ধর্ম কিসের উপর নির্ভরশীল? বিশ্বাস নাকি প্রমান?

ধর্ম হচ্ছে বিশ্বাস।

বিশ্বাস অন্ধও হতে পারে, কানা অথবা ল্যাংড়াও হতে পারে। বিশ্বাস কখনই গ্যারান্টেড না।

কিন্তু প্রমান ১০০% গ্যারান্টেড।

যেমন,আল্লাহ/বেহেশত/দোজখ/জিব্রাইল/আজ্রাইল/বোরাক/মুনকার-নাকির/পুলসিরাত/কবরের আজাব ইত্যাদিতে ধার্মিকরা “বিশ্বাস” করে।

কিন্তু এগুলোর প্রমান চাইলেই আপনি নাস্তিক অথবা এক মাইল লম্বা ত্যানা নিয়ে প্যাঁচানো শুরু। এখন পর্যন্ত কোন ব্যাক্তি ধর্মের সপক্ষে উপোরক্ত বিষয়াদির একটিরও প্রমান দেখাতে সক্ষম হয়নি।

একটিও প্রমান না থাকা সত্ত্বেও যেভাবে ধার্মিকরা কনফিডেন্স সহকারে এগুলোর বর্ণনা দিয়ে থাকে, মনে হয় সে নিজে গিয়ে এগুলো দেখে এসেছে।

অনেকেই বলবেন, এটা আমার বিশ্বাস। আমি এগুলোতে বিশ্বাস করতে ভালবাসি। তাতে আপনার অসুবিধা কোথায়?

কিন্তু প্রমান না থাকায় যখন আমি এগুলোতে অবিশ্বাস করি, এগুলো নিয়ে লেখালেখি করি, তখন আপনার অসুবিধা কোথায়?

প্রমানবিহীন ধর্মে অবিশ্বাসের কারনে ধর্মের নিয়ম অনুযায়ী যখন আমাকে হত্যার আদেশ দেওয়া হয়, যখন আমাকে ঘৃনিত ব্যাক্তি বলা হয়, যখন আমাকে সমাজ থেকে বিচ্ছিন্ন করে দেওয়া হয়, যখন আমাকে পশুর সাথে তুলনা করা হয়, ঠিক সেখানেই আমার অসুবিধা হে ধার্মিক!

ফেসবুক মন্তব্য
শেয়ার করুনঃ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

79 + = 87