সব কিছু নষ্টদের অধীকারে চলে গেছে

বহুমাত্রিক জ্যতিময় ও প্রথাবিরোধী লেখক হুমায়ুন আজাদ বলেছিলেন সবকিছু নষ্টদের অধিকারে যাবে।
আমরা এখন বলতে পাড়ি ইতোমধ্যে সবকিছু নস্টদের অধিকারে চলেগেছে। ধিকেধিকে শুনা যাচ্ছে নষ্টদের জয়ধ্বনি নষ্টদের বিজয়োল্লাস;আর মানবিকরা বুদ্ধিদীপ্ত প্রতিবাদী আর প্রথাবিরোধি’রা পিষ্টহচ্ছে তাদের বুটের নীচে ।সব কিছু নস্টদের অধিকারে যাবে!;না চলে গেছে। এ….. কাশবন,নীল আকাশ,চন্দা,বকুল গন্ধরাজ,চামেলিফুল,শিশির ভেজা মাঠ, সবুজ ঘাস,পিচঢালা পথ, সাদাবক,লালশালিক,কালোকাক,পাহাড়,জনপদ,প্রিয়ার টসটসে লালঠোট,গ্রিবা,সুউচ্চবক্ষ,কিল্লা,মঞ্জিল,মসজিদ,মন্দির,জাদুঘর,লাইব্রেরী,গন্থাগার, ব্যাংক,বিমা,জাহাজ,নগর ও গ্রাম কিংবা খুকির টুক টুকে লাল জামা খোকার ব্যাটবল।ধবধবে সাদা চাঁদ ও চলে গেছে নস্টদের অধিকারে…………..; আর রাজনীতি! অনেক আগেই নস্টদের অধিকারে।

যোগ্যরা, সৎ’রা, ভদ্ররা মানবিক’রা তোমরা কিছুই রক্ষাকরতে পারনি এসব…..এমন কি তোমার প্রিয়তমা কেও। হে নির্লজ্জ নির্বোধ’রা তোমার নস্টদের ধরা দাও ও নিজেদের নাশ কর তার কাছে যে নাশ করতে নস্ট করতে ব্যাস্ত সে চাই শুধু প্রবেশাধিকার কালো অন্ধকারে।তুমি তোমারা তাকে বিশ্বাস কর আর প্রতারিত হও যেমন হয়েছিলে তুমি পুর্বে; তুমি বিশ্বাস কর যৌনতা অশ্লীলতা তুমি জাননা হয়ত জানবেও না এই যৌনতা ভালোবাসার নয় তুমি যাও ধরা দাও কালো দুর্গন্ধময় অন্ধকারকে যে অন্ধকার বলে তুমি ব্যবহার যোগ্য তোমাকে ব্যাবহার হয়ে গেছে হে মানবী হে নির্বোধী তুমি এত নির্লজ্জ কেন? তুমি কি চাও টিস্যু কাগজের মত ব্যবহার হতে?।
হে সৎ মানুষেরা, হে যোগ্যরা, হে মানবিকরা এই পৃথিবী আপনাদের নয় আপনি এখানে তুচ্ছতাচ্ছিল্যে পাত্র।

এ পৃথিবী নস্টদের এ পৃথিবী বোকা ধার্মিকের এখানে বুদ্ধির আর যুক্তির কোন স্থান নেয়।
ভুলে যান প্রিয়ার লালঠোট গ্রিবা তুলতুলে নরম হাত যে হাত একদিন আপনাকে ডেকেছিল এই ওষ্ঠ গ্রিবা হাত এখন নষ্টের দখলে, তাকে নস্ট হতে দিন; যে নস্ট হতে চাই।
ভুলে যান চন্দা বকুল চামেলীর সোবাস, কাশবন, সাদা চাঁদ্‌ ,লাল শালিক, ধ্বংস হতে দিন কিল্লা মঞ্জিল আর যত সভ্যতা।

রুদ্ররক্তিম
৯/২৬/২০১৬

ফেসবুক মন্তব্য
শেয়ার করুনঃ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

− 1 = 2