বঙ্গবন্ধু ও বড় টাওয়ার।

সম্প্রতি ঢাকা প্রেস ক্লাব এলাকায় একটা ৩১ তলা টাওয়ার উদ্ভোদন করেছেন আমাদের প্রধানমন্ত্রী। এই টাওয়ারের নাম করণ করেছেন বঙ্গবন্ধু মিডিয়া সেন্টার।
আমরা যারা বঙ্গবন্ধুকে জানি, মানি, ভালবাসি তারা মনে করি বঙ্গবন্ধু মানে বাংলাদেশ। বাংলাদেশের প্রতি শব্দই হল বঙ্গবন্ধু। আপনি যদি হিমালয়ের নাম পালটিয়ে বঙ্গবন্ধুর নামে করে দেন, আমি মনে করি তাতেও বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান কে যথার্থ উচুতে নেয়া হবে না। বঙ্গবন্ধু তার চাইতেও বিশাল কিছু।

কেন জানি না, বাংলাদেশের বড় ব্রিজ, বড় স্টেডিয়াম, বড় টাওয়ার, বড় থিয়েটার সব কিছুতে বঙ্গবন্ধুর নাম লাগানো হয়? যে মুজিব হৃদয়ে থাকে তাকে কেন জোড় করে পাথরে খোদাই করে রাখার চেষ্টা? প্রত্যেকটা ইটে বঙ্গবন্ধুর নাম খোদাই করে ১০০ তলা বিল্ডিং বানালেও বঙ্গবন্ধুর বিশালতা কে ধরা যাবে?

অথচ বাঙ্গবন্ধু কে নিয়ে যা করা উচিত সেটা কেউ করছে না। এইসব বড় দালান, কোঠায় আটকানোর চেষ্টা না করে বঙ্গবন্ধু কে ছড়িয়ে দিন সমগ্র বিশ্বে। যে মুজিব সাত কোটি দরিদ্র স্বাধীন বাংগালির, সে মুজিব সারা বিশ্বের মুক্তি কামি মানুষের বিশ্ব নেতা। বঙ্গবন্ধুর উপর ইন্সটিটিউট করুন। সারা দুনিয়ার তাবত রাজনীতিবিদ সেখানে আসবে গবেষণা করতে। মুজিবের প্রলয়ঙ্করী ভাষান শিখতে। মুজিবের নেত্রীত্ব ও প্রজ্ঞার উপর জ্ঞান লাভ করতে। মুজিবের তর্জনী নিয়ে চুল ছেড়া বিশ্লেষণ করতে। রাজনৈতিক দিক্ষা নিতে। হ্যামেলিনের বাঁশিওয়ালার মত মানুষকে কিভাবে উজ্জিবিত করতে হয় স্বাধীনতার জন্য তা শিখতে। নিজের বুক পেতে দিয়ে কিভাবে দেশ বাঁচাতে হয় তা শিখতে। মুজিবের দর্শন নিয়ে গবেষণা করে পিএইচডি নিতে।

মুজিবের উপর সিনেমা তৈরি করুন। যে সিনেমা সারা পৃথিবীর অত্যাচারী শাসকের বুক কাঁপিয়ে দিবে। যে সিনেমা বিশ্ব রাজনীতির ভিত কাঁপিয়ে দিয়ে উজ্জিবিত করবে মুক্তির লেলিহান শিখা। যে সিনেমা মুক্তি কামি মানুষের প্রেরণা হবে। যে সিনেমা বিশ্ব চলচিত্র কে শাসন করবে। যে সিনেমা অসহায় জাতি কে গুড়ে দাঁড়াতে শিখাবে। যে সিনেমা লাখো জনাতার ভিরে চোখ মুছে বলবে – “তাদের প্রত্যেকের পিতার নামে লিখে দিও শেখ মুজিবুর রহমান। ”

মুজিবের ত্যাগের উপর ডকুমেন্টারি তৈরি করুন। যে তথ্যচিত্র যিশুর ক্রুশবিদ্ধ হওয়ার মতই মহৎ হবে। যিশু তার জীবন দিয়েছিলেন তার অনুসারী দের জন্য। বঙ্গবন্ধু তার জীবন দিয়েছেন এই দেশের সাত কোটি বাংগালীর জন্য। জেল, জুলুম খেটেছে এ দেশের মানুষের জন্য। তিনিওত আমাদের মুক্তি দাতা। আমার কাছে ত মুজিব যিশুর থেকেও বেশী কিছু।
প্লিজ, বঙ্গবন্ধু কে এসব দালান কোঠায় আটকাবেন না। বঙ্গবন্ধুর নামে টাওয়ার হতে পারে না। বঙ্গবন্ধুর নামে ব্রিজ, কালভার্ট হতে পারে না।

বঙ্গবন্ধু এসবের চাইতেও অনেক বিশাল।



ফেসবুক মন্তব্য
শেয়ার করুনঃ

১ thought on “বঙ্গবন্ধু ও বড় টাওয়ার।

  1. মুজিবকে নিয়ে আপনি যতকিছু উপমা
    মুজিবকে নিয়ে আপনি যতকিছু উপমা দিলেন ঐসব কিছুই না বলেই ইটে খোদাই করে তার নাম লিখে রাখার ব্যবস্থা করা হচ্ছে।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

6 + 4 =