প্রতিবারের ন্যায় এবারও বছরের প্রথম দিনে দেশব্যাপী পালিত হবে পাঠ্যবই উৎসব

এবারও বছরের প্রথম দিন দেশব্যাপী পাঠ্যপুস্তক উৎসব পালন করবে সরকার। দেশের উপজেলা পর্যন্ত ৮০ ভাগ বিনামূল্যের নতুন পাঠ্যবই ইতোমধ্যেই পৌঁছে গেছে। আগামী ১৫ দিনের মধ্যেই শতভাগ পাঠ্যবই সারাদেশের স্কুল পর্যায়ে পৌঁছে যাবে। সাধারণ শিক্ষার্থীদের পাশাপাশি এবার প্রথমবারের মতো প্রাথমিক ও মাধ্যমিক স্তরের দৃষ্টিপ্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীদের হাতেও বিনামূল্যের বই তুলে দেবে সরকার। এছাড়া প্রথমবারের মতো পাঁচটি ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর প্রাক-প্রাথমিক পর্যায়ের শিশুদের নিজ মাতৃভাষায় বই দেয়া হচ্ছে। প্রথমবারের মতো চাকমা, মারমা, ত্রিপুরা, ওরাও ও গারো জনগোষ্ঠীর শিশুদের জন্য তাদের মাতৃভাষায় প্রস্তুত হয়েছে প্রাক-প্রাথমিক পর্যায়ের পাঠ্যবই ও শিক্ষা উপকরণ। এবার ব্রেইল বই দেয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। ইতোমধ্যে ওই বই ছাপানো হয়েছে। এবার ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীদের জন্য পাঁচটি ভাষায় প্রাক-প্রাথমিকের বই ছাপানো হয়েছে। আগামী ১৫ দিনের মধ্যে সব বই পৌঁছে যাবে। গতবারের চেয়ে এবার প্রায় তিন কোটি বই বেশি দেয়া হচ্ছে। সরকারের বিভিন্ন উদ্যোগের কারণে প্রতিবছরই শিক্ষার্থীর সংখ্যা বৃদ্ধি পাচ্ছে। ঝরে পড়া কমছে। যার ফলে প্রতিবছরই বইয়ের সংখ্যা বাড়ছে। গতবছর বই বিতরণ করা হয়েছিল ৩৩ কোটি ৩৭ লাখ ৪৭ হাজার ৯৭২টি। এবার বিতরণ করা হবে ৩৬ কোটি ২১ লাখ ৮২ হাজার ২৪৫টি বই। স্বাধীনতার দীর্ঘ ৪৫ বছর পর এবার দেশের আদিবাসী বা ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীর শিশুদের মাতৃভাষায় শিক্ষা লাভের পথ উন্মুক্ত হতে চলেছে। আগামী শিক্ষাবর্ষ থেকেই মাতৃভাষায় পাঠ্যবই পড়ার সুযোগ পাচ্ছে দেশের পাঁচটি ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীর শিশুরা। প্রথমবারের মতো চাকমা, মারমা, ত্রিপুরা, ওরাও ও গারো জগগোষ্ঠীর শিশুদের জন্য তাদের মাতৃভাষায় প্রস্তুত হচ্ছে প্রাক-প্রাথমিক পর্যায়ের পাঠ্যবই ও শিক্ষা উপকরণ। পরবর্তী শিক্ষাবর্ষ থেকে পর্যায়ক্রমে প্রাথমিক ও প্রাক-প্রাথমিক স্তরে অন্যান্য আদিবাসী শিশুরাও মাতৃভাষায় শিক্ষা লাভের সুযোগ পাবে। বছরের প্রথম দিনে শিক্ষার্থীরা নতুন বই পেলে তারা একদিকে যেমন খুশী হবে তেমনি লেখা পড়ার প্রতি তাদের আগ্রহ বাড়বে। সরকারের এ পদক্ষেপের ফলে একদিকে যেমন ঝরে পড়া শিক্ষার্থীর সংখ্যা কমবে তেমনি দেশে শিক্ষার হার বাড়বে।

ফেসবুক মন্তব্য
শেয়ার করুনঃ

১ thought on “প্রতিবারের ন্যায় এবারও বছরের প্রথম দিনে দেশব্যাপী পালিত হবে পাঠ্যবই উৎসব

  1. বছরের প্রথম দিনে শিক্ষার্থীরা
    বছরের প্রথম দিনে শিক্ষার্থীরা নতুন বই পেলে তারা একদিকে যেমন খুশী হবে তেমনি লেখা পড়ার প্রতি তাদের আগ্রহ বাড়বে। সরকারের এ পদক্ষেপের ফলে একদিকে যেমন ঝরে পড়া শিক্ষার্থীর সংখ্যা কমবে তেমনি দেশে শিক্ষার হার বাড়বে।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

64 − = 63