প্রত্যর্পন

আকশের কাছে আমি চেয়েছি উদারতাটুকু তার
বুক ভরা চাঁদতারার ঐশ্বর্য চাইনি।
বাতাসের কাছে আমি মহাপ্রলয়ের শক্তি নয়
উন্মুক্ততাটুকু চেয়েছি, তাও পাইনি।
বৃষ্টির কাছে শুধু তার রিমঝিম সুরটুকু ছিল চাওয়া,
মাঠঘাট ডোবা সীমাহীন জল নয়।
বনানীর কাছে সাধ ছিল তার সজীবতাটুকু পাওয়া,
সাজনো মাখানো বিশাল অরন্যময়।
সবশেষে গেছি কুসুমের কাছে পেতে তার সুমিষ্ট সুঘ্রাণ
চাইনি তার দেহভরা রূপের গৌরব।
বলেছে কুসুম হেসে, সুরভিটুকুই আমাদের প্রান,
নিতে পার রূপ তবু পাবেনা সৌরভ।
শান্ত বিকেলে ক্লান্ত হয়ে ফিরেছি আপন ঘরে
ভেবেছি কেন এই ছুটোছুটি মিছে?
আমিতো মানুষ, সবই আছে মোর, শুধু অবহেলা ভরে
পড়ে আছি আমি সকলের পিছে।
উদ্ভাসিত উজ্জ্বল সবার চেয়ে বেশী প্রাণের ভেতরে
দিতে পারি আমিইতো মুক্ত দু’হাতে।
নিজের ভেতরে লুকিয়ে যা আছে, করতে প্রকাশ হবেই
আমাকে তা’ই আগামী প্রভাতে।

ফেসবুক মন্তব্য
শেয়ার করুনঃ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

+ 78 = 81