জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় এর ভর্তি পরীক্ষা

#সকল_জ্ঞানীর_উপরে_আছেন_এক_মহাজ্ঞানী এই নীতিবাক্যকে সামনে রেখে ১৯৯১ সাল থেকে বাংলাদেশের উচ্চশিক্ষা বিস্তারে ব্যাপক ভূমিকা পালন করে আসছে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়।
বর্তমানে প্রায় ২১ লক্ষ ছাত্র অধ্যায়ন করছে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় এর অধীনে সারা দেশের বিভিন্ন কলেজে। ২০১৪ সাল পর্যন্ত ভর্তি পরিক্ষার মাধ্যমে অধীনস্থ কলেজে ভর্তি হতে হত, কিন্তু বর্তমান পদ্ধতিতে আর পরীক্ষা নেওয়া হয় না। সারাসরি এইচ_এস_সি ও এস_এস_সি এর রেজাল্ট অনুযায়ী ভর্তি করানো হচ্ছে। এতে ছিটকে পড়ছে প্রকৃত মেধাবীরা, আসলে যাদের কোন যোগ্যতা নেই তারাও ভর্তি হচ্ছে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় এর অধীনত্ব কলেজগুলোতে। আমাদের ত্রুটিপূর্ণ শিক্ষা ব্যাবস্থায় যেকেউ A+ পেতে পারে, তাই বলে কি সে মেধাবী হয়ে গেল। এটি ভালভাবে বুঝতে পারা যায় বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয় এর ভর্তি পরিক্ষায়। হাজার হাজার A+ প্রাপ্ত ছাত্ররা ছিটকে পড়ছে, তবে ঠিকই নিজের স্থান নিয়ে নিচ্ছে অধিকাংশ A+ না পাওয়া ছাত্ররা।
প্রকৃত মেধাবীদের বাচাই করতে হলে অবশ্যই ভর্তি পরীক্ষা নেওয়া দরকার ।
জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় এর কাছে আমার আবেদন ভর্তি পরীক্ষার মাধ্যমে প্রকৃত মেধাবীদের যাচাই করে অধ্যায়ন করার সুযোগ দিন।

ফেসবুক মন্তব্য
শেয়ার করুনঃ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

+ 5 = 10