সত্য কথা হল তারা জামাতের প্রেমে অন্ধ, দেশপ্রেম নিয়ে ভাবার সময় নেই।

    “৫ তারিখের মধ্যে দাবি না মানলে দেশ কোনদিকে যাবে আমি বলতে পারি না।”

    এমন অদূরদর্শী ব্যক্তি নাকি আবার একটি আন্দোলনের নেতা। হাসি পায় এদের কথা শুনলে। মোল্লার দৌড় আসলে মসজিদ পর্যন্তই।

  2. একটা নির্দিষ্ট দলের কিছু
    একটা নির্দিষ্ট দলের কিছু শেখানো ‍বুলি আওড়াতে আওড়াতে ভান্ডার শেষে হয়ে গেছে আর কি! শেখানো বুলি আর কতবার বলা যায় বলুন? তাইতো এই অবস্থা…..

    তবে মন খারাপ কইরেন না ! ৬ মে হতে এই হুজুররাই দেশ পরিচালনা করবে বলে তারা মনে করে ! কারণ তাদের হাতে প্রয়াত জলিল সাহেবের তুরুপের তাসে আছে, যা ৫ তারিখেই দেখানো হবে বর্তমান সরকারকে তার পূর্বে নয়!

    জলিল সাহেবের তুরুপের তাস তো সে সময়ে দেখতে পারিনি ! অপেক্ষায় আছি ৫ তারিখের সেই কাঙ্খিত তুরুপের তাস দেখার জন্য…… আপনারা থাকবেন কি আমার সাথে ?

  3. এখন দেশদ্রোহী কথা বললে লিখলে,
    এখন দেশদ্রোহী কথা বললে লিখলে, দেশদ্রোহী কাজ করলে কিছুই হয় না। দিব্যি বুক ফুলিয়ে চলতে পারে, শুধু চলা না হেলিকপ্টারে উড়তেও পারে।
    কিন্তু বস্তুনিষ্ঠ সমালোচনা করা,কলম,কীবোর্ড দিয়ে নিজের মতামত তুলে ধরা এবং দেশকে ভালোবাসাই আজ সবচেয়ে বড় অপরাধ। তথাকথিত ধার্মিক মূর্খ বোধহীন বিবেকহীন অসভ্য প্রাণীর অনুভূতিতে আঘাত আজ দেশদ্রোহী কাজের চেয়ে ভয়ংকর অপরাধ।
    খুনের আসামি, ধর্ষণের আসামি, দুর্নীতির আসামি দিব্যি জামিন পেয়ে যায়, কিন্তু শুধুমাত্র লেখাই আজ জামিন অযোগ্য অপরাধ!!!!!!

    1. খুনের আসামি, ধর্ষণের আসামি,

      খুনের আসামি, ধর্ষণের আসামি, দুর্নীতির আসামি দিব্যি জামিন পেয়ে যায়, কিন্তু শুধুমাত্র লেখাই আজ জামিন অযোগ্য অপরাধ!!!!!!

      :কেউরেকইসনা: :কেউরেকইসনা: :কেউরেকইসনা: :কেউরেকইসনা: :কেউরেকইসনা: :কেউরেকইসনা: :কেউরেকইসনা:

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

80 − 78 =