পর্যায়ক্রমে দেশের সকল সরকারি হাসপাতালে চালু হবে বৈকালিক স্বাস্থ্য সেবা

রাজধানীতে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ে বৈকালিক স্বাস্থ্য সেবা পাওয়া যায়। আর কোথাও ছিল না এই সেবা। সেটা শুরু হয়েছে নওগাঁতেও। সেখানকার স্বাস্থ্য বিভাগ অনুধাবন করেছে, একজন কৃষকের পক্ষে সকালে মাঠে না গিয়ে হাসপাতালে গেলে তার পুরো দিনটাই নষ্ট হয়ে যায়। ফলে খেটে খাওয়া মানুষের জন্য তাদের এই চমৎকার উদ্যোগ। নওগাঁর এই উদ্যোগ সফল হওয়ার পর স্বাস্থ্য অধিদফতর থেকে সারাদেশের সব সরকারি হাসপাতালে বৈকালিক সেবা চালুর উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। ইতোমধ্যে নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জ, মুন্সীগঞ্জের টঙ্গিবাড়ি, ঢাকার ধামরাই, সিরাজগঞ্জের কাজীপুর, নরসিংদীর শিবপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এবং টঙ্গী ও মানিকগঞ্জ সদর হাসপাতাল বহিঃবিভাগে বৈকালিক চিকিৎসা সেবা চালু হয়েছে। বিকালে আর দরিদ্র রোগীদের টাকা দিয়ে ডাক্তার দেখাতে হবে না। সম্প্রতি স্বাস্থ্য বিভাগ এই বৈকালিক চিকিৎসা সেবা একটি প্রকল্পের আওতায় নেওয়ার পরিকল্পনা করছে। যে সব চিকিৎসক রোগীদের এই বৈকালিক চিকিৎসা দিয়ে থাকেন তাদের কোনো পারিশ্রমিক দেওয়া হয় না। তরুণ চিকিৎসকদের এই সেবায় আগ্রহী করতে আগামীতে তাদের উৎসাহ ভাতা বা পারিশ্রমিক দেওয়ার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। এই মহৎ উদ্যোগটি যাতে আরো বৃহৎ আকারে করা যায় তার সব ধরনের চেষ্টা অব্যাহত রাখা উচিৎ। বিনামূল্যে রোগী সেবা একটা মহৎ কাজ। এই মহৎ কাজে আমাদের দেশের সকল ডাক্তাররা বিশেষ ভূমিকা রাখবে এ প্রত্যাশা সবার।

ফেসবুক মন্তব্য
শেয়ার করুনঃ

১ thought on “পর্যায়ক্রমে দেশের সকল সরকারি হাসপাতালে চালু হবে বৈকালিক স্বাস্থ্য সেবা

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

− 5 = 1