বিশ্ব অঙ্গনে বাংলার দামাল ছেলেদের সাফল্য

বিশ্বের বৃহত্তম স্কুল ভারতের লক্ষেনৌ সিটি মন্টেসরির উদ্যোগে অনুষ্ঠিত হলো কোয়ান্টা-২০১৬ এর ২২তম আন্তর্জাতিক বিজ্ঞান, গণিত, মানসিক ক্ষমতা এবং ইলেকট্রনিক্স মেধাবিষয়ক প্রতিযোগিতা। এ প্রতিযোগিতা ১৭ নভেম্বর শুরু হয়ে শেষ হয় ২০ নভেম্বর। ভারতের শ্রেষ্ঠ স্কুলগুলোর পাশাপাশি বাংলাদেশ, ব্রাজিল, জার্মানি, রাশিয়া, আফ্রিকা এবং লেবাননসহ ৪০টির বেশি দেশ থেকে জাতীয় পর্যায়ে একাধিক দল অংশ নেয়। চার দিনব্যাপী এ প্রতিযোগিতায় নানাবিধ বিষয়বস্তুর মধ্যে ছিল গণিত ও বিজ্ঞান কুইজ, রোবট দৌড়, বিতর্ক, মানসিক ক্ষমতা ইত্যাদি। সেন্ট যোসেফ স্কুলের সাদিদ বিন হাসান এবং ইরতিজা ইরাম গণিত কুইজে অংশ নিয়ে বৈশিক রানার্সআপ হওয়ার গৌরব অর্জন করেন। এ যাত্রার সাফল্য অর্জন বাংলাদেশের জন্য এটাই প্রথম। অল্পের জন্য তাদের টপকে শীর্ষস্থান দখল করে জার্মানির জাতীয় দলটি। এর আগে অদম্য মনোবল দেখিয়ে তিন স্তরের প্রাথমিক পরীক্ষাগুলোর পাশাপাশি প্রথম ওপেন রাউন্ড এবং সেমিফাইনালের বাধা টপকে যায় সেন্ট যোসেফ স্কুলের শিক্ষার্থীরা। ভিন্ন জাতিসত্তার বদলে একক বিশ্বের নাগরিক হিসেবে কাজ করলে কীভাবে সত্যিই এক হয়ে উঠা যায়, সহযোগিতামূলক এবং প্রতিযোগিতামূলক মনোভাবের সঙ্গে এসব প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়ে তা শেখা যায়। দলের প্রতিটি সদস্যের, এমনকি শিক্ষকদেরও সহযোগিতা নিলে জটিল সমস্যাও সহজে সমাধান করা সম্ভব।

ফেসবুক মন্তব্য
শেয়ার করুনঃ

১ thought on “বিশ্ব অঙ্গনে বাংলার দামাল ছেলেদের সাফল্য

  1. বাংলার দামাল সন্তানেরা
    বাংলার দামাল সন্তানেরা বিভিন্ন প্রতিজগিতায় অংশ নিয়ে সাফল্য লাভ করে বিশ্বের বুকে বাংলাদেশের মাথা উচু করেছে ।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

+ 55 = 65