রোহিঙ্গা সমস্যা পুঁজি করছে সুবিধাবাদী মহল

বর্তমান মিয়ানমার পরিস্তিতিতে একটি চক্র সুবিধা নিচ্ছে। মিয়ানমারে সন্ত্রাসী হামলার ঘটনাকে পুঁজি করে রোহিঙ্গা অনুপ্রবেশ ঘটাতে মরিয়া একটি বিশেষ মহল। আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় মিয়ানমারে সমস্যা সমাধানে কাজ করার উদ্যোগী হয়েছেন জেনেও এদের অপতৎপরতা থেমে নেই। ইতোপূর্বে রোহিঙ্গা ইস্যু নিয়ে বাংলাদেশের উদ্বেগের বিষয়টি মিয়ানমারকে জানানো হয়েছে। মিয়ানমারে গণতান্ত্রিক সরকার বিদ্যমান বলেই দেশটির সরকার গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়ায় সমস্যার সমাধানে পদক্ষেপ নেবে। তারপরও আরাকান বিদ্রোহী গ্রুপ রোহিঙ্গা সলিডারিটি অর্গানাইশেন (আরএসও) এবং স্বার্থান্বেষী মহলের কতিপয় নেতা গোপনে এককাট্টা হয়ে সীমান্ত পরিস্থিতি ঘোলাটে করে সরকারকে বেকায়দায় ফেলার অপচেষ্টা চালাচ্ছে। চট্টগ্রাম ও কক্সবাজারে ঘাঁপটি মেরে থাকা আরএসও জঙ্গীরা মিয়ানমারে বসবাসকারী রোহিঙ্গাদের এদেশে পালিয়ে আসতে উস্কানি দিচ্ছে। আর এ কাজে মৌলবাদী গোষ্ঠী সমর্থিত একাধিক মিডিয়াও সহযোগিতা দিয়ে চলছে। তবে অনুপ্রবেশ ঠেকাতে সীমান্তে টহল জোরদার ও নজরদারী বৃদ্ধি করেছে বিজিবি ও কোস্টগার্ড সদস্যরা। এরপরও অনুপ্রবেশকারী কিছু রোহিঙ্গাকে মানবিক কারণে আশ্রয় দেয়া হয়েছে। মানবিক এ শিথিলতার সুযোগে প্রতিরাতে কিছু কিছু রোহিঙ্গা অনুপ্রবেশ করছে টেকনাফ ও উখিয়া সীমান্ত এলাকায়। সেখানে তাদের দেয়া হচ্ছে চিকিৎসা সেবা। এদিকে মিয়ানমার থেকে অনুপ্রবেশকারী রোহিঙ্গাদের ভরণ-পোষণের জন্য দুইটি এনজিও ছাড়াও চট্টগ্রামে বসবাসকারী অনেক ধনাঢ্য রোহিঙ্গা নেতা অর্থায়ন করে চলছে। বন্ধুপ্রতিম রাষ্ট্র হিসেবে বাংলাদেশ সরকার মিয়ানমার সরকারকে সব ধরনের সহযোগিতা দিয়ে আসছে এ পর্যন্ত। মিয়ানমারে সংঘঠিত সশস্ত্র ঘটনায় যাতে সেখানে বসবাসকারী রোহিঙ্গারা কষ্ট না পায়, এ জন্য বিজিবি মিয়ানমারের বিজিপিকে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিয়েছে। সীমান্ত দিয়ে অনুপ্রবেশ রোধ করা হচ্ছে। বিজিবির টহল জোরদার করা হয়েছে। মানবিকতা দেখানো হচ্ছে রোহিঙ্গা স্বরনার্থীদের। আমরা আশা করছি মিয়ানমার সরকার খুব দ্রুত সমষ্যা সমাধান করবে।

ফেসবুক মন্তব্য
শেয়ার করুনঃ

১ thought on “রোহিঙ্গা সমস্যা পুঁজি করছে সুবিধাবাদী মহল

  1. আরএসও জঙ্গীরা রোহিঙ্গাদের
    আরএসও জঙ্গীরা রোহিঙ্গাদের এদেশে পালিয়ে আসতে উস্কানি দিচ্ছে। এ কাজে মৌলবাদী গোষ্ঠী সমর্থিত একাধিক মিডিয়াও সহযোগিতা দিয়ে চলছে।আমরা আশা করছি মিয়ানমার সরকার খুব দ্রুত সমষ্যা সমাধান করবে।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

− 1 = 8