আমার আপত্তি…

আমার আপত্তি আছে।
ঘোরতর আপত্তি আছে।
আপনি সমাজ ব্যাবস্থায় এটা চান ওটা চান।এবং মনে মনেই চান।বড় গলায় রাস্তায় দাড়ান তো দেখি।দাড়ান। পারবেন না।আপনার মনে ভয় আছে লাঠিপেটা পিঠে নেয়ার।

তারপর ও কিছু পোলাপাইন দাঁড়ায়।এটাও আপনি জানেন।জানেন না? সাপোর্ট করছেন কখনো?মাইর খাইলে কিন্তু আপনি একখান অট্যহাসি দিয়ে বলেন “আজ কে সেই দিছে।এক্কেবারে লাল বানাইয়া দিছে”। এরা সমাজ বদলের কাজ করে।এরা অন্যায় এর প্রতিবাদ করে।আর আপনি ঘরে বইসা এদেরকেই মানবতাবাদী বইলা গালি দেন।আপনি আসলে কি চান?

হিন্দু ধর্মের মানুষদের ধর্মীয় কর্মকাণ্ডে স্বাগত জানাইলে,পূজা মন্ডপে গেলে আপনি আপত্তি দেখান।ঐ মুখে পুজা কে মেয়ের মত বলতে লজ্জা লাগে না??? মানুষের গনদাবীতে যারা রাস্তায় নামে তাদের কে গালি দেন পুজা কে নিয়ে রাস্তায় না নামার কারণে।সত্য কি আপনি যাচাই করেছেন?ঐ পোলাপাইন গুলা কি সরব না?? রাস্তায় না নামলে অন্তত রাস্তায় মুখ বাড়াইয়া দেইখা নেন। আর এসব আন্দোলন গুলো তে কারা সরব???

বড় অংশই এখানে ছাত্র। তারা ভাড়া কইরা লোক আইনা জমায়েত করে না। বাংলাদেশ এর অভ্যুদয়, ইতিহাস জানেন তো?বড় কাজ গুলো ছাত্ররাই করছে।কিন্তু এখন ঠিক তাদের ক্যাম্পাসেই তাদের দাড়ানোর কোন জায়গা নাই।রাজনীতি তো নষ্ট করছেন আপনারাই।এটার বলি দেশ হবে কেনো?শিক্ষাঙ্গনে ছাত্র রাজনীতি চাইবেন না।আবার দেশ গঠনে আলোকিত মানুষ এর প্রত্যাশা করবেন।মগের মুল্লুক পাইছেন?মেধা শুন্য দেশ ই আপনাদের ধরাইয়া দেয়া উচিৎ।

এখন আপনার রাজনীতি আর আমার রাজনীতি তো এক না।আপনি আপনার মনের মধ্যে ঢুকাইয়া ফালাইছেন রাজনীতি মানে কাটাকাটি মারামারি।নোংরা জায়গা।কিন্তু আমার কাছে রাজনীতি মানে দেশ নিয়ে ভাবনা চিন্তা।মানুষ হিসেবে নিজেকে তৈরী করে নেয়া।রাজনীতি আর রাজনীতির ভাবনাই আপনাকে দেশের যোগ্য সন্তান করে গড়ে তুলতে পারে।আর কিচ্ছু না।

আপনি ডাক্তার হবেন,ইঞ্জিনিয়ার হবেন,আইনজীবী হবেন।যা খুশি তাই হবেন।কিন্তু আপনি যদি নিজের আত্মশুদ্ধি না করাইতে পারেন বাল টাও করতে পারবেন না।টাকার পিছেই ছুটবেন।তখন আপনি সেবা আর মৌলিক চাহিদার মানে শুধু টাকাই বুঝবেন।

ফেসবুক মন্তব্য
শেয়ার করুনঃ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

− 1 = 9