ইশ্বরের মতো নিঃসঙ্গতা

তারা বলে, নেই কিছুই
ইশ্বরের আগে, ইশ্বরের পরে
আদি ও অন্তে
আমি বলি,
তবে কি ইশ্বর খুব একা
খুব নিঃসঙ্গ সত্ত্বা কোনো?
ব্রহ্মান্ডের ওপারে এপারে
ভাগ করে নেয়ার জন্য
কাউকেই পান না তিনি,
যেমন আমি পাইনা তোমাকে
পারি না দিতে প্রেমপূস্প্য নৈবেদ্য,
সঁপে দিতে পারি না আমার হাত
অন্য কোনো নারীর হাতে,
ইবাদতে ইবাদতে পার করতে পারি না
মধ্যরাত থেকে সুবহে সাদিক।

কেউ জানে না,
তোমাকে না পেয়ে
আমার অন্তরীক্ষে আমি ভীষণ একা,
তুঙ্গস্পর্শী পর্বতের চূড়ার মতো
মেঘের উপরে ওড়া ঈগলের মতো
আমাকে প্রতিনিয়ত তাড়া করে
বেদনাবিহীন এক মহাশূন্যতা
আমার চরাচরে শুধু আমি,
আর আমাকে ঘিরে থাকে
ইশ্বরের মতো নিঃসঙ্গতা।

ফেসবুক মন্তব্য
শেয়ার করুনঃ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

58 − 54 =