ভাষাসৈনিক কমরেড নিবেদিতা নাগের মৃত্যুতে বিশিষ্টজনদের শোক প্রকাশ


মহান ভাষাসৈনিক এবং বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের অকৃত্রিম সুহৃদ কমরেড নিবেদিতা নাগের মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছে ‘মৌলবাদ ও সাম্প্রদায়িকতাবিরোধী দক্ষিণ এশীয় গণসম্মিলন’ (South Asian People’s Union against Fundamentalism & Communalism) ও ‘একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটি’। আজ দুই সংগঠনের নেতৃবৃন্দ কর্তৃক স্বাক্ষরিত এক শোকবার্তায় বলা হয়।

‘বাংলাদেশের মহান ভাষাসৈনিক এবং মুক্তিযুদ্ধের অকৃত্রিম সুহৃদ কমরেড নিবেদিতা নাগ আজ ৫ মে ২০১৩ সকাল সাতটায় কলকাতার একটি হাসপাতালে মৃত্যুবরণ করেন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৯৪ বছর। আমরা তাঁর মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করছি।

‘কমরেড নিবেদিতা নাগ জন্মেছেন চট্টগ্রামে, স্নাতকোত্তর ডিগ্রি অর্জন করেছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে এবং বিয়ে করেছেন বাংলাদেশের কমিউনিস্ট আন্দোলনের অন্যতম প্রতিষ্ঠাতা কমরেড নেপাল নাগকে। চল্লিশের দশকে নারায়ণগঞ্জে শ্রমিক আন্দোলন সংগঠিত করার ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রেখেছিলেন তিনি। নারায়ণগঞ্জের তোলারাম কলেজের প্রতিষ্ঠাতা অধ্যক্ষা ছিলেন নিবেদিতা নাগ। ১৯৪৮-১৯৫২ সালের ভাষা আন্দোলনের একজন নিবেদিতপ্রাণ কর্মী ছিলেন তিনি।

‘কমিউনিস্ট পার্টির নির্দেশে পঞ্চাশের দশকের শেষে তিনি স্বামীর সঙ্গে স্থায়ীভাবে কলকাতায় চলে যান এবং শিক্ষা ও নারী আন্দোলনে যুক্ত হন। ’৭১-এর মুক্তিযুদ্ধের সময় কলকাতায় তাঁর বাড়ি ছিল বাংলাদেশের বামপন্থী মুক্তিযোদ্ধাদের অন্যতম আশ্রয়। মুক্তিযুদ্ধের পক্ষে জনমত সৃষ্টিতে নাগ দম্পতির গুরুত্বপূর্ণ অবদানের জন্য গত বছর ডিসেম্বরে বাংলাদেশ সরকার কমরেড নেপাল নাগ ও নিবেদিতা নাগকে রাষ্ট্রীয় সম্মাননা প্রদান করে।

‘কমরেড নিবেদিতা নাগ আমৃত্যু বাংলাদেশ ও ভারতের মেহনতি মানুষের আন্দোলনের পরম সুহৃদ ছিলেন। তাঁর বর্ণাঢ্য কর্মজীবন উপমহাদেশের সাম্রাজ্যবাদবিরোধী প্রগতির আন্দোলনের তরুণ কর্মীদের সবসময় অনুপ্রাণিত করবে। আমরা তাঁর পরিবারের শোকসন্তপ্ত সদস্য, সুহৃদ ও সহযোদ্ধাদের প্রতি গভীর সমবেদনা ও সহমর্মিতা জ্ঞাপন করছি।

স্বাক্ষরদাতাঃ
বিচারপতি মোহাম্মদ গোলাম রাব্বানী, সাংবাদিক কামাল লোহানী, অধ্যাপক অজয় রায়, বিচারপতি সৈয়দ আমিরুল ইসলাম,বিচারপতি বদরুল হক, কথাশিল্পী হাসান আজিজুল হক, অধ্যাপক বোরহানউদ্দিন খান জাহাঙ্গীর, শিল্পী কাইয়ুম চৌধুরী, লেখক সৈয়দ শামসুল হক, লেঃ কর্ণেল (অবঃ) আবু ওসমান চৌধুরী, অধ্যাপক অনুপম সেন, সাংবাদিক শাহরিয়ার কবির, অধ্যাপক মুনতাসীর মামুন, ভাষাসৈনিক আবুল হোসেন, কথাশিল্পী ডাঃ আনোয়ারা সৈয়দ হক, অধ্যাপিকা হামিদা বানু, শিল্পী হাশেম খান, শিল্পী রফিকুন নবী, কথাশিল্পী রশীদ হায়দার, স্থপতি রবিউল হুসাইন, নারীনেত্রী আয়শা খানম, শহীদজায়া শ্যামলী নাসরীন চৌধুরী, ভাস্কর ফেরদৌসী প্রিয়ভাষিণী, কলাম লেখক মমতাজ লতিফ, সমাজকর্মী কাজল দেবনাথ, মুক্তিযোদ্ধা মেজর (অবঃ) সামছুল আরেফিন, চলচ্চিত্রনির্মাতা শামীম আখতার, শহীদজায়া সালমা হক, সমাজকর্মী আরমা দত্ত, শিল্পী আবুল বারক আলভী, মুক্তিযোদ্ধা শিরিন বানু মিতিল, কাজী মুকুল, ব্যারিস্টার তুরিন আফরোজ, সাংবাদিক জুলফিকার আলী মানিক, সাব্বির রহমান খান, এডভোকেট খন্দকার আবদুল মান্নান, সমাজকর্মী কাজী লুৎফর রহমান, আলী আকবর টাবি, অধ্যাপক গাজী সালাহউদ্দীন, ডাঃ শাফিকুল আলম, মুক্তিযোদ্ধা আবদুর রব, অধ্যাপক মোহাম্মদ কামরজ্জামান, সংস্কৃতিকর্মী শওকত বাঙালি প্রমুখ।

ফেসবুক মন্তব্য
শেয়ার করুনঃ

৩ thoughts on “ভাষাসৈনিক কমরেড নিবেদিতা নাগের মৃত্যুতে বিশিষ্টজনদের শোক প্রকাশ

  1. শ্রদ্ধা জানাই।
    একটা ব্যাপার

    শ্রদ্ধা জানাই।
    একটা ব্যাপার খেয়াল করেছেন? গতকাল প্রীতিলতার জন্মদিন ছিল। উনিও জন্মেছিলেন চট্টগ্রামে। নিবেদিতা নাগের জন্মও চট্টগ্রামে। আর আজ স্বাধীন বাংলাদেশে চট্টগ্রাম হচ্ছে জামাত-শিবির-হেফাজতিদের মতন ভণ্ড মৌলবাদীদের আস্তানা। দুঃখ হয়।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

89 − = 87